1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

মাদক পাচারের দায় চার ব্যক্তির শিরশ্ছেদ

মাদাক পাচারের দায়ে চার ব্যক্তির মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করেছে সৌদি আরব৷ সেদেশের নাজার শহরে তলোয়ারের কোপে অভিযুক্তদের শিরশ্ছেদ করা হয়েছে৷ আজকের যুগে এহেন মৃত্যুদণ্ডের তীব্র নিন্দা জানিয়েছে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল৷

Fest Eid al-Fitr zum Ende des Ramadans in Saudi-Arabien

প্রতীকী ছবি

দুই ভাই হাদি এবং আওয়াদ আল-মোতলেকের সঙ্গে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হওয়া মুফাররাজ এবং আলী আল-ইয়ামিও সম্পর্কে দুই ভাই৷ সৌদি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, তাদের বিরুদ্ধে ‘বড় পরিমাণ হাশিশ' মাদক সৌদি আরবে আনার অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে৷

আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠন অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল শিরশ্ছেদের সমালোচনা করে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, সৌদি আরবে শাস্তি হিসেবে মৃত্যুদণ্ড ব্যবহারের প্রবণতা উদ্বেগজনক হারে বেড়ে যাচ্ছে৷

বিবৃতিতে সকল ধরনের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা থেকে বিরত থাকতে সৌদি সরকারের প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে৷ সংগঠনটির দাবি, দুই জোড়া ভাইকে নির্যাতনের মাধ্যমে জোর করে স্বীকারোক্তি দিতে বাধ্য করা হয়েছে বলে জানা গেছে৷

ফরাসি বার্তাসংস্থা এএফপির পরিসংখ্যান বলছে, চলতি বছর এখন অবধি ৩২ ব্যক্তির শিরশ্ছেদ করেছে সৌদি সরকার৷ আর অ্যামনেস্টি জানিয়েছে, শুধুমাত্র গত দু'সপ্তাহে ১৭ ব্যক্তির মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়েছে, অর্থাৎ দিনে গড়ে একজনের বেশি মানুষের শিরশ্ছেদ করছে সৌদি আরব৷

মানবাধিকার সংগঠনটি জানায়, সর্বশেষ মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হওয়ার ব্যক্তিদের পরিবারের সদস্যরা গত বৃহস্পতিবার অ্যামনেস্টির সঙ্গে যোগাযোগ করে৷ খুব শীঘ্রই মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হবে বলে শঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন তারা৷ কিন্তু পরবর্তীতে সৌদি কর্তৃপক্ষ তাদেরকে অ্যামনেস্টির সঙ্গে যোগাযোগ রাখতে নিষেধ করে৷ এরপরই কোনো এক সময় মৃত্যদণ্ডগুলো কার্যকর করা হয়৷

উল্লেখ্য, গত বছর শিরশ্ছেদের মাধ্যমে ৭৮ ব্যক্তির মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করে সৌদি আরব৷ ধর্ষণ, হত্যাকাণ্ড, ধর্মত্যাগ, সশস্ত্র লুটপাট এবং মাদক পাচারের মতো অপরাধের ক্ষেত্রে সেদেশে শাস্তি মৃত্যুদণ্ড৷ বলা বাহুল্য, ইসলামিক শরিয়া আইন অত্যন্ত কঠোরভাবে পালন করে সৌদি আরব৷

এআই/ডিজি (এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়