1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

মারাদোনা রাজি, দুঙ্গাও, যৌনতায় গররাজি কাপেলো

ব্রাজিলের কোচ দুঙ্গা প্রথমে বলেছিলেন৷ সায় দিয়েছিলেন আর্জেন্টিনার মারাদোনাও৷ ইংলিশ কোচ কাপেলো কিন্তু রাজি নন৷ বিশ্বকাপ চলাকালীন খেলোয়াড়রা যৌন সংসর্গ করুন এটা তিনি চান না৷ সাফ জানিয়ে দিলেন৷

default

বিশ্বকাপের সময় খেলোয়াড়দের যৌনতায় আপত্তি কাপেলোর

বিশ্বকাপের খেলা শুরু হতে বাকি ঠিক দশদিন৷ আলোচনা চলছে বহু বিষয় নিয়েই৷ বিশ্বকাপের সময়ে খেলোয়াড়দের জন্য কী ভালো আর কী খারাপ, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে উঠতে বিশ্ব ফুটবলের রাজকীয় আসরে খেলোয়াড়দের যৌনতা প্রয়োজনীয় কিনা, সে প্রশ্নও উঠেছে৷ এর জবাবে কয়েকদিন আগেই ব্রাজিলের কোচ দুঙ্গা প্রথমে বলেছিলেন, বিশ্বকাপের সময় তাঁর দলের খেলোয়াড়রা নিজেদের স্ত্রী বা বান্ধবীর সঙ্গেই রাত কাটাতে পারবেন৷ তাতে খেলোয়াড়দের মধ্যে বাড়তি উত্সাহ আর উদ্দীপনা থাকবে৷ যার সুফল দেখা যাবে খেলার মাঠে৷ দুঙ্গার সঙ্গেই একই সুরে গলা মিলিয়েছিলেন সে সময় আর্জেন্টিনার কোচ, বিশ্ব ফুটবলের রাজপুত্র দিয়েগো মারাদোনাও৷

Fußball-Star David Beckham mit seiner Frau und Ex-Spice Girl Victoria Beckham

ভিক্টোরিয়াও কি বেকহ্যাম’এর সঙ্গে থাকতে পারবেন না?

কিন্তু দুঙ্গা বা মারাদোনার ল্যাটিন অ্যামেরিকার রীত রেওয়াজ একেবারেই না-পসন্দ ইংলিশ কোচ ফাবিও কাপেলোর৷ বিশ্বকাপের প্রস্তুতি খেলায় রবিবার জাপানকে ২-১ গোলে বেশ ভালো খেলে হারিয়েছে ফাবিও'র ইংল্যান্ড৷ তারপরেই দলের পারফরম্যান্সে উচ্ছ্বসিত কাপেলো সাংবাদিক সম্মেলনে নিজের দলের প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়ে ওঠেন৷ সেই সাংবাদিক সম্মেলনেই উঠে আসে এই খেলার সময় যৌনতার প্রশ্ন৷ কাপেলো জানিয়ে দিয়েছেন, না, এতে আপত্তি আছে তাঁর৷ বলেছেন, বিশ্বকাপের প্রাথমিক পর্বের ম্যাচের পর বড়জোর একদিন নিজেদের স্ত্রী কিংবা বান্ধবীর সঙ্গে রাত কাটাতে পারবেন ইংলিশ ফুটবলাররা৷ আর দ্বিতীয় পর্ব থেকে নিয়মটা অনেক কড়া করে দেওয়া হবে৷ অর্থাৎ, সোজা কথা, ইংলিশ কোচের মতে, খেলার সময় অন্য কিছু নয়৷ শুধুই খেলা৷ তিনি মনে করেন, বিশ্বকাপের মত আসরের সময় অন্যদিকে মনোযোগ গেলে খেলোয়াড়রা মাঠে নেমে ভালো খেলতে পারবেন না৷

তাহলে ব্যাপারটা কী দাঁড়াচ্ছে? এই যে কোচেদের মধ্যে ভিন্ন ধারণা, তাতে কী মহাদেশীয় পার্থক্যই আবার ধরা পড়ল না? মানে, ল্যাটিন অ্যামেরিকার যে দুই নামজাদা ফুটবল খেলিয়ে দেশ ব্রাজিল আর আর্জেন্টিনার দুই দুনিয়া কাঁপানো প্রাক্তন ফুটবলার এবং বর্তমান কোচেরা মনে করেন, খেলার সময় যৌনতা ক্ষতিকারক নয়, তাতে খেলার মান বাড়ে৷ আর এদিকে ইউরোপেরই এক কোচ এবং একদা নামজাদা খেলোয়াড় কাপেলোর মত ঠিক উল্টোটাই!

শেষে ইংল্যান্ড দলের কোচিং করতে করতে ইটালিয়ান কাপেলোর মধ্যেও কী স্বনামধন্য ব্রিটিশ রক্ষণশীলতা বাসা বাঁধতে শুরু করেছে নাকি? দেখা যাক, পণ্ডিতরা এ বিষয়ে কে কী মতামত দেন!

প্রতিবেদন: সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়
সম্পাদনা:সঞ্জীব বর্মন

সংশ্লিষ্ট বিষয়