1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

ভাষা শেখায় উৎসাহ দিচ্ছে জার্মান সরকার

জার্মানিতে অভিবাসীদের সংখ্যা দিন দিন বেড়ে চলেছে৷ বিশেষ করে নর্থরাইন ওয়েস্টফেলিয়া রাজ্যের কোলন, ড্যুসেলডর্ফ, ডর্টমুন্ড, হাম এবং ডুইসবুর্গের মতো বড় শহরগুলোতে৷ ঘুরতে বেরোলেই সেটা আজকাল সবার চোখে পড়ে৷

Bildergalerie 60 Jahre DW MMDR Jojo sucht das Glück

ডয়চে ভেলের রয়েছে বিশেষ জার্মান ভাষা শেখা কার্যক্রম

দক্ষিণ ইউরোপের রোমানিয়া এবং বুলগেরিয়া থেকে আসা অভিবাসীদের সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে, একথা বলেন রাজ্যটির শ্রম, সমাজকল্যাণ ও ইন্টিগ্রেশন বিষয়ক মন্ত্রী গুন্টরাম শ্নাইডার৷ তাঁর মন্ত্রণালয়ের হিসেব অনুযায়ী, ২০১২ সালে এই দুই দেশ থেকে নর্থরাইন ওয়েস্টফেলিয়া রাজ্যে এসেছেন প্রায় ১২ হাজার অভিবাসী৷ এছাড়া, আগে থেকেই ঐ দুই দেশের প্রায় ৬০ হাজারেরও বেশি নাগরিক বাস করছেন এই রাজ্যে৷

অভিবাসীদের মধ্যে অনেকেই যেমন দারিদ্রতা থেকে মুক্তি পেতে নিজের দেশ ছেড়েছেন, তেমনই এঁদের মধ্যে অনেকেই কিন্তু শিক্ষিত, যোগ্যতাসম্পন্ন বিশেষজ্ঞ, যেমন ডাক্তার, প্রযুক্তিবিদ বা সেবক-সেবিকা, বলেন শ্নাইডার৷ তাঁর মন্ত্রণালয়ে যে হিসেব রয়েছে তাতে দেখা গেছে, দক্ষিণ-পূর্ব ইউরোপে থেকে আসা প্রায় ১৩,৫০০ অভিবাসী চাকরি ও বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা পাচ্ছেন৷

বিদেশিদের সমন্বয়সাধনকারী এই মন্ত্রী আরো জানান, বুলগেরিয়া এবং রোমানিয়া থেকে আসা এই সব মানুষের নিজের দেশে আর্থিক অবস্থা যে খুব খারাপ ছিল শুধু তাই নয়, তাঁদের মধ্যে অক্ষরজ্ঞান নেই এমন মানুষের সংখ্যাও একেবারে কম নয়৷ ফলে বর্তমানে জার্মানির শ্রম বাজারে তাঁদের তেমন চাকরি পাওয়ার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে৷ বড় শহরগুলোর অভিবাসীদের জন্য চাকরি বা জার্মান সমাজে নিজেদের গুছিয়ে নেওয়া বিরাট একটা চ্যালেঞ্জ এবং এক্ষেত্রে, অর্থাৎ চাকরি পাওয়ার জন্য ভাষা শেখা অত্যন্ত জরুরি৷ তাই এসব অভিবাসীর জন্য রাজ্য সরকার আরো বেশি অর্থ ব্যয় করতে প্রস্তুত৷ যেমন, ২০১৪ সালে শুধুমাত্র ডুইসবুর্গ শহরের অভিবাসীদের কল্যাণেই রাজ্য সরকার প্রায় ১২ মিলিয়ন ইউরো অতিরিক্ত অর্থ বরাদ্দ করেছে বলে জানা গেছে৷

তাছাড়া, ডুইসবুর্গ শহরে অভিবাসীদের বাসস্থান নিয়েও রয়েছে বড় সমস্যা৷ বিশেষ করে গত কয়েক মাসে অনেকগুলো পরিবার একটি ফ্ল্যাট বাড়িতে একসাথে থাকায় নানা সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে, যা নিয়মিত পত্র-পত্রিকাগুলিতেও উঠে এসেছে৷ তাই অভিবাসীদের ঐ ফ্ল্যাট বাড়ি থেকে অন্যান্য ছোট ছোট বাড়িতে পাঠানোর কাজ চলছে৷

ডুইসবুর্গ শহরের মতো নর্থরাইন ওয়েস্টফেলিয়া রাজ্যের অন্যান্য বড় শহরগুলোতে বসবাসকারী অভিবাসীদের নানা সুযোগ-সুবিধার দেওয়ার জন্য লাখ লাখ ইউরো দিয়ে সাহায্য করা হচ্ছে৷ অভিবাসীদের জন্য সামাজিক সুবিধা এবং ভাষাশিক্ষাসহ বিভিন্ন খাতে ৭.৫ মিলিয়ন ইউরো দেওয়া হয়েছে ইতিমধ্যেই৷ বলা বাহুল্য, বিদেশিদের জন্য জার্মানিতে চাকরি এবং সমাজে মিলেমিশে সুন্দরভাবে চলার জন্য জার্মান ভাষা জানার কোনো বিকল্প নেই৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন