1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

ভাইরাল ভিডিও

ভাল্লুকরা যখন খিদের তাড়নায় ভিক্ষে করে

দু'হাত তুলে দর্শকদের কাছে কিছু খেতে চাইছে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার বিখ্যাত ‘সান বেয়ার'৷ এই হাড় জিরজিরে ভাল্লুকগুলো থাকে ইন্দোনেশিয়ার পশ্চিম জাভা প্রদেশের রাজধানী বান্দুং-এর একটি বেসরকারি চিড়িয়াখানায়৷

ইন্দোনেশিয়ায় যে বন্যপ্রাণী নিয়ে ব্যাপক বেআইনি ব্যবসা চলে, এ অভিযোগ অনেকদিনের৷ জীবজন্তুর প্রতি নির্মম আচরণও বিরল নয়৷ এছাড়া আছে আইন-শৃঙ্খলা বিভাগের গাফিলতি৷ এই পরিস্থিতিতে গত সপ্তাহে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়ে যায়৷

স্কর্পিয়ন ওয়াইল্ডলাইফ ট্রেড মনিটরিং গ্রুপের রিলিজ করা ভিডিওতে ক্ষুধিত, হাড় বের করা ভাল্লুকরা দু'হাত তুলে দর্শকদের কাছ থেকে আজেবাজে খাবার যা পাওয়া যায়, তাই ভিক্ষে করে খাচ্ছে৷


কংক্রিটের এনক্লোজারে তাদের বাস, সবুজের চিহ্নমাত্র নেই৷ সামনের পরিখায় পানি৷ ২০১৬ সালের মাঝামাঝি এই ক্ষুধার্ত ভাল্লুকগুলোকে আবিষ্কার করে স্কর্পিয়ন গোষ্ঠী৷ ভিডিওটি প্রকাশিত হবার পর সাড়ে পাঁচ হাজারের বেশি মানুষ একটি পিটিশনে স্বাক্ষর করেছেন – পিটিশনে কর্তৃপক্ষের প্রতি সংশ্লিষ্ট চিড়িয়াখানাটির বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেবার দাবি জানানো হয়েছে৷ বান্দুং-এর মেয়র রিদওয়ান কামিল বলেছেন যে, বেসরকারি পার্কটির বিরুদ্ধে তাঁর কোনো ধরনের পদক্ষেপ নেওয়ার অধিকার নেই, কেননা চিড়িয়াখানা পরিদর্শনের দায়িত্ব পরিবেশ মন্ত্রণালয়ের উপর ন্যস্ত৷

চিড়িয়াখানার প্রশাসনের তরফ থেকে বলা হয়েছে যে, ভাল্লুকগুলো রোগা বলেই তারা ক্ষুধিত বা রুগ্ন নয়৷ মনে করা যেতে পারে, হৃদযন্ত্র ও ফুসফুসের রোগে আক্রান্ত একটি সুমাত্রার হাতি গত বছর এই চিড়িয়াখানায় বিনা চিকিৎসায় এক সপ্তাহ কাটানোর পর মারা যায়৷

এসি/ডিজি

 

নির্বাচিত প্রতিবেদন