1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

মার্কিন গ্রেনেডেই কী নিহত হন লিন্ডা? প্রশ্ন ক্যামেরনের

আফগানিস্তানে জঙ্গিদের হাতে পণবন্দি ব্রিটিশ ত্রাণকর্মী লিন্ডাকে কী জঙ্গিরাই হত্যা করেছিল, নাকি তিনি নিহত হন উদ্ধারকারী মার্কিবাহিনীর গ্রেনেড হামলায়? বিষয়টি খতিয়ে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন জেনারেল ডেভিড পেত্রায়ুস৷

Afghanistan, Linda Norgrove, Death, Taliban, US Army, David Cameron, Obama, Grenade attack,লিন্ডা নরগ্রোভ, ওবামা, ক্যামেরন, আফগানিস্তান, তালেবান, অপহরণ, নিহত, গ্রেনেড, মার্কিনবাহিনী, ইংল্যন্ড, অ্যামেরিকা

নিহত লিন্ডা নরগ্রোভ

জঙ্গিদের বিস্ফোরণ নাকি মার্কিন গ্রেনেড

প্রশ্ন তুলেছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন৷ সোমবার এই বিষয়টি উত্থাপন করে ক্যামেরনের বক্তব্য, গত শুক্রবার আফগানিস্তানে জঙ্গিদের হাতে পণবন্দি লিন্ডা নরগ্রোভের মৃত্যু আদৌ জঙ্গিদের হাতে হয়েছিল নাকি মার্কিবাহিনীর গ্রেনেড হামলাতেই দুর্ঘটনাবশত তিনি মারা পড়েছেন, তা এখনও স্পষ্ট নয়৷ যদিও গত শুক্রবার কিন্তু লিন্ডার মৃত্যুর সংবাদ প্রচার করার সময় বলা হয়েছিল, অপহরণকারী জঙ্গিরাই বিস্ফোরণ ঘটিয়ে হত্যা করেছে লিন্ডাকে৷ ক্যামেরন এই প্রশ্ন তোলার পর আফগানিস্তানে মার্কিন সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল ডেভিড পেত্রায়ুস বিশেষ তদন্তের নির্দেশ জারি করেছেন৷ বলা হয়েছে, ব্রিটেন এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র একযোগে এই তদন্ত চালাবে৷ খতিয়ে দেখা হবে ঠিক কীভাবে প্রাণ হারান লিন্ডা৷

কীভাবে এগোবে তদন্ত

লিন্ডা যেদিন মারা পড়েন, সেই গত শুক্রবার তাঁকে উদ্ধার করতে একদল মার্কিন সেনা আফগানিস্তানের কুনার প্রদেশে জঙ্গিদের গোপন ডেরার সন্ধান পেয়ে সেখানে হামলা চালিয়েছিল পণবন্দি ওই ব্রিটিশ যুবতীকে উদ্ধারের জন্য৷ প্রসঙ্গত, গত ২৬ সেপ্টেম্বর জালালাবাদে কর্মরত লিন্ডাকে তাঁর কিছু সহকর্মীর সহায়তায় অপহরণ করে নিয়ে যায় জঙ্গিরা৷ মার্কিনবাহিনী ওই

NO FLASH US Soldat in Afghanistan

আফগানিস্তানে কর্মরত মার্কিন সেনার হেলমেটে থাকে ক্যামেরা

এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে কাজ করে অভিজ্ঞ বলে লিন্ডাকে উদ্ধারের ব্যাপারে তাদের ওপরেই নির্ভর করার সিদ্ধান্ত নেয় ব্রিটেন৷ জঙ্গিদের ডেরার সন্ধান পাওয়ার পর মার্কিন বাহিনীর একটি ব্যাটেলিয়ন জঙ্গিদের ডেরার দিকে এগিয়ে যায়৷ তাদের প্রত্যেকের হেলমেটে ক্যামেরা লাগানো ছিল৷ তাছাড়া আকাশপথে চালকবিহীন বিমান থেকে যেসব বোমা ছোঁড়া হয়েছে, তারও ভিডিও রেকর্ড রয়েছে৷ ফলে সেই অভিযানের প্রতিটি পদক্ষেপই ফিরে দেখা সম্ভব৷ সেই পথেই তদন্তের কাজে এগোবেন তদন্তকারীরা৷ দেখা হবে ঠিক কীভাবে নিহত হন আফগানিস্তানে কর্মরতা ব্রিটিশ ত্রাণকর্মী লিন্ডা নরগ্রোভ৷

জঙ্গিদের বিরুদ্ধে এই অভিযান আসলে ব্যর্থ

এখন অন্তত সেরকমই শোনা যাচ্ছে ব্রিটেন এবং যুক্তরাষ্ট্রের বয়ানে৷ সোমবার এই বিষয়টি নিয়ে টেলিফোনে দীর্ঘ সময় কথা বলেছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন এবং মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা৷ নিহত লিন্ডার পরিবারবর্গকে গভীর সমবেদনা জানান ওবামা৷ ক্যামেরন সাংবাদিকদের কাছে তাঁর বক্তব্যে প্রকারান্তরে মেনে নেন, সম্ভবত মার্কিন সেনাদের ভুলের শিকার হয়েছেন লিন্ডা৷ তার থেকে এটা অবশ্যই পরিষ্কার যে জঙ্গিদের বিরুদ্ধে লিন্ডাকে উদ্ধার করার অভিযান ব্যর্থই হয়েছিল সেদিন৷ আর সেই ব্যর্থ অভিযানের মাশুল হিসেবে বেচারি লিন্ডার প্রাণ গেল৷ অবশ্যি, ব্যাপারটাকে ‘দুর্ঘটনা' বলেও ব্যাখ্যা করেছেন ক্যামেরন৷ তাছাড়া ওবামা এবং ক্যামেরন দুজনেরই দাবি, জঙ্গিদের বিরুদ্ধে ওই অভিযানের সিদ্ধান্ত প্রয়োজনীয় ছিল৷ অপহৃত লিন্ডাকে জঙ্গিদের কবলমুক্ত করার সেই সিদ্ধান্তে কোন ভুল ছিল না বলে মনে করছেন দুই নেতাই৷

প্রতিবেদন: সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়

সম্পাদনা: সাগর সরওয়ার