1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

মাওবাদীদের মুঠো কি আলগা হচ্ছে?

ভারতে মাওবাদীদের সহিংসতার পথ থেকে ফিরিয়ে আনতে গত মাস থেকে প্রশাসন ও পুলিশ যে উদ্যোগ নিয়েছে, তাতে ইতিবাচক সাড়া পাওয়া যাচ্ছে বলে পশ্চিমবঙ্গ ও ঝাড়খন্ড পুলিশ কর্তারা মনে করছেন৷

default

‘অনেক মাওবাদী আত্মসমর্পণ করতে ইচ্ছুক বলে পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে’ (ফাইল ফটো)

এ পর্যন্ত আত্মসমর্পণ করেছে ঝাড়খন্ডে ১০জন এবং পশ্চিমবঙ্গে ২জন মাওবাদী৷

‘অপারেশন নয়া দিশা' নামে পুলিশ প্রশাসন জুলাই মাস থেকে যে অভিযান শুরু করেছে, তাতে ইতিবাচক সাড়া পাওয়া যাচ্ছে৷ ইতিমধ্যে ঝাড়খন্ডে ১০ জন ও পশ্চিমবঙ্গে ২জন প্রথম সারির মায়াবাদী পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করেছে৷ কিছুদিনের মধ্যে আরো মাওবাদী ক্রমশঃ এই পথে হাঁটবে বলে পুলিশ প্রশাসনের আশা৷ ‘অপারেশন নয়া দিশা' পুনর্বাসন প্যাকেজে আছে – যাঁরা আত্মসমর্পণ করবে, তাঁদের এককালীন দেয়া হবে ৫০ হাজার টাকা৷ অস্ত্রশস্ত্র জমা দিলে তার বদলে দেয়া হবে বাড়তি টাকা৷ পশ্চিমবঙ্গ পুলিশের ডিজিপি ভূপিন্দর সিং-এর মতে, মাওবাদী সহিংসতা থেকে মুখ ফিরিয়ে নিতে শুরু করেছে মাওবাদী অধ্যুষিত এলাকার স্থানীয় অধিবাসীরা৷ পশ্চিম মেদিনীপুরের পুলিশ সুপার মনোজ ভার্মা বলেন, আত্মসমর্পণে বাধা দিতে তাদের মেরে ফেলার হুমকি দিচ্ছে মাওবাদীরা৷ তাই পুলিশ আত্মসমর্পণকারীদের তিন বছর রাখবে ট্রানজিট শিবিরে উপযুক্ত নিরাপত্তা দিয়ে৷ পাশাপাশি পুলিশী অত্যাচারের বিরুদ্ধে জনগণের কমিটির মুখপাত্র মনোজ মাইতির অভিযোগ, পুলিশ সাধারণ মানুষকে ধরে নিয়ে গিয়ে তাঁদের নির্যাতন করে স্বীকারোক্তি আদায় করছে যে, তাঁরা মাওবাদী৷

অন্যদিকে ঝাড়খন্ড পুলিশ কর্তারা বলছেন, অনেক মাওবাদী আত্মসমর্পণ করতে ইচ্ছুক বলে পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে৷ এদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য দুর্দান্ত কুন্দন পাহান, যে পুলিশের গোয়েন্দা অফিসার ফ্রান্সিস ইন্দওয়ার মুণ্ডু কেটে নিয়ে যায়৷ মাওবাদীদের বিরুদ্ধে সচেতনতা বাড়াতে মাওবাদী অধ্যুষিত গ্রামগুলিতে হ্যান্ডবিল ছড়িয়ে লাভজনক পুনর্বাসন প্যাকেজের কথা ঘোষণা করা হচ্ছে৷

ঝাড়গ্রাম মহকুমার গোয়েন্দা অফিসার প্রদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় মাওবাদীদের বোধোদয়ের কারণ ব্যাখ্যা করে ডয়চে ভেলেকে বলেন, শুরুতে এদের মনে যে আশা বা স্বপ্ন ছিল, বাস্তবে তাঁরা ধীরে ধীরে বুঝতে পারছে, তা সার্থক হবার নয়৷ দারিদ্র্য আরো বেশি করে গ্রাস করছে৷ প্রাণ যাচ্ছে হয় পুলিশের হাতে নাহয় পুলিশের চর সন্দেহে মাওবাদীদের হাতে৷ এ থেকে ভাল পুলিশের কাছে ধরা দেয়া৷ বিহারের লখিসরাই এলাকায় গতকাল মাওবাদীদের সঙ্গে গুলির লড়াইয়ে নিহত হন ৫জন পুলিশ, নিখোঁজ ১০ জন৷ ৩০টি রাইফেল লুঠ করে মাওবাদীরা৷

প্রতিবেদন: অনিল চট্টোপাধ্যায়, নতুনদিল্লি

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

সংশ্লিষ্ট বিষয়