1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

মাল্টাকে ৩-০ হারাল জার্মানির ‘বি’- টিম

বিশ্বকাপের আগে বন্ধুত্বপূর্ণ ম্যাচে মাল্টাকে তিন - শূণ্য গোলে হারিয়ে দিল জার্মানির বি-টিম৷ দলে ছিলেন না বালাক, সোয়াইনস্টাইগারের মত নামজাদারা, তারপরেও৷ তবে এই জার্মান দলটাকে আরও উন্নত হতে হবে৷

default

মাল্টা তেমন ভালো দল কিছু নয়৷ তিন-শূণ্য গোলে তাদের হারিয়েছে জার্মানির যে টিমটা, সেটা বরং বেশ চোখে পড়ার মত৷ কারণ, আখেনের টিমোনি স্টেডিয়ামের বৃহস্পতিবারের বন্ধুত্বপূর্ণ ম্যাচটায় যে জার্মান দলটা খেলেছে, তাতে ক্যাপ্টেন মিশায়েল বালাক ছিলেন না, ছিলেন না সোয়াইনস্টাইগার বা লামও৷ বালাক চেলসির হয়ে খেলতে গেছেন ইংল্যন্ডে৷ ওদিকে জার্মান কাপে খেলতে গেছেন সোয়াইনস্টাইগার৷ নেই লামও৷ তারপরেও, প্রায় বি টিম নিয়ে খেলেও খেলার ওপর সম্পূর্ণ কর্তৃত্ব জার্মান দলটারই ছিল৷ এটা অবশ্যই ভালো লক্ষণ৷
ভালো লক্ষণ যেটা নয়, তা হল, তারকাদের অভাবটাকে বোধ করা৷ ১৬ আর ১৮ মিনিটে জার্মান স্ট্রাইকার কাকাও এদিন পরপর দুটি গোল দেন৷ তিন নম্বর গোল এসেছে মাল্টার কেনেথ কিচলুনার পা থেকেই৷ আত্মঘাতী গোল করে ফেলেন তিনি৷ খেলার শুরু থেকেই এদিন জার্মানদের দখলে ছিল বল৷ কিন্তু এতগুলো গোলের সুযোগ নষ্ট করেছে এদিন জার্মানি, তাতে প্রমাণ হয়েছে, অভিজ্ঞ তারকারা কয়েকজন মাঠে হাজির না থাকলে বাকি দলটার মধ্যে রয়ে গেছে পারস্পরিক বোঝাপড়ার গুরুতর অভাব৷ বিশ্বকাপের মত আসরে, যেখানে সামান্য ভুলের খেসারত দিতে হয় অনেকখানি, সেখানে এই জাতীয় বোঝাপড়ার ঘাটতির পরিস্থিতি এলে তার মাশুল কিন্তু অনেকটাই বেশি হয়ে যাবে৷ আর চোট, আঘাত, লালকার্ড, ইত্যাদি বহু কারণেই হঠাৎ ঘুরে যেতে পারে পরিস্থিতি যে কোন সময়ে৷ কী হবে তখন?

জার্মান কোচ ইউয়াখিম লোয়ের হাতে রয়ে গেছে আর ঠিক সাতাশটি দিন৷ বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচের বাঁশি বাজার আগে এই সাতাশটি দিনেই জাতীয় দলের মধ্যে প্রয়োজনীয় ছন্দটাকে তিনি তৈরি করতে পারবেন কিনি, সেটা অবশ্যই লক্ষ্য রাখার মত বিষয়৷ প্রসঙ্গত, আগামী ২৯ মে হাঙ্গেরির সঙ্গে আরেকটি বন্ধুত্বপূর্ণ ম্যাচ খেলবে জার্মানি৷ সেখানেও আরেকদফা নিজেদের ঝালিয়ে নেওয়ার সুযোগ পাবে জার্মান জাতীয় দল৷

জার্মানি - মাল্টা ম্যাচ দেখে এসে আমাদের ফুটবল বিশেষজ্ঞ অরুণাভ চৌধুরীর রিপোর্ট৷

সম্পাদনা - সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়

সংশ্লিষ্ট বিষয়