1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

মাত্র ১৩ বছর বয়সে এভারেস্ট-এর চূড়া স্পর্শ করলো রোমেরো

তৈরি হলো আরো একটা রেকর্ড৷ মাত্র ১৩ বছর বয়সী এক কিশোর মাউন্ট এভারেস্ট-এর চূড়া স্পর্শ করে সৃষ্টি করলো নতুন এক ইতিহাস৷ শনিবার স্যাটালাইট ফোনের মাধ্যমে প্রিয় বন্ধুকে খবর পাঠালো সে - ‘‘আমি পেরেছি’’৷

default

এভার্স্ট জয় করলো জর্ডন রোমেরো

অ্যামেরিকাবাসী এই কিশোরই এভারেস্ট-এর চূড়া স্পর্শ করা বিশ্বের কনিষ্ঠতম মানুষ৷ নাম - জর্ডন রোমেরো৷ বয়স - মাত্র ১৩৷ অথচ সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ৮,৮৫০ মিটার বা ২৯,০৩৫ ফিট উঁচুতে অবস্থিত পৃথিবীর উচ্চতম পর্বতশৃঙ্গ ‘মাউন্ট এভারেস্ট' জয় করলো সে অনায়াসেই৷

কয়েকবছর আগের কথা৷ স্কুলের দেওয়ালে রোমেরো ছবি দেখেছিল যে, সাতটি মহাদেশের মধ্যে এভারেষ্ট সবচেয়ে উঁচু পর্বতশৃঙ্গ৷ তাই একদিন সেখানে পৌঁছোতেই হবে - এমনটাই ছিল তার স্বপ্ন৷

তবে সেই স্বপ্ন পূরণে রোমেরো একা ছিল না৷ এভারেস্ট জয়ের পথে রোমেরোর সঙ্গে ছিলেন তার বাবা, বাবার বান্ধবী ও তিন জন সেরপা৷ চীনে পাহাড়ে ওঠার জন্য বয়সের কোনো প্রতিবন্ধকতা না থাকায়, সেদিক থেকেই এভারেস্টে পৌঁছোয় রোমেরো৷ পূর্ণ হয় তার স্বপ্ন, এভারেস্টে উঠার সাধ৷ তবে লম্বাচুলের অধিকারি এই কিশোর এর অনেক আগেই করেছে অসাধ্য সাধন৷ মাত্র ১০ বছর বয়সে আফ্রিকার কিলিমানজেরো পর্বতে উঠেছিল রোমেরো৷ আর ভবিষ্যতে অ্যান্টারটিকার উচ্চতম শৃঙ্গেও পৌঁছোতে চায় ক্যালিফোর্নিয়ার ‘বিগ বেয়ার'-এর এই বাসিন্দা৷

উল্লেখ্য জর্ডন রোমেরোর আগে, নেপালের সেরপা টেমবা টাসেরি মাত্র ১৬ বছর বয়সে এভারেষ্ট জয় করে৷ এদিকে, স্যাটালাইট ফোনে রোমেরোর এভারেস্ট জয়ের এই খবর পাওয়ার পর, আনন্দে ফেটে পড়েন রোমেরোর মা৷ আর তার বন্ধুরা জানান, ‘‘ওর স্বপ্ন সত্য হলো৷ আমরা প্রত্যেকেই তাই দারুণ খুশি''৷

রোমেরোর এভারেস্ট বেস ক্যাম্পে পৌঁছোতে আরও দু'দিন সময় লাগবে৷

প্রতিবেদন: দেবারতি গুহ

সম্পাদনা: আরাফাতুল ইসলাম

সংশ্লিষ্ট বিষয়