1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

মহিলার ছুরিকাঘাতে বিহার বিধায়কের মৃত্যু

কথিত যৌন হয়রানির প্রতিশোধ নিতে মহিলার ছুরিকাঘাতে বিজেপি বিধায়কের মৃত্যুর বিচারবিভাগীয় তদন্তের দাবি জানিয়েছে কংগ্রেস৷ বিধায়কের বাসভবনে সাক্ষাৎপ্রার্থী হিসেবে গিয়েছিলেন স্কুল শিক্ষিকা ঐ মহিলা৷

মহিলা, ছুরিকাঘাত, বিহার, বিধায়ক, মৃত্যু, India, Parliament, MP, Killed, Woman, Rape, Police, ধর্ষণ, পুলিশ, ভারত, সাংসদ, কংগ্রেস

বিহারে শাসক দলের জোটসঙ্গী বিজেপির পূর্ণিয়া থেকে নির্বাচিত বিধায়ক রাজ কিশোর কেশরি আজ সকালে নিজের বাড়িতেই এক মহিলার ছুরিকাঘাতে প্রাণ হারান৷ চারবারের বিধায়ক ৫১ বছর বয়সী রাজ কিশোর সকালে যখন তাঁর সিপাহিতলার বাসভবনে সাক্ষাৎপ্রার্থীদের সঙ্গে মিলিত হচ্ছিলেন, তখন রুপম পাঠক নামে ৪০ বছর বয়সি এক স্কুল শিক্ষিকাও ছিলেন সাক্ষাৎপ্রার্থীদের একজন৷ বিধায়কের মুখোমুখি হওয়ামাত্র স্কুল শিক্ষিকা গায়ের চাদরের তলা থেকে ছুরি বের করে বিধায়ককে বুকে পেটে বারংবার আঘাত করেন৷ মারাত্মকভাবে জখম অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা, প্রচারমাধ্যমকে একথা জানান রাজ্য পুলিশের শীর্ষ কর্মকর্তা নীলমনি৷

মহিলার অভিযোগ, তিনি বিধায়ক রাজ কিশোর কেশরির যৌন হয়রানির শিকার হয়ে স্থানীয় পুলিশ থানায় অভিযোগ দায়ের করেছিলেন মাস ছয়েক আগে৷ কিন্তু পুলিশ কোন ব্যবস্থা নেয়নি৷ মনে করা হচ্ছে, সম্ভবত এটাই মহিলার প্রতিহিংসার অন্যতম কারণ৷ ছুরিকাঘাতের ঘটনার পর বিধায়কের দেহরক্ষী ও বাসভবনে উপস্থিত অন্যান্য সাক্ষাৎপ্রার্থীরা মহিলাকে প্রচণ্ড মারধর করে৷গুরুতর আহত অবস্থায় তাঁকে ভর্তি করা হয় সরকারি হাসপাতালে পুলিশি নিরাপত্তায়৷

ঐ দু:খজনক ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্তের দাবি জানিয়ে প্রদেশ কংগ্রেস বলেছে, মহিলার অভিযোগ সম্পর্কে পুলিশ যদি উপযুক্ত ব্যবস্থা নিত, তাহলে হয়তো এই ঘটনা ঘটতো না৷ এটা আইন শৃঙ্খলার বা বিধায়কের নিরাপত্তার বিষয় নয়, এটা ন্যায়বিচারের প্রশ্ন৷ তদন্তে জানা যাবে, অভিযোগ দায়ের করা সত্ত্বেও মহিলাকে কেন দেখা করার অনুমতি দিয়েছিলেন ঐ বিধায়ক৷

সরকারের শরিক দল বিজেপির উপ-মুখ্যমন্ত্রী সুশীল কুমার যৌন নিগ্রহের অভিযোগকে আমল না দিয়ে সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, সাংসারিক অশান্তির কারণে ঐ মহিলা নাকি বিধায়ককে ব্ল্যাকমেল করতে চেয়েছিলেন৷ মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার ঐ ঘটনায় দু:খ প্রকাশ করে বিধায়কদের নিরাপত্তা ব্যবস্থা পর্যালোচনার আদেশ দেন৷

প্রতিবেদন: অনিল চট্টোপাধ্যায়, নতুনদিল্লি

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক