1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ভারতে সাধারণ নির্বাচনের দিনক্ষণ ঘোষিত

ভারতে ষোড়শ সংসদীয় নির্বাচনের নির্ঘণ্ট বুধবার ঘোষণা করলেন মুখ্য নির্বাচন কমিশনার ভি.এস সম্পত৷ সংসদের ৫৪৩টি আসনের জন্য ভোট হবে নয় দফায়৷ শুরু হবে ৭ই এপ্রিল, শেষ হবে ১২ই মে৷ আর ফলাফল ১৬ই মে৷

ষোড়শ সংসদীয় নির্বাচনের নির্ঘণ্ট ঘোষণা করলেন মুখ্য নির্বাচন কমিশনার ভি.এস সম্পত বুধবার ৫ই মার্চ৷ সংসদের ৫৪৩টি আসনের জন্য দেশজুড়ে ভোট হবে নয় দফায়৷ শুরু হবে ৭ই এপ্রিল এবং শেষ হবে ১২ই মে৷ ভোটের ফলাফল ঘোষিত হবে ১৬ই মে একদিনেই৷ ভোটারদের সংখ্যা ৮০ কোটি ৪০ লাখ৷ গত ২০০৯ সালের তুলনায় ১২ কোটি বেশি৷ এই ১২ কোটি ভোটারদের মধ্যে বেশির ভাগ প্রথমবার ভোট দেবেন৷ এবারে ভোটদান কেন্দ্রের সংখ্যাও সেই অনুপাতে বাড়িয়ে করা হয়েছে ৯ লাখ ৩০ হাজার৷

৭ই এপ্রিল প্রথম দফায় ভোট হবে দু'টি রাজ্যের ছয়টি সংসদীয় আসনে৷ ৯ই এপ্রিল দ্বিতীয় দফায় পাঁচটি রাজ্যের নয়টি আসনে৷ ১০ই এপ্রিল তৃতীয় দফায় ১৪টি রাজ্যের ৯২টি আসনে৷ ১২ই এপ্রিল চতুর্থ দফায় তিনটি রাজ্যের পাঁচটি আসনে৷ পঞ্চম দফায় ১৭ই এপ্রিল ১৩টি রাজ্য ও কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলের ১২২টি আসনে৷ ২৪শে এপ্রিল ষষ্ঠ দফায় ১২টি রাজ্যের ১১৭টি আসনে৷ ৩০শে এপ্রিল সপ্তম দফায় নয়টি রাজ্যের ৮৯টি কেন্দ্রে৷ অষ্টম দফায় ভোট নেয়া হবে ৭ই মে সাতটি রাজ্যের ৬৪টি আসনে৷ ১২ই মে নবম তথা শেষ দফায় ভোট হবে তিনটি রাজ্যের ৪১টি আসনে৷ পশ্চিমবঙ্গে ভোট হবে পাঁচ দফায়৷ ১৭ই, ২৪শে, ৩০শে এপ্রিল এবং ৭ই এবং ১২ই মে৷ ভোট গণনা ১৬ই মে৷

Wahl in Indien 2009

শিক্ষার কারণে ভোটারদের দৃষ্টিভঙ্গি এবং মানসিকতায় এসেছে পরিবর্তন৷ ধর্ম, জাতপাত এদের তেমন টানে না৷ অন্তত জনমত সমীক্ষা তাই বলছে৷

বুধবার থেকেই বলবৎ হলো নির্বাচনি আচরণবিধি৷ সরকার এমন কোনো জনকল্যাণ কর্মসূচির কথা ঘোষণা করতে পারবে না, যা ভোটারদের প্রভাবিত করতে পারে৷ রাজনৈতিক দলগুলিও একে অপরের বিরুদ্ধে এমন কোনো অভিযোগ বা পাল্টা অভিযোগ করতে পারবে না, যা সেইসব দল প্রমাণ করতে পারবে না৷ এই প্রথম সাধারণ নির্বাচনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে ‘‘নোটা'' বিকল্প চালু হবে৷ প্রতিদ্বন্দ্বী কোনো প্রার্থীকে পছন্দ না হলে নোটা বোতাম টিপতে পারেন৷ নির্বাচনে অর্থশক্তির যথেচ্ছ ব্যবহারে উদ্বেগ প্রকাশ করে মুখ্য নির্বাচন কমিশনার বলেন, অর্থশক্তির ব্যাপক ব্যবহার রোধ করতে ফ্লাইং স্কোয়াড এবং ইলেকট্রনিক বা ভিডিও নজরদারির ব্যবস্থা করা হবে৷

নিবাচনের নির্ঘণ্ট ঘোষণাকে স্বাগত জানিয়ে বিজেপি শীর্ষ নেতা রবিশঙ্কর প্রসাদ বলেছেন, নতুন যে ১২ কোটি ভোটার এবার ভোট দেবেন, তাঁদের বেশির ভাগই যুব সম্প্রদায়৷ তাঁরা চায় পরিবর্তন৷ ফলে বিজেপি তাঁদের কাঙ্ক্ষিত দল হবে বলে মনে করেন তিনি৷ এছাড়া বেকারি, মূল্যবৃদ্ধি এবং দুর্নীতিই হবে বিজেপির নির্বাচনি ইস্যু৷ উল্লেখ্য, প্রধানমন্ত্রী মিয়ানমার থেকে দিল্লি ফিরে আসার পর মন্ত্রিসভার বিশেষ বৈঠকে কিছু জনমুখী সিদ্ধান্ত নেবার কথা ছিল৷ যেমন, বিহারের জন্য বিশেষ প্যাকেজ এবং দুর্নীতি-বিরোধী অর্ডিন্যান্স অনুমোদনের নতুন করে চেষ্টা চালানো ইত্যাদি৷ কিন্তু নির্বাচনের দিনক্ষণ ঘোষণায় সে গুড়ে বালি৷ বিগত নির্বাচনগুলির তুলনায় এবার ভোটারদের দৃষ্টিভঙ্গি এবং মানসিকতায় এসেছে পরিবর্তন৷ তার পেছনে আছে শিক্ষা৷ ধর্ম, জাতপাত এদের তেমন টানে না, যেমন টানে আর্থিক বিকাশ আর দুর্নীতিমুক্ত সুশাসন৷ অন্তত জনমত সমীক্ষা তাই বলছে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়