1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

মতিউরের বিরুদ্ধে পরোয়ানা, চলছে অবরোধ

বাংলাদেশে টানা অবরোধের মধ্যেই আরেক খবর চমক সৃষ্টি করেছে৷ প্রথম আলো সম্পাদক মতিউর রহমানের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশের একটি আদালত৷

‘ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেয়ার' অভিযোগের একটি মামলায় প্রথম আলোর সম্পাদক মতিউর রহমান ও এক আলোকচিত্রীর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির নির্দেশ দিয়েছে ঝালকাঠির একটি আদালত৷ তিন দফা তলবের পরও আদালতে হাজির না হওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে মঙ্গলবার এই পরোয়ানা জারির নির্দেশ দেয়া হয়৷

এই সংবাদের প্রতিক্রিয়ায় ডয়চে ভেলের পাঠক আব্দুল্লাহ আল বারি ফেসবুকে লিখেছেন, ‘‘প্রথম আলো যেন সরকারের বিরুদ্ধে যেতে না পারে সেটার জন্যই এটা ঝুলিয়ে রাখা৷ যদি সত্যি কেসটাকে সিরিয়াসলি দেখা হতো তাহলে এতদিনে এটার বিরুদ্ধে কিছু হতো৷ এই সময়ে এটা করা শুধু সরকারের আদালতের উপর হস্তক্ষেপ এর একটা উদাহরণ মাত্র৷

আমাদের আরেক পাঠক আশিকুর রহমান এই সংবাদকে দেখছেন ‘মিডিয়ার উপর হস্তক্ষপ' হিসেবে৷ তবে মতিউর রহমান আসলেই ‘ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত' দিয়ে থাকলে তাঁর শাস্তি হওয়া উচিত বলেও মন্তব্য করেছেন কয়েকজন৷ মাহফুজ আদনান লিখেছেন, ‘‘উপযুক্ত শাস্তি দেওয়া হোক৷''

টুইটারেও এই বিষয়ে মন্তব্য করেছেন কয়েকজন৷ দক্ষিণ এশিয়ার সকল সাংবাদিক এবং সম্পাদককে মতিউর রহমানের পাশে দাঁড়াতে আহ্বান জানিয়েছেন নতুন দিল্লির সাংবাদিক সিদ্ধার্থ৷

এদিকে টানা অবরোধ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আলোচনা অব্যাহত রয়েছে৷ বাংলাদেশের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে সাংবাদিক গোলাম মোর্তোজা ফেসবুকে লিখেছেন, ‘‘পেট্রোল বোমার আগুনে পুড়ে মারা যাচ্ছে সাধারণ মানুষ৷ যৌথ বাহিনীর অভিযানের নামে তাণ্ডব চলছে চাপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ এলাকায়৷ ঘর-বাড়ি, টিভি, ফ্রিজ ভাঙচুর করা হচ্ছে নির্বিচারে৷ মানুষ এলাকাছাড়া৷ এমন অভিযান দেশজুড়ে শুরু হতে যাচ্ছে৷ ছাত্রদল নেতা হত্যার মধ্য দিয়ে রাজনৈতিক ক্রসফায়ার আবার নতুন মাত্রায় সূচনা হলো৷''

গোলাম মোর্তোজা মনে করেন, পরিস্থিতি আরো খারাপের দিকে যাবে৷ সরকার কিংবা বিরোধী পক্ষ উভয়েই উভয়ের অবস্থানে অনড় থাকবে৷ ফলে ভোগান্তি বাড়বে জনগণের৷ তিনি লিখেছেন, ‘‘বিএনপি মনে করবে হত্যা-নৈরাজ্য বাড়লে মানুষ সরকারের ওপর বিরক্ত হবে৷ সরকার এসব নৈরাজ্য-হত্যাকে পুঁজি করে, বিএনপিকে সন্ত্রাসী হিসেবে পরিচিত করে সুবিধা নিতে চাইবে৷ গ্রেপ্তার-পুলিশি বাণিজ্য মাত্রা ছাড়াবে৷ ক্রসফায়ার বাড়বে৷''

সংকলন: আরাফাতুল ইসলাম

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়