1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ভুয়া ছবি দিয়ে সাম্প্রদায়িক উত্তেজনা ছড়ানো বন্ধের আহ্বান

রোহিঙ্গাদের ওপর নির্যাতনের ভুয়া ছবি ছড়ানো হচ্ছে৷ অনেকের মতে, বাংলাদেশে সংখ্যালঘুদের ওপর হামলায় উসকানি দেয়াই এর উদ্দেশ্য৷ মালয়েশিয়াতেও তৎপর একটি মহল৷ এ নিয়ে লেখালেখিও হচ্ছে দু'দেশেই৷

নির্যাতন, অত্যাচারের মুখে অনেক রোহিঙ্গা মুসলমানই মিয়ানমার ছাড়তে বাধ্য হয়েছেন৷ অভিবাসন প্রত্যাশী হয়েও পাচ্ছেন না শান্তির ঠিকানা৷ তবে তাদের পাশে না দাঁড়িয়ে ইতিমধ্যে তাঁদের নিয়ে নোংরা রাজনীতির খেলায় নেমে পড়েছে একটি মহল৷ রোহিঙ্গা নির্যাতনের অনেক ভুয়া ছবি ছড়িয়ে দেয়া হচ্ছে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে৷ বিশ্লেষকরা মনে করেন, বাংলাদেশে বৌদ্ধ এবং অন্যান্য সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ওপর হামলায় উসকানি দেয়ার জন্যই এমনটি করা হচ্ছে৷

এ নিয়ে লেখালেখি হচ্ছে প্রচুর৷ ব্লগাররা ভুয়া ছবির সঙ্গে আসল ছবি জুড়ে দিয়ে এসবের পেছনে যে সাম্প্রদায়িক শক্তির হাত আছে সে বিষয়টি সবাইকে বোঝানোর চেষ্টা করছেন৷ বিডিনিউজ ব্লগে এনামুল হকের লেখার শিরোনাম, ‘‘রোহিঙ্গা মুসলমান গণহত্যার ভুয়া ছবি: রুখে দেই চক্রান্তকারীদের, রামুর পুনরাবৃত্তি চাই না৷''

মূল প্রসঙ্গটি সবাইকে বোঝাতে এনামুল হক লিখেছেন, ‘‘বার্মায় মুসলমানদের গণহত্যার নামে শত শত ভুয়া ছবি ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে৷ ছবিগুলোর অধিকাংশই শ্রীলঙ্কার তামিল হত্যাকাণ্ড, সিরিয়া, ইয়েমেন, আফ্রিকা বা অন্যান্য অঞ্চলের বিভিন্ন সময়ে ঘটে যাওয়া হত্যাকাণ্ড কিংবা দুর্ঘটনা থেকে নেয়া৷ লাশ পুড়ানোর কিছু ভিডিও শেয়ারিং হচ্ছে যা তিব্বতীয় বৌদ্ধ ধর্মগুরুদের, চীন ভূমিকম্পের সময়কার, যেখানে তাঁরা সাহায্য করছিলেন৷ তাছাড়া ফটোশপ-এ এডিটিং করা ছবি তো আছেই৷ আর হ্যাঁ, রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে বক্তব্যরত বৌদ্ধ ধর্মগুরুদের যে ভিডিওটি অনলাইনে প্রচারিত হচ্ছে তাও এডিট করা, এবং ২০১৩ সালের৷''

মালয়েশিয়াতেও চলছে একই ধরণের অপতৎপরতা৷ এ বিষয়ে সবাইকে সচেতন করছে সেখানকার সংবাদমাধ্যম৷

বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িক মৌলবাদীদের অপতৎপরতার বিষয়টিও তুলে ধরছে সংবাদ মাধ্যম৷ আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বিষয়টিকে তুলে ধরেছে বিবিসির একটি প্রতিবেদন৷

দেশের সংবাদমাধ্যমও বসে নেই৷ বিভিন্ন দৈনিক পত্রিকা এবং অনলাইন পোর্টালে একটি বিশেষ মহলের মানুষে মানুষে সংঘাত সৃষ্টির অপচেষ্টার চিত্র যথাযথভাবে তুলে ধরা হচ্ছে৷

রোহিঙ্গা মুসলমানদের ওপর মিয়ানমারে যে অবর্ণনীয় অত্যাচার হয়েছে এবং এখনো হয় তা সবারই জানা৷ বিশ্বের কোনো মানবতাবাদী মানুষই এমন অত্যাচার-নির্যাতন সমর্থন করেনা৷ প্রতিবাদও কম হয়নি সারা বিশ্বে৷ তাই বলে ভুয়া ছবি এবং তথ্য প্রচার করতে হবে কেন?

বিবিসি অবশ্য রোহিঙ্গা মুসলমানদের নিয়ে ভুয়া ছবি এবং তথ্য প্রকাশের খবরের পাশাপাশি আরেকটি প্রতিবেদনও প্রকাশ করেছে৷ প্রতিবেদনটির শিরোনাম, ‘রোহিঙ্গা মুসলমানদের কি কেউ রক্ষা করতে পারবে?'

রোহিঙ্গা মুসলমানদের সম্পর্কে এই প্রশ্নটি আসলে এখন সবার মনেই উঁকি দিচ্ছে৷

সংকলন: আশীষ চক্রবর্ত্তী

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়