মদ্যপান নিয়ে নতুন আশঙ্কা | বিজ্ঞান পরিবেশ | DW | 12.07.2014
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

মদ্যপান নিয়ে নতুন আশঙ্কা

দীর্ঘদিন ধরে চিকিৎসা বিজ্ঞানে বলা হয়ে আসছে, পরিমিত পরিমাণে মদ্যপান করলে হৃৎপিণ্ডের ক্ষতি হয় না৷ বরং কিছু ক্ষেত্রে তা স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী৷ কিন্তু সম্প্রতি এক গবেষণা এ তথ্যকে ভুল প্রমাণিত করেছে৷

গবেষকরা আগে বলতেন এক বা দুই পেগ মদ খেলে রক্তচাপ বাড়ে না, ক্ষতিগ্রস্ত হয় না হৃৎপিণ্ড৷ কিন্তু শুক্রবার প্রকাশিত এক গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পরিমিত পরিমাণে মদ্যপান করলেও এ সমস্যা দেখা দিতে পারে৷ যারা স্বল্প পরিমাণে মদ্যপান করেন, তাদের তুলনায় যারা একেবারেই মদ খান না, তাদের হৃদরোগ হওয়ার সম্ভাবনা একেবারেই কমে যায় এবং উচ্চ রক্তচাপের ঝুঁকিও কম থাকে তাঁদের৷

ব্রিটিশ মেডিকেল জার্নালের ঐ প্রতিবেদনে গবেষকরা ইউরোপের বিভিন্ন দেশের ২ লাখ ৬০ হাজার মানুষের উপর গবেষণা করেছেন৷ মদ্যপানের মাত্রা এবং মানবদেহের উপর প্রভাব দেখা হয়েছে গবেষণায়৷ বিশেষ করে এডিএইচওয়ানবি জীনের উপর মদের প্রভাব দেখার চেষ্টা করেছেন৷ গবেষণায় দেখা গেছে যারা অল্প মদ্যপান করেন তাদের চেয়ে যারা মদ্যপান করেন না তাদের হৃদরোগের সম্ভাবনা ১০ ভাগ কমে যায়৷

মদপানে হৃৎপিণ্ডের সংকোচন-প্রসারণের প্রক্রিয়া অনিয়মিত হয়ে পরে বলে এর আগেও জানিয়েছিলেন চিকিৎসকরা৷ নিয়মিত পান করলে এ অবস্থার আরো অবনতি হতে পারে৷ এর আগে গবেষকরা বলেছিলেন, হৃৎপিণ্ডে কোলেস্টোরল জমে যাওয়া থেকে মুক্ত থাকতে হলে সপ্তাহে এক বা দু'বার মদপান করে যেতে পারে৷ বয়স, শরীরের ওজন ও ধূমপানের অভ্যাসের ভিন্নতা থাকার পরেও মদ্যপানের ফলে অনিয়মিত হৃৎস্পন্দনের সমস্যা বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে প্রায় ১৪ শতাংশ৷

এপিবি/এসবি (এপি, এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন