1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

মাতৃভাষা এক নম্বর ভাষা হওয়া উচিত : ডা. এম এ মান্নান

বাহান্ন’র ভাষা আন্দোলনের প্রাক্কালে ঢাকা মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থী ছিলেন ডা. এম এ মান্নান৷ আন্দোলনের উত্তাল সময়ে আহত অনেক মানুষ ভিড় করত মেডিকেল কলেজে৷ শিক্ষার্থী হিসেবেই এম এ মান্নান আহতদের চিকিৎসা প্রদানের চেষ্টা করতেন৷

default

ডা. এম এ মান্নান

সেই সময়ের অভিজ্ঞতা জানতে চাইলে ডয়চে ভেলেকে ডা. এম এ মান্নান বলেন, বাহান্না সালে আমি ঢাকা মেডিকেল কলেজের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র ছিলাম৷ সেই পরিস্থিতিতে যা করা সম্ভব তাই করেছি৷ সেসময় ছাত্রদের আন্দোলনে একটা জরুরি অবস্থা তৈরি হওয়াতে হাসপাতালে রোগির সংখ্যা বেড়ে গিয়েছিল৷

ঢাকা মেডিকেল

এম এ মান্নান ভাষা আন্দোলনের সঙ্গে সরাসরি সম্পৃক্ত ছিলেন৷ মেডিকেল কলেজে আন্দোলনের নানা আলোচনায় অংশ নিতেন তিনি৷ এছাড়া আন্দোলনের খবর বিভিন্ন হলে ছড়িয়ে দিতেও তৎপর ছিলেন মান্নান৷ তিনি অংশ নেন বিভিন্ন সভা-সমাবেশে৷ এই ভাষা সৈনিক জানান, ঢাকা মেডিকেল কলেজ ছিল তখনকার দিনে আন্দোলনের কেন্দ্রবিন্দু৷ মেডিকেল ব্যারাকের বিভিন্ন ঘরে আন্দোলনের কর্মসূচি, আন্দোলনকে এগিয়ে নেওয়ার বিষয়ে আলাপ-আলোচনা হত৷ এসব আলোচনায় অংশ নিয়ে দিকনির্দেশনা শোনা বা দেওয়া সবই করেছি৷

ভাষা শহীদ

মেডিকেল কলেজে অবস্থানের কারণেই মান্নান বাহান্ন'র ২১শে ফেব্রুয়ারি অগুনতি আহত আন্দোলনকারীকে দেখেছেন৷

Bonn International Mother Language Day Flash-Galerie

এবছর আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষ্যে বিশেষ আলোচনার আয়োজন করে ডয়চে ভেলে

তাদেরকে চিকিৎসা করার চেষ্টা করেছেন৷ তিনি জানান, সেসময় নিরাপত্তা বাহিনী অনেক আন্দোলনকারীর মরদেহ সরিয়ে ফেলেছিল৷ যেকারণে ভাষা আন্দোলনে ঠিক কতজন প্রাণ হারায় তা এখনো পুরোপুরি জানা যায়নি৷ তবে একাধিক ভাষা শহীদকে খুব কাছ থেকে দেখার অভিজ্ঞতা রয়েছে এই চিকিৎসক রাজনীতিবিদের৷

মান্নান জানান, আন্দোলনের সময় পুলিশ এবং নিরাপত্তা বাহিনী সবসময় টহল দিত৷ আহত-নিহতদের সরিয়ে নিত তারা৷ তখনকার সময় সব হতাহতের তথ্য ঠিকমত রাখা হয়েছিল কিনা তা নিয়ে প্রশ্ন এখনো রয়েছে৷

সবার আগে মাতৃভাষা

বর্তমানে বাংলা ভাষার সার্বজনীন ব্যবহারের পক্ষে এই ভাষা সৈনিক৷ বিশেষ করে তিনি মনে করেন, স্বাধীন বাংলাদেশে এক নম্বর ভাষা হওয়া উচিত বাংলা৷ এক্ষেত্রে কোন আপোশ চলতে পারে না৷ তিনি বলেন, এখন বাংলাদেশ হচ্ছে স্বাধীন, সার্বভৌম দেশ৷ এখন তার রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক, সাংবিধানিক সব শক্তিই আছে৷ এমন শক্তিওয়ালা একটি দেশে মাতৃভাষা ছাড়া অন্য কোন ভাষা শিক্ষার মাধ্যম হলে, সেই দেশকে সার্বভৌম দেশ বলবেন কিনা তা চিন্তা করা উচিত৷ মাতৃভাষা এক নম্বর ভাষা হওয়া উচিত৷

বর্ষীয়ান এই ভাষা আন্দোলনকারী মনে করেন, বাংলা ভাষা সবদিক থেকেই সমৃদ্ধ৷ বিজ্ঞান-প্রযুক্তি, চিকিৎসা সব খাতেই বাংলা ভাষা ব্যবহার করা সম্ভব৷ তাই, অন্য ভাষার উপর থেকে নির্ভরতা কমিয়ে বাংলাদেশের ১৬ কোটি মানুষের প্রথমে বাংলা ভাষারই চর্চা করা উচিত, এমনটাই মনে করেন ডা. এম এ মান্নান৷

প্রতিবেদন: আরাফাতুল ইসলাম

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

নির্বাচিত প্রতিবেদন