1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

মরক্কো

মরক্কোতে বোরকা বিক্রি নিষিদ্ধ

মরক্কোর সংবাদ বিষয়ক এক সাইটে প্রকাশিত খবর বলছে, সে দেশের সব শহরে পুরো মুখ ঢাকা বোরকা তৈরি ও বিক্রির উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে৷ তবে সরকারের পক্ষ থেকে এখনো আনুষ্ঠানিক ঘোষণা আসেনি৷

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এলই৩৬০ নিউজ সাইটকে বলেছেন, ‘‘আমরা মরক্কোর সব শহরে এই পোশাকের (বোরকা) আমদানি, উৎপাদন ও বিক্রি পুরোপুরি বন্ধের পদক্ষেপ নিয়েছি৷''

নিরাপত্তাজনিত কারণে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে প্রতিবেদনে জানানো হয়৷ ‘‘দুষ্কৃতিকারীরা নিয়মিতভাবে অপরাধের সময় এই পোশাক ব্যবহার করে’’, বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়৷

উত্তর আফ্রিকার এই দেশের সরকারের পক্ষ থেকে এখনো এ বিষয়ে কিছু বলা না হলেও এলই৩৬০-এর প্রতিবেদন বলছে, এ সপ্তাহেই সিদ্ধান্ত কার্যকর করা শুরু হবে৷

এদিকে, বার্তা সংস্থা এএফপি বলছে, কাসাব্লাঙ্কা শহরের ব্যবসায়ীদের সরকারের এই সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়েছে৷ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা দেশটির আরও কয়েকটি শহরের ব্যবসায়ীদেরও বোরকা তৈরি ও বিক্রির উপর নিষেধাজ্ঞা জারির সরকারি সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন৷

উল্লেখ্য, মরক্কোর বেশিরভাগ নারী হিজাব (এতে মুখ ঢাকা থাকে না) পরে থাকেন৷ তবে দেশটির উত্তরাঞ্চলের নারীদের অনেকেই নিকাব (এতে শুধু চোখ দেখা যায়) পরেন৷ এই এলাকাটি মরক্কোর অন্যান্য অঞ্চলের তুলনায় একটু রক্ষণশীল এবং এই এলাকা থেকে অনেক মানুষ জিহাদে অংশ নিতে সিরিয়া ও ইরাকে গেছে৷

মরক্কোর রাজা চতুর্থ মোহাম্মদ ইসলামের ‘মডারেট সংস্করণ' পছন্দ করেন৷ তাই হিজাব পরা তিনি সমর্থন করেন৷

ফ্রান্স, বেলজিয়ামের মতো মরক্কোও জনসম্মুখে পুরো মুখ ঢাকা বোরকা পরা নিষিদ্ধের পরিকল্পনা করছে কিনা সেটি পরিষ্কার নয়৷

প্রতিক্রিয়া

মরক্কোর সাবেক পরিবার ও সামাজিক উন্নয়নমন্ত্রী নুঝা স্কালি বোরকা বিক্রির উপর নিষেধাজ্ঞা জারির সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন৷ ধর্মীয় সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ ধাপ বলে মনে করেন তিনি৷

তবে ‘ইসলামিস্ট' কারাবন্দিদের অধিকার রক্ষায় কাজ করা ওসামা বুতাহের মনে করেন, এই সিদ্ধান্ত ‘বৈষম্যমূলক'৷ ‘‘এই সিদ্ধান্তের মানে হচ্ছে আমরা দ্বিতীয় শ্রেণির নাগরিক৷ এটি সবার ব্যক্তিগত স্বাধীনতার উপর হস্তক্ষেপ, যদিও মরক্কো মানবাধিকার রক্ষা বিষয়ক কয়েকটি চুক্তিতে সই করেছে,'' এএফপিকে বলেন তিনি৷ বোরকা বিক্রি বন্ধের মাধ্যমে নিরাপত্তা পরিস্থিতি উন্নয়নের যুক্তিটি হাস্যকর বলেও মন্তব্য করেন বুতাহের৷

জেডএইচ/এসিবি (এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন