1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

মধ্যপ্রাচ্য শান্তি আলোচনা আবার শুরু হচ্ছে ?

ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ ও ইসরায়েলের মধ্যে শান্তি আলোচনা আবার গতি পেতে যাচ্ছে৷ আগামী কয়েকদিনের মধ্যে এই দুই সরকারের শীর্ষনেতাদের সঙ্গে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার আলোচনা হবার কথা রয়েছে৷

default

নেতানিয়াহু ও আব্বাসের সঙ্গে ওবামা বৈঠক করবেন (ফাইল ছবি)

‘‘মধ্যপ্রাচ্য শান্তি আলোচনা আরও জোরদার করাই হবে এই আলোচনার মূল লক্ষ্য'' – বলেছেন ওবামার প্রেস সচিব রবার্ট গেটস৷ আগামী মঙ্গলবার ওবামার সঙ্গে প্রথম দেখা করার কথা ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর৷ এর প্রায় এক সপ্তাহ পর তাঁর আলোচনা হবে ফিলিস্তিনি প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসের সঙ্গে৷

গত প্রায় দেড় বছর ধরে ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ ও ইসরায়েলের মধ্যে সরাসরি আলোচনা বন্ধ রয়েছে৷ কীভাবে তা পুনরায় শুরু করা যায়, তা নিয়েই ওবামা কথা বলবেন দুই নেতার সঙ্গে৷ উল্লেখ্য, বর্তমানে তৃতীয় পক্ষের মাধ্যমে ইসরায়েলি-ফিলিস্তিনি আলোচনা চলছে৷ এতে মধ্যস্থতা করছেন মধ্যপ্রাচ্যে যুক্তরাষ্ট্রের বিশেষ দূত জর্জ মিচেল৷ গত সপ্তাহেই তাঁর সঙ্গে নেতানিয়াহু ও আব্বাসের আলাদা আলাদা বৈঠক হয়েছে৷ তবে এবার যুক্তরাষ্ট্র চায়, দুই পক্ষই সরাসরি আলোচনা শুরু করুক৷ আর তাই ওয়াশিংটনে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে মধ্যপ্রাচ্যের এই দুই নেতাকে৷

ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ ও ইসরায়েলের মধ্যে শেষ সরাসরি আলোচনা হয়েছিল ২০০৮ সালের ডিসেম্বরে৷ কিন্তু সেসময় গাজা উপত্যকায় ইসরায়েল যুদ্ধ শুরু করলে আলোচনা ভেস্তে যায়৷ ইসরায়েলের শহরগুলোতে ফিলিস্তিনি রকেট হামলা বন্ধ করতে ইসরায়েল এই ব্যবস্থা নিয়েছিল বলে সেসময় জানানো হয়েছিল৷

এরপর যুক্তরাষ্ট্র দু'পক্ষের মধ্যে পরোক্ষ আলোচনার উদ্যোগ নেয়৷ অবশেষে গত মার্চে দু'পক্ষ আলোচনায় বসতে রাজি হয়৷ কিন্তু এর পরপরই ইসরায়েল পূর্ব জেরুসালেমে নতুন বসতি স্থাপনের ঘোষণা দিলে সেসময় আর আলোচনা শুরু করা যায়নি৷ ইসরায়েলের ঐ ঘোষণায় কঠোর প্রতিক্রিয়া জানায় ওয়াশিংটন৷ এর পরিণতিতে দুদেশের সম্পর্কের অবনতি ঘটে৷ এমনকি ওয়াশিংটন সফরকালে প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহুকে বিশ্বের অন্যান্য শীর্ষনেতার মতো যথাযথ সম্মানও জানানো হয়নি৷ এই মঙ্গলবার ওবামা ও নেতানিয়াহুর মধ্যে যে আলোচনা হতে যাচ্ছে, এর ফলে দুদেশের সম্পর্কের আবার উন্নতি হবে বলে আশা করছেন বিশেষজ্ঞরা৷

এদিকে ইসরায়েলের নতুন বসতি স্থাপনের ঘোষণার প্রতিবাদে পরোক্ষ আলোচনা ভেঙে দিয়েছিল ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ৷ কিন্তু পরে যুক্তরাষ্ট্র বসতি স্থাপন বন্ধের আশ্বাস দিলে তাঁরা আবার আলোচনা শুরু করতে রাজি হয়৷

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ওবামা ও ফিলিস্তিনি প্রেসিডেন্ট আব্বাস নিজেদের মধ্যে বৈঠকের সময় একটি স্বাধীন ফিলিস্তিনি রাষ্ট্রের সমর্থনের বিষয়টিও আলোচনা করবেন, বলে জানিয়েছেন ওবামার প্রেস সচিব রবার্ট গেটস৷

প্রতিবেদন: জাহিদুল হক

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

সংশ্লিষ্ট বিষয়