1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

মাদ্রিদের রাজপ্রাসাদ থেকে রাজপথে আনন্দের জোয়ার

শুধুমাত্র সাধারণ জনতাই নয়, বিশ্বকাপ জয়ের আনন্দে আত্মহারা স্বয়ং স্প্যানিশ রাজা হুয়ান কার্লোসও৷ জাতীয় বীরেরা মাতৃভূমির মাটিতে পা রাখলেন লাখো ভক্তের ভালবাসা আর উচ্ছ্বাসে সিক্ত হয়ে৷

Africa, Spain, Football, মাদ্রিদ, Madrid

স্প্যানিশ ভক্তদের উল্লাস

সোমবার স্থানীয় সময় দুপুর দু'টোয় মাদ্রিদের মাটি ছোঁয় ইবেরিয়ার বিশেষ বিমান৷ পত পত করে উড়তে থাকে স্প্যানিশ পতাকা৷ বীরের বেশে প্রথমেই বিমান থেকে বের হন অধিনায়ক ইকার ক্যাসিয়াস৷ এরপর ধীরে ধীরে দেখা মেলে জয়ের নায়ক ইনিয়েস্তাসহ অন্যান্যদের৷ জনগণের ভালোবাসা আর আবেগে গা ভাসিয়ে স্প্যানিশ স্কোয়াড হাজির হয় রাজপ্রাসাদে৷

সবটুকু আবেগ দিয়ে তাঁদের বরণ করেন রাজা হুয়ান কার্লোস৷ বলেন, ‘‘কঠিন মুহূর্তকে জয় করে আপনারা নতুন প্রজন্মের জন্য উদাহরণ সৃষ্টি করেছেন৷ আমাদের শ্রেষ্ঠ স্বপ্নকে দিয়েছেন বাস্তবরূপ৷'' এরপরই বীরদের বরণ করেন প্রধানমন্ত্রী হোসে লুইস রড্রিগেজ সাপাটেরো৷ আবেগ আপ্লুত সাপাটেরো বলেন, ‘‘এই বিজয়ের জন্য ২৩ জন খেলোয়াড়ের এই দলকে আমি জানাই আন্তরিক অভিনন্দন৷ তবে এই বিজয়ের পেছনে রয়েছে সকল স্প্যানিয়ার্ডের ঐক্যবদ্ধ শক্তি৷''

Spain, Iker Casillas, World Cup, Madrid

মাদ্রিদে বিজয় শোভাযাত্রা

প্রধানমন্ত্রীর সরকারি ভবন থেকে স্প্যানিশ বীরেরা যোগ দেন বিজয় শোভাযাত্রায়৷ স্প্যানিশদের এই আনন্দের প্রকাশ কোন শব্দ দিয়ে হতে পারে না৷ রাজধানী মাদ্রিদের কোথাও যেন তিল ধারণের জায়গা নেই৷ আকাশ বাতাসে মুহুর্মুহু ধ্বনি, ‘‘চ্যাম্পিয়নস, চ্যাম্পিয়নস৷'' রঙের সাগরে ভাসছে রাজপথ৷ আবাল, বৃদ্ধ, বনিতা সবার বুকে অজস্র ভালোবাসার নহর৷ আর মুখে ধ্বনিত হচ্ছে সফল কোচ ভিনসেন্ট ডেল বস্কের ছেলেদের বীরত্ব গাথা৷ উচ্ছ্বাস ও উল্লাসের এমন কোন ধরণই বাকি নেই, যা ছিল না মাদ্রিদের অলিতে গলিতে৷ নাচ-গান, আতশবাজি আর আলোকসজ্জায় ঝকঝকে মাদ্রিদের রাত৷ ফুলে ফুলে সুশোভিত বাস ধীর গতিতে এগুতে থাকে জনতার ভিড় ভেদ করে৷ পৌঁছয় মানজানারেস নদীর তীরে গড়ে তোলা বিজয় মঞ্চে৷ মাঝরাত পর্যন্ত চলে বিজয় সংবর্ধনা৷

এদিকে, জার্মানির তরুণ তারকারাও দেশে ফিরলেন সোমবার৷ তৃতীয় স্থান অর্জনের লজ্জায় মাথা নত ছিল কোচ ইয়োগি ল্যোভের ছেলেদের৷ তবুও ফ্রাঙ্কফুর্ট বিমানবন্দরের পার্শ্ব গেট দিয়ে চুপ করে পালানোকে কোনভাবেই মেনে নিতে পারছেন না ভক্তরা৷ দক্ষিণ আফ্রিকা ফেরত জার্মান তারকাদের জন্য কোন সংবর্ধনা না হলেও কয়েকশ ভক্ত ভিড় করেছিল বিমানবন্দরে৷ কিন্তু জার্মান দল সিটি মেয়র পেট্রা রথের সাথে সংক্ষিপ্ত বৈঠক করেই চুপিসারে কেটে পড়েন বিমানবন্দর থেকে৷ আর তাতে বিশ্বকাপে হারের সাথে আরো খানিকটা কালিমা যুক্ত হলো তরুণ জার্মান ফুটবলারদের গায়ে৷ অন্তত ভক্তদের হতাশা আর বিরক্তির এমনই ছাপ পড়েছে গণমাধ্যমের পাতায়৷

প্রতিবেদন: হোসাইন আব্দুল হাই

সম্পাদনা: অরুণ শঙ্কর চৌধুরী