1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

মার্কিন পরিব্রাজক সারাহকে মুক্তি দেয়ার পরিকল্পনা বাতিল

যুক্তরাষ্ট্রের পরিব্রাজক সারাহ শোর্ডকে মুক্তি দেয়ার পরিকল্পনা বাতিল করেছে ইরান৷ ইসলামিক প্রজাতন্ত্র ইরানে গোয়েন্দাবৃত্তি এবং অবৈধ অনুপ্রবেশের অভিযোগ আনা হয়েছে তার বিরুদ্ধে ৷

ইরান, মার্কিন, পরিব্রাজক

ইরানের হাতে আটক তিন মার্কিন পরিব্রাজক

বলা হচ্ছে, সারাহর ব্যাপারে যেসব বৈধ ইস্যুর যুক্তি দেখানো হচ্ছে, সেগুলোর মীমাংসা হয়নি, তাই তাকে পরিকল্পনা অনুযায়ী মুক্তি দেয়া হচ্ছে না৷

ইলনা সংবাদ সংস্থা তেহরানের আইনজীবী আব্বাস জাফরি দোলাতাবাদির এক বিবৃতির বরাত দিয়ে বলেছে, এই মার্কিন বিবাদীর মুক্তির জন্যে বিচার প্রক্রিয়ায় সবকিছুর মীমাংসা না হবার কারণে, তাকে মুক্তি দেয়া হচ্ছে না৷ সারাহকে মুক্তি দেয়া হবে বলে যে প্রতিবেদনগুলো প্রকাশ করা হয়েছে, সে সম্পর্কে আইনজীবী বলেন, এইসব সংবাদ এবং বিবাদীর বিচার সম্পর্কিত খবর প্রকাশ বিচার ব্যবস্থায় অনুমোদিত নয়৷

ইরানের রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা ইরনা জানিয়েছে, প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আহমাদিনেজাদের কার্যালয় থেকে বলা হয়েছে, সারাহর মুক্তি বাতিল করা হয়েছে৷ প্রেসিডেন্ট কার্যালয়ের এক মুখপাত্রের বরাত দিয়ে ইরনা জানিয়েছে, একটি অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে এই মার্কিন নাগরিককে মুক্তি দেয়ার কথা ছিল, শনিবার ছুটির দিন হওয়ায় তা বাতিল করা হয়েছে৷

তবে এর আগে প্রেসিডেন্ট কার্যালয়ের মুখপাত্র মোহাম্মদ হাসান লালেহমারামের বরাত দিয়ে ইরনার খবরে বলা হয়েছিল, ‘‘সারাহ শোর্ডের মুক্তির ব্যাপারে বিস্তারিত পরে জানানো হবে৷''

ইরানের পারমাণবিক কর্মসূচি নিয়ে ওয়াশিংটন এবং তেহরানের মধ্যে উত্তেজনা যে পর্যায়ে পৌঁছেছে সারাহর মুক্তির মাধ্য দিয়ে তা কিছুটা সহজ হতে পারে৷ যে তিনজন মার্কিন পরিব্রাজক এক বছরেরও বেশি সময় ধরে ইরানে আটক রয়েছেন, তাদের মধ্যে থেকে সারাহকে শনিবারে মুক্তি দেয়া হতে পারে বলে বেশ কয়েকজন কর্মকর্তা এর আগে ইঙ্গিত দিয়েছিলেন৷

২০০৯ সালের ৩১-শে জুলাই ইরাক থেকে সীমান্ত পার হবার পর, সানে বাউয়ের এবং জোসে প্যাটালের সঙ্গে ৩২ বছর বয়সি সারাহকে গ্রেপ্তার করা হয়৷ তাদের বিরুদ্ধে গোয়েন্দাবৃত্তি এবং অবৈধ অনুপ্রবেশের অভিযোগ আনা হয়েছে৷ গ্রেপ্তারকৃতরা বলেছেন, ইরাকের কূর্দিস্তানে যাবার পথে তারা পথ হারিয়ে ইরানে ঢুকে পড়েছে৷

সারাহকে মুক্তি দেয়া হচ্ছে, এই রকম একটি খবর প্রথম ছড়িয়ে পড়ে যখন, শনিবারে এই সংক্রান্ত একটি অনুষ্ঠানে যোগ দেবার জন্যে ইরানের সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের বার্তায় সংবাদ সংস্থাগুলোকে আমন্ত্রণ জানানো হয়৷ তবে সারাহর মুক্তির বিষয়টি নিয়ে সন্দেহ দেখা দেয় যখন শুক্রবার ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রহিম মেহমান পরাস্ত বলেন যে তাকে মুক্তি দেবার তারিখ নিয়ে এখনও আলোচনা চলছে৷

প্রতিবেদন: ফাহমিদা সুলতানা

সম্পাদনা: হোসাইন আব্দুল হাই

সংশ্লিষ্ট বিষয়