1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ভাল্লুক পোষার কথা ভাবতে পারেন?

এ সেই নাকে-দড়ি, ভাল্লুক নাচের অসুখি ভাল্লুক নয়৷ কথা হচ্ছে এক সাত ফুট লম্বা, ১৩৬ কিলোগ্রাম ওজনের রাশিয়ান ব্রাউন বেয়ার-কে নিয়ে৷ স্বেতলানা আর ইয়ুরি প্যান্টেলিনকো-র এই পোষ্যটির নাম হলো স্টেপান৷

স্টেপান একটি বাদামি ভাল্লুক৷ তার বয়স আজ ২৩৷ প্যান্টেলিনকো-রা যখন জঙ্গলের মধ্যে আহত অবস্থায় স্টেপানকে খুঁজে পান, তখন তার না ছিল বাবা-মা, না ছিল একটা নাম৷ তিন মাসের ভালুকছানাটিকে বাড়ি নিয়ে এসে মানুষ করেন এই রুশি দম্পতি৷

সেই স্টেপান আজ তিনশ পাউন্ড ওজনের এক কেঁদো ভাল্লুক, কিন্তু তার স্বভাব-চরিত্র একেবারে বাড়ির পোষা কুকুরের মতো৷ বাড়িতেই থাকে৷ সন্ধ্যেয় স্বেতলানা আর ইয়ুরির সঙ্গে বসবার ঘরে বসে টিভি দেখে৷ এমনকি বাগানের ফুলগাছে জল দিতেও সাহায্য করে!

তবে স্টেপানকে পুষতে খরচা একটু বেশিই হয়, কেননা তার খোরাকটা একটু বেশি: দিনে ২৫ কিলো মাছ, শাকসবজি আর ডিম৷ আবার প্যান্টেলিনকোদের সঙ্গে খাবারের টেবিলে বসে সভ্য মানুষের মতো এটা-সেটা খেতেও তার আপত্তি নেই৷

স্টেপান অতি শান্তিপ্রিয় জীব৷ সে নাকি কোনোদিন তার পালক বাবা-মা'র গায়ে নখটি পর্যন্ত তোলেনি, থাবা তো দূরের কথা৷ অবশ্য তার মতো একটি প্রমাণ সাইজের বাদামি ভাল্লুক যদি কারো গায়ে তার থালার মতো থাবা তোলে, তাহলে যে কী হয়, তা না ভাবাই ভালো৷

ভাবার দরকারও নেই৷ আসল ব্যাপারটা কি জানেন? স্টেপানকে ওরা বলতেই ভুলে গেছেন যে, সে হল'গে যাকে বলে কিনা এক রাশিয়ান ব্রাউন বেয়ার৷ দেশটার মতোই, সে যতক্ষণ শান্ত,ততক্ষণ শান্ত৷ তাকে ঘেঁটে আনন্দ, কিন্তু ঘাঁটিয়ে কোনো লাভ আছে?

নির্বাচিত প্রতিবেদন