1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

‘মনের জোরেই ফিরে আসবে শুমাখার’

মিশায়েল শুমাখার এখনো জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে৷ তবে তাঁর ভক্তদের কিছুটা হলেও আশ্বস্ত করবে এফআইএ-র প্রধান জঁ টট-এর কথা৷ তিনি মনে করেন, মনের জোরেই ফিরে আসবেন শুমাখার৷

কয়েকদিন আগে ফ্রেঞ্চ আল্পসে স্কি করতে গিয়ে পা হড়কে পড়ে যাওয়ায় মাথায় ভয়ংকর চোট পান ‘শুমি'৷ সেই থেকে তাঁর চিকিৎসা চলছে গ্রেনবেল হাসপাতালে৷ হাসপাতালে নেয়ার পর অবস্থার দ্রুত অবনতি হয় তাঁর৷ শারীরিক অবস্থা পরীক্ষা করে দেখার জন্য সুবিখ্যাত নিউরোসার্জন জেরাঁ সাইয়োঁ প্যারিস থেকে আসার পরপরই অচেতন হয়ে যান শুমাখার৷ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, সে অবস্থাতেই শুমাখারের মস্তিষ্কে অস্ত্রোপচার করা হয়৷ এরপর তাঁর ব্রেনের ‘প্রেসার' কমানোর জন্য শুমাখারকে ওষুধ দিয়ে কোমায় রাখা হয়৷ ডাক্তাররা বলছেন, তাঁর অবস্থা এখনো আশঙ্কাজনক, তবে স্থিতিশীল৷

এই স্থিতিশীলতার মানে হলো, শুমাখারের অবস্থার আর অবনতি হচ্ছে না৷ কিন্তু উন্নতির খবরও তো পাওয়া যাচ্ছে না৷ তাই বিশ্বজুড়ে অসংখ্য ভক্ত এখনো মহাদুশ্চিন্তায়৷ তবে ফর্মুলা ওয়ানের সর্বোচ্চ সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন অফ অটোমোবাইল (এফআইএ)-এর প্রধান জঁ টট মনে করেন, ‘শুমি' ফিরে আসবেন৷ শুমাখার যখন ফেরারির ড্রাইভার ছিলেন তখন লম্বা একটা সময় তাঁকে খুব কাছ থেকে দেখেছেন টট৷ সেই অভিজ্ঞতা থেমে শুক্রবার তিনি বলেছেন, ‘‘মিশায়েল ফিরে আসবে, কারণ ও একজন জাত যোদ্ধা৷ ওর মানসিক শক্তি, সাহস আর লেগে থাকার ক্ষমতা সম্পর্কে ভালো ধারণা আছে আমার৷''

অনেকের মতে ফর্মুলা ওয়ান ইতিহাসের সেরা তারকা মিশায়েল শুমাখার সাতটি ড্রাইভার শিরোপার পাশাপাশি জিতেছেন ৯১টি গ্রঁ প্রিঁ শিরোপা৷ সাতটি ড্রাইভার শিরোপার পাঁচটি জেতার সময় শুমাখারের সঙ্গে কাজ করেছেন জঁ টট৷ ২০০০ থেকে ২০০৪ – ওই সময়টায় ফর্মুলা ওয়ানের জার্মান তারকা ‘শুমি' ছিলেন ফেরারির ড্রাইভার আর টট ছিলেন ফেরারি দলের কর্মকর্তা৷ ২০০৯ সাল থেকে ফ্রান্সের নাগরিক টট এফআইএ-র প্রধান৷

এসিবি/ডিজি (ডিপিএ, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন