1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

মাওবাদী হামলা সত্বেও বিহারে চতুর্থ দফা ভোট শান্তিপূর্ণ

চতুর্থ দফায় বিহার বিধানসভার ৪২টি আসনে আজ সকালে ভোটগ্রহণ শুরু হলে, মাওবাদীদের স্থলমাইন বিস্ফোরণ এবং দুষ্কৃতিদের বোমা বিস্ফোরণ সত্বেও তা ব্যাহত হয়নি৷ মাওবাদীদের ভোট বয়কটের ডাক উপেক্ষা করে ভোট পড়ে ৫১ শতাংশ৷

default

ফাইল ছবি

বিহার বিধানসভার ২৪৩টি আসনের মধ্যে আজ চতুর্থ দফায় ভোট হয় ৪২টি আসনে৷ এর মধ্যে ১৪টি কেন্দ্র ছিল মাওবাদী উপদ্রুত এলাকা৷ এরপরও মাওবাদীদের ভোট বয়কটের ডাক উপেক্ষা করে, ভোট পড়ে ৫১ শতাংশ৷ অঞ্চলের প্রধান নির্বাচন কর্মকর্তা সংবাদ মাধ্যমকে বলেন একথা৷

এদিকে কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা সত্বেও, আজ ভোটগ্রহণ শুরু হবার সঙ্গে সঙ্গেই বেতিয়া জঙ্গল এলাকায় চাকাই-জামুই সড়কের কাছে একটি ব্রিজের কাছে স্থলমাইন বিস্ফোরণ ঘটায় মাওবাদীরা৷ বিস্ফোরণে ক্ষতি হয় ব্রিজের৷ লক্ষ্য ছিল তাদের নিরাপত্তা বাহিনীর গাড়ি৷ কিন্তু তা ব্যর্থ হয়৷ আধা সামরিক বাহিনী পাল্টা গুলি চালালে মাওবাদীরা পালিয়ে যায়৷ দানাপুর কেন্দ্রে অজ্ঞাত পরিচয় দুষ্কৃতিরা চারটি বিস্ফোরণ ঘটায়৷ বিভিন্ন কেন্দ্র থেকে গ্রেপ্তার করা হয় ৩৮জনকে৷ আর আটক করা হয় ১১৫টি গাড়ি৷

ওদিকে পাটনা-দীঘা কেন্দ্রে আরজেডি প্রধান লালু প্রসাদ নির্বাচন বিধি ভঙ্গ করে সপরিবারে দেহরক্ষীসহ ভোট কেন্দ্রে প্রবেশ করায়, তাঁর বিরুদ্ধে থানায় ডাইরি করা হয়৷ বিধি অনুসারে পোলিং বুথের ১০০ গজের মধ্যে অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে কেউ ঢুকতে পারেনা৷ প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী লালু প্রসাদকে কটাক্ষ করে মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার সাংবাদিকদের বলেন, ‘‘আইন লঙ্ঘন করা লালু প্রসাদের পুরানো অভ্যাস৷ কোনদিনই উনি তা শোধরাতে পারবেন না৷ না কাজে না কথায়৷''

আজ যে সাতটি জেলার ৪২টি আসনে ভোট হয়, সেগুলির বেশির ভাগ এলাকা চরম অনগ্রসর বলে চিহ্নিত৷ তার ওপর আছে জাতপাতের সমীকরণ৷ তাই এই ভোট হবে মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমারের বিকাশ কর্মসূচির এক ‘অ্যাসিড টেস্ট'৷ আগে ঐসব এলাকায় সিপিএম'এর ছিল ব্যাপক প্রভাব৷ অনগ্রসর মুসলিম ভোট ভাগ হবে তিনভাগে৷ ক্ষমতাসীন জেডি-ইউ, কংগ্রেস ও লালু-পাশোয়ান জোট৷ কংগ্রেস যুবনেতা রাহুল গান্ধী নির্বাচনি সভায় বলেছিলেন, ‘‘বিহারিদের উন্নতি হলেও, বিহারের উন্নতি হয়নি৷'' অবশ্য এর পাল্টা জবাব দেন মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার৷ তাঁর কথায়, ‘‘রাহুল গান্ধীর উচিত, প্রধানমন্ত্রী হবার আগে কোন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী হয়ে প্রশাসন কী - তা শেখা৷''

আজকের ভোটে ৫৬৮জন প্রার্থীর রাজনৈতিক ভাগ্য নির্ধারিত করে ১ কোটি ৪৭ হাজার ভোটার৷ আজকের ৪২টি আসনের মধ্যে ক্ষমতাসীন জেডি-ইউ-বিজেপি জোট, কংগ্রেস এবং আরজেডি-এলজেপি জোট প্রাথী দেয় সবকটি আসনে৷ বিএসপি ৪০টি আসনে৷ পঞ্চম দফার ভোট ৯ই নভেম্বর৷ ভোট গণনা ২৪শে নভেম্বর৷

প্রতিবেদন: অনিল চট্টোপাধ্যায়, নতুনদিল্লি

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ