1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

ক্যানাডা

মসজিদে গুলিচালনার ঘটনা ‘‘সন্ত্রাসী আক্রমণ'': ট্রুডো

রবিবার সন্ধ্যায় পূর্ব ক্যানাডার কুইবেক শহরের ইসলামিক কালচারাল সেন্টারে নামাজ চলাকালীন একাধিক বন্দুকধারী ছ'জন মানুষকে হত্যা ও আরো আটজনকে আহত করে৷ কুইবেক পুলিশ দু'জনকে গ্রেপ্তার করেছে৷

আক্রমণ ঘটে স্থানীয় সময় সন্ধ্যা আটটা নাগাদ৷ ইসলামি সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের মসজিদটিতে তখন প্রায় ৫০ জন মানুষ ছিলেন৷ ক্যানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো এই ঘটনাকে একটি সন্ত্রাসবাদী আক্রমণ বলে অভিহিত করেছেন৷

‘‘আমরা প্রার্থনা ও আশ্রয়ের স্থানে মুসলিমদের উপর এই সন্ত্রাসী আক্রমণের নিন্দা করি'', তাঁর বিবৃতিতে বলেন ট্রুডো৷ ‘‘মুসলিম-ক্যানাডীয়রা আমাদের জাতীয় কাঠামোর একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ, এবং আমাদের সমাজ, শহর বা দেশে এ ধরনের অর্থহীন কার্যকলাপের কোনো স্থান নেই৷''

কুইবেক পুলিশের মুখপাত্র ক্রিস্টিন কুলম্ব বলেছেন যে, নগর কর্তৃপক্ষ এই গুলিচালনার ঘটনাকে ‘‘সন্ত্রাসী আক্রমণ'' হিসেবে গণ্য করছেন৷ নিহত ছ'জনের বয়স ৩৫ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে, বলে তিনি জানান৷ কর্তৃপক্ষ দু'জন সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছেন কিন্তু আপাতত আর কোনো খুঁটিনাটি জানাচ্ছেন না৷ আক্রমণের উদ্দেশ্যও এ-যাবৎ স্পষ্ট নয়৷

মসজিদের সভাপতি মোহামেদ ইয়াঙ্গি আক্রমণের সময় মসজিদে ছিলেন না৷ তিনি পরে জানান যে, মসজিদের পুরুষদের জন্য রক্ষিত অংশে আক্রমণ ঘটে এবং হতাহতদের মধ্যে শিশুরাও থাকতে পারে৷

কুইবেক সিটির মেয়র রেজি রাবোম সোমবার সকালে একটি সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘‘জাতি, বর্ণ, যৌন প্রবণতা বা ধর্মমতের কারণে কোনো মানুষের প্রাণ যাওয়া উচিত নয়৷'' কুইবেকের প্রধানমন্ত্রী ফিলিপ কুইলার সংহতির ডাক দিয়েছেন, ‘‘চলুন আমরা সহিংসতার বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হই,'' টুইট করেছেন তিনি: ‘‘কুইবেকের মুসলিমদের সঙ্গে সংহতি''৷

ক্যানাডায় মসজিদের উপর আক্রমণের ঘটনা এর আগেও ঘটেছে৷ ২০১৩ সালে ঐ কুইবেক অঞ্চলেরই একটি মসজিদে শূকরের রক্ত ছিটিয়ে দেওয়া হয়৷ ২০১৫ সালে পাশের অন্টারিও প্রদেশের একটি মসজিদে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়৷ এবার কুইবেকের যে মসজিদের উপর আক্রমণ চালানো হয়েছে, গতবছর ঠিক সেই মসজিদের সামনেই একটি শূকরের মাথা রেখে দেওয়া হয়েছিল৷

নিউ ইয়র্কের মেয়র বিল ডে ব্লাসিও যারা কুইবেক আক্রমণের শিকার হয়েছেন, তাদের জন্য শোকপ্রকাশ করেছেন৷ এছাড়া তিনি নিউ ইয়র্ক বাসীদের প্রতি সজাগ ও ঐক্যবদ্ধ থাকার ডাক দিয়েছেন ও ঘোষণা করেছেন যে, নিউ ইয়র্ক পুলিশ ডিপার্টমেন্ট শহরের যাবতীয় মসজিদে অতিরিক্ত সুরক্ষার ব্যবস্থা করবে৷

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সাতটি মুসলিম অধ্যুষিত দেশের নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ বন্ধ করার পর ক্যানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো ঘোষণা করেছিলেন যে, ক্যানাডা আগের মতোই উদ্বাস্তুদের স্বাগত জানাবে৷

এসি/ডিজি (রয়টার্স, এপি, এএফপি)

ভিডিও দেখুন 00:29

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়