1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

পাঠক ভাবনা

মাতৃভাষা বিকাশের উদ্যোগ নিঃসন্দেহে প্রশংসনীয়

ডুডেন প্রকাশনা সংস্থা ও জার্মান ভাষা ইন্সটিটিউটের উদ্যোগে দেশ বিদেশে আলোচনাচক্রের আয়োজনের মধ্য দিয়ে জার্মান ভাষার ভবিষ্যৎ নিয়ে চিন্তাভাবনা সম্পর্কিত প্রতিবেদনটি বেশ ভালো লাগলো৷

মাতৃভাষার বিকাশে এই ধরনের উদ্যোগ নিঃসন্দেহে প্রশংসনীয়৷ বিজ্ঞানকে আরও সহজবোধ্য করে তুলতে মাতৃভাষায় বিজ্ঞানচর্চা খুবই গুরুত্বপূর্ণ৷ যদিও দেখা যায় যে শিক্ষার একটি স্তরের পর ইংরেজিতেই বিজ্ঞানের পড়াশোনা ও বিজ্ঞান নিয়ে গবেষণা হয়ে থাকে৷ সেই পরিপ্রেক্ষিতে বিজ্ঞানের ভাষা হিসাবে ইংরেজির স্থান জার্মান ভাষা কতটা পূরণ করতে পারবে, সে সম্পর্কে সংশয় হয়তো থেকেই যাবে৷ যাই হউক, বিজ্ঞানের ভাষা হিসাবে জার্মান ভাষাকে জায়গা করে দেবার আয়োজকদের প্রচেষ্টাকে স্বাগত জানাই৷

গত কয়েকদিনের না পড়া বেশ কিছু প্রতিবেদন আজ সময় করে পড়ে নিলাম৷ ‘সেরা শিক্ষার্থীদের রাজ্যসভা ভবনে থাকার সুযোগ', ‘আফগানিস্তানে জীবন ও যুদ্ধ'ও ‘শুশুকের মৃত্যু আমাদের নাড়া দেয় কেন' শীর্ষক ছবিঘরগুলি ভালো লাগলো৷

সোচিতে চলমান শীতকালীন অলিম্পিক নিয়ে প্রতিবেদন থেকে জার্মানির পদক প্রাপ্তির সম্ভাবনা সম্পর্কে আশার বাণী শোনা গেল৷ এখন তো কেবল সময়ের অপেক্ষা. এই আয়োজন ও প্রতিদিনের পদক প্রাপ্তির তালিকা সহ আরও পরিবেশনার অপেক্ষায় রইলাম৷ সুভাষ চক্রবর্তী, নতুন দিল্লী, ভারত থেকে এই অনুরোধ করেছেন৷

আজকে সকালে ঘুম থেকে উঠেই ডয়চে ভেলের বাংলা ওয়েব ভিজিট করলাম৷ শুরুতেই যে একটি গুরুত্বপূর্ণ বাস্তবমুখী প্রতিবেদন আমার দৃঢ় নজর কাড়লো আর তা হলো ‘দেশে সংকটের সময় পুলিশের ঘুষ বাণিজ্য বাড়ে'! সত্যিই এ প্রতিবেদনের বাস্তব প্রমাণ মিলেছিল গত কয়েকমাস আগের দেশের রাজনৈতিক অবস্থার অস্থিরতার কালে৷ বিভিন্ন সময়ের বিভিন্ন জরিপ কালে দেখা যায় ঘুষ বাণিজ্যের শীর্ষে বাংলাদেশের পুলিশ! ধন্যবাদ ডয়চে ভেলেকে একটি বাস্তবমুখী গুরুত্বপূর্ণ প্রতিবেদনের জন্য৷

রাজীব কুমার মণ্ডল, হাসিমপুর, সালামপুর, লালপুর, নাটোর থেকে এভাবেই ডয়চে ভেলের প্রতিবেদন সম্পর্কে তাঁর ভালো লাগার কথা ই-মেলে লিখে জানিয়েছেন৷

পরের ই-মেলে ডা. এস এম এ হান্নান লিখেছেন, অন্তরের অন্তস্থল থেকে জানাই নিবিড় ভালবাসা ও শুভেচ্ছা৷ আশা করি ভাল আছেন৷ ভাল থাকবেন এটাই কামনা করি৷ আমি লক্ষ্য করছি ‘পাঠক ভাবনা' পাতায় পাঠকের অনুভূতিগুলো একেবারেই নিরপেক্ষ ভাবে তুলে ধরা হচ্ছে৷ পাঠকের সমালোচনা অনুযোগ অভিযোগ ব্যক্তিগত অনুভূতি আড়াল না করে যথাযথ ভাবে পাঠক ভাবনা ও ফেসবুকে তুলে ধরার জন্য ডয়চে ভেলেকে আবার সশ্রদ্ধ ধন্যবাদ জানাই৷

তবে বাংলাদেশের রাজনীতির প্রেক্ষপটে জামায়াত শিবির সম্পর্কে ডয়চে ভেলে বিরুদ্ধাচরণ করে ফেসবুকে পোস্ট দেয়৷ জামায়াতকে সতিনের ছেলের ন্যায় মনে করে খবর প্রকাশ করা এমন প্রশংসিত মিডিয়ার পরিপন্থি৷ সত্য তুলে ধরতে হবে দলমত নির্বিশেষে৷ তবে আমি কিন্তু কোন দলের সাথে সম্পৃক্ত না৷ ইটিভিতে অন্বেষণ কিন্তু আমার স্ত্রী ও ছেলে মেয়ের দেখা মিস হয়না ৷ তারা কিন্তু খুবই উৎসাহী দর্শক৷ কারণ আনকমন তথ্যের আলাদা আকর্ষণ ও শিক্ষা রয়েছে এ অন্বেষণে তাই আপনাদের নিরলস প্রচেষ্টাকে সাধুবাদ জানাই৷ ডা. এস এম এ হান্নান, হরিপুর, চাটমোহর, পাবনা৷

সংকলন: নুরুননাহার সাত্তার

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

নির্বাচিত প্রতিবেদন