1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

মার্কিন-দক্ষিণ মহড়ায় কোরিয়া উপদ্বীপ উত্তপ্ত

পীত সাগরে মার্কিন ও দক্ষিণ কোরিয়ার যৌথ নৌ মহড়া শুরু৷ সমুদ্রসীমা লঙ্ঘন করলে আবারো হামলা চালানোর হুমকি দিয়েছে উত্তর কোরিয়া৷ উত্তেজনাপূর্ণ পরিস্থিতিতে ছয় জাতি জরুরি বৈঠকের আহ্বান চীনের৷

South Korean, protesters, North Korean, flag, bombardment, island, Incheon, Korea, The United States, মার্কিন-দক্ষিণ মহড়া, কোরিয়া, উপদ্বীপ, উত্তপ্ত

উত্তর বিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল সৌল (ফাইল ছবি)

উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়ার মধ্যে গত মঙ্গলবারের গোলা বিনিময়ের পর থেকে অবনতির দিকে কোরিয়া উপদ্বীপের পরিস্থিতি৷ দক্ষিণ কোরিয়ার ইয়নপিয়ং দ্বীপে উত্তরের হামলা এবং তাতে চারজন নিহত হওয়ার প্রেক্ষিতে দক্ষিণের সাথে যৌথ সামরিক মহড়ার ঘোষণা দিয়েছিল অ্যামেরিকা৷ পরিকল্পনা মাফিক চারদিনের সামরিক মহড়া শুরু করেছে দক্ষিণ ও মার্কিন নৌসেনারা৷ কমপক্ষে পাঁচটি মার্কিন যুদ্ধজাহাজ অংশ নিচ্ছে এই মহড়ায়৷ তবে এই মহড়ায় নাখোশ চীন এবং উত্তর কোরিয়া৷ চীনের সীমানার কাছাকাছি অঞ্চলে নৌ মহড়ার সমালোচনা করে আসছে চীন৷

এদিকে, রবিবার আবারো হুঁশিয়ার করে দিয়েছে উত্তর৷ সরকারি বার্তা সংস্থা কেসিএনএ প্রকাশিত বিবৃতিতে উত্তরের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ‘‘আমাদের জলসীমা অতিক্রম করলে যে কোন উসকানিমূলক ঘটনার জবাবে মারাত্মক সামরিক হামলা চালাবো আমরা৷'' বার্তা সংস্থা ইয়নহপ বলছে, দক্ষিণ-মার্কিন মহড়ার প্রেক্ষিতে পীত সাগরে নিজেদের সীমানায় ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েন করেছে উত্তর কোরিয়া৷ উত্তরের পক্ষ থেকে নতুন করে হামলার আশঙ্কায় ইয়নপিয়ং দ্বীপ থেকে স্থানীয় বাসিন্দা এবং সাংবাদিকদের নিরাপদ আশ্রয়ে সরে যেতে নির্দেশ দিয়েছে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিরক্ষা দপ্তর৷

উদ্ভূত পরিস্থিতিতে জরুরি সমঝোতা আলোচনার ডাক দিয়েছে চীন৷ চীনা কূটনীতিক উ ডাউয়ি সাংবাদিক সম্মেলনে বলেন, উত্তর কোরিয়াকে পরমাণু কর্মসূচি থেকে বিরত রাখতে ছয়জাতি আলোচনা এখন শুরু করা সম্ভব না হলেও ছয়জাতির প্রতিনিধিদের উচিত পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনার জন্য জরুরি বৈঠকে বসা৷ প্রসঙ্গত, ছয়জাতি বলতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, চীন, জাপান, রাশিয়া, উত্তর এবং দক্ষিণ কোরিয়ার কথা বলা হয়েছে৷ তবে চীনের এই আহ্বান নাকচ করে দিয়েছে ব্লু হাউজ অর্থাৎ দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট ভবন৷ তারা বলছে, ছয়জাতির জরুরি বৈঠকের সময় এখন নয়৷

রবিবার চীনের স্টেট কাউন্সিলর ডাই বিঙ্গো দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট লি মিয়ুং বাকের সাথে সাক্ষাৎ করলে তাঁকে দক্ষিণের অবস্থান স্পষ্ট করে জানিয়ে দেন বাক৷ প্রেসিডেন্ট বাক বলেন, ‘‘উত্তর-দক্ষিণের সম্পর্কের ক্ষেত্রে আরো নিরপেক্ষ এবং দায়িত্বশীল ভূমিকা রেখে কোরিয়া উপদ্বীপে শান্তি বজায় রাখতে চীনের অবদান দেখতে চাই আমরা৷'' বাকের সাথে বৈঠকে গত মঙ্গলবারের ঘটনায় চার জন দক্ষিণ কোরীয় নাগরিকের প্রাণহানির জন্য চীনের পক্ষ থেকে সমবেদনা জানান বিঙ্গো৷ এছাড়া পরিস্থিতির আরো অবনতি ঠেকাতে চীন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে আশ্বস্ত করেন তিনি৷

প্রতিবেদন: হোসাইন আব্দুল হাই

সম্পাদনা: সাগর সরওয়ার

নির্বাচিত প্রতিবেদন