1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

ভূটানরাজ ওয়াংচুক বিয়ে করবেন ছাত্রী পেমাকে

রাজার বয়স একত্রিশ৷ আর ভাবী রাণীর বয়স বিশ৷ কথা হচ্ছে ভূটানের রাজার৷ ব্রিটিশ রাজকুমারের পর এবার ভূটানরাজের বিয়ে নিয়ে খবর৷ শুক্রবার হয়ে গেল সে বিয়ের পাকা ব্যাপার৷ রাজসভাতেই রাজার ঘোষণা৷

default

ভূটানরাজ ওয়াংচুক আর ভাবী রাণী পেমা

রাজার নাম জিগমে কেসার নামগিয়েল ওয়াংচুক৷ ভূটানের এই রাজ পরিবারের উত্তরসূরি সেদেশে গণতন্ত্রের পথ প্রশস্ত করেছেন৷ নিজে তিনি অক্সফোর্ড থেকে পড়াশোনা করেছেন এবং তাঁর দৃষ্টিভঙ্গী যথেষ্ট আধুনিক বলেই সকলে জানে৷

তো, এই রাজা শুক্রবার তাঁর বিয়ের পাকা খবরটি নিজেই ঘোষণা করলেন রাজসভায়৷ সভাসদদের উপস্থিতিতে এক ভাষণে বলে দিলেন, একত্রিশ বছর বয়স হয়েছে তাঁর৷ তাঁর ধারণা, বিয়ের জন্য এটাই সঠিক সময়৷ তাঁর নির্বাচিত পাত্রীও একজন ভূটানি তরুণী৷ বয়স তাঁর বিশ বছর৷ পেশায় ছাত্রী এবং নাম হল জেস্টুন পেমা৷

পেমার সঙ্গে রাজা ওয়াংচুকের হাসিমুখের যুগল ছবিও সংবাদমাধ্যমের কাছে পাঠিয়ে দিয়েছে রাজ প্রশাসন৷ ছবিতে রাজা এবং ভাবী রাণী দুজনকেই ভূটানের জাতীয় পোষাকে দেখা যাচ্ছে৷ আর রাজা একথাও জানিয়েছেন, যে ভাবী রাণী বয়সে খুব তরুণী হলেও তিনি চরিত্রে এবং ব্যবহারে অত্যন্ত নরম আর উষ্ণ প্রকৃতির৷

জানা গেছে, আগামী অক্টোবরেই বিয়ে হবে রাজার৷ সেই অনুষ্ঠানে তিনি মোটেও বেশি জাঁকজমক চাইছেন না৷ কারণ, দেশের ভান্ডারে তেমন অর্থ নেই এই মুহূর্তে৷ তবে আনন্দের খবর যেখানে, সেখানে কিছু অর্থব্যয় তো হবেই! খরচখরচাকে সেখানেই সীমাবদ্ধ করার জন্য রাজার ইচ্ছে জ্ঞাপন করে তাই বিবৃতি দিয়েছে রাজকীয় প্রশাসন৷ আপাতত রাজা তাঁর ভাবী পত্নীকে সঙ্গে নিয়ে দেশভ্রমণে ব্যস্ত৷ বিয়ের আগে ভালো করে একবার গোটা দেশ দেখে নেওয়ার ইচ্ছে তাঁর৷ সেসব মিটে গেলেই অক্টোবরেই বেজে উঠবে ভূটানের রাজারাণীর বিয়ের সানাই৷

প্রতিবেদন: সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়

সম্পাদনা: হোসাইন আব্দুল হাই