1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ভারতে জনগণনায় জাতের উল্লেখ থাকবে – মেনে নিল সরকার

বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের দাবি মেনে নিয়ে অবশেষে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীসভা চলতি জনগণনায় জাত সংক্রান্ত বিতর্কিত তথ্য রাখার সিদ্ধান্ত নেন৷

default

ভারতের রাষ্ট্রপতি প্রতিভা পাটিল জনগণনার সূচনা করেন

বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে একথা জানিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পি.চিদাম্বরম বলেন, জনগণনার কাজ শেষ হলে আগামী বছরের জুন মাস থেকে পৃথকভাবে এই কাজ শুরু হবে৷

ভারতে জাত-তথ্যের মত রাজনৈতিক স্পর্শকাতর ইস্যুটি জনগণনার অন্তর্ভুক্ত করতে শেষ পর্যন্ত সরকারকে সম্মতি দিতে হলো৷ আজ সংবাদ মাধ্যমকে একথা জানান কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পি.চিদাম্বরম৷ চলতি জনগণনার পাশাপাশি ২০১১ সালের জুন থেকে বাড়ি বাড়ি গিয়ে পৃথকভাবে জাত-তথ্য সংগ্রহের কাজ চলবে৷ শেষ হবে সেপ্টেম্বরের মধ্যে৷ জাত-তথ্য না জানাবার অধিকার থাকবে উত্তরদাতার৷ বায়োমেট্রিক তথ্যের কাজও চলবে, যার মধ্যে থাকবে ফটো, আঙ্গুলের ছাপ ইত্যাদি৷ এর ভিত্তিতে তৈরি হবে জাতীয় পরিচয়পত্র৷ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, জাত-তথ্য সংগ্রহের পর সেটার একটা আইনি রূপ দেয়া হবে৷ জাতি/উপজাতি শ্রেণীভাগের জন্য গঠিত হবে এক বিশেষজ্ঞ কমিটি৷

Auftakt der Volkszählung in Indien

জাতপাত সংক্রান্ত বিভেদ এখনো দূর হয় নি

কেন্দ্রীয় মন্ত্রীসভায় এই ইস্যু নিয়ে বহু আলোচনা হয়েছে, কিন্তু মতভেদ যেমন ছিল সরকারের মধ্যে, তেমনি ছিল বিজেপি এবং বামদলগুলির মধ্যে৷ সঙ্ঘ পরিবারের স্তম্ভ আর এস এসের মতে, এতে হিন্দু সমাজ বিভক্ত হবে৷ বিভিন্ন বিকল্প নিয়ে চিন্তাভাবনার জন্য গঠিত হয় বিশেষ মন্ত্রীগোষ্ঠি৷ শেষপর্যন্ত সব দলই জাত-তথ্য রাখার সপক্ষে রায় দেয়৷

স্বাধীনতার পর ভারতে জাত-তথ্য নেয়া হয়নি৷ শেষবার নেয়া হয় ১৯৩১ সালে৷ ভারতে জাতপাতের বৈষম্য অবৈধ হলেও হিন্দু সমাজ ব্যবস্থায় এর প্রভাব অব্যাহত৷ জাত-তথ্য সংগ্রহকারীদের আশঙ্কা, যাঁরা অন্যান্য অনগ্রসর শ্রেণীভুক্ত তাঁদের উত্তর যাচাই করার কোন সুযোগ নেই, যেহেতু তাঁদের কাছে প্রমাণপত্র থাকবেনা৷ যেটা থাকে তপসিলী জাতি/উপজাতিভুক্তদের কাছে৷ ফলে, জাত নিয়ে জালিয়াতির সম্ভাবনা থেকে যাচ্ছে৷

ভারতের ১২০ কোটি লোকের গণনা কাজে নিযুক্ত ২৫ লাখ কর্মী৷ পুরো প্রক্রিয়ার খরচ ৪ হাজার কোটি টাকা৷

প্রতিবেদন: অনিল চট্টোপাধ্যায়, নতুনদিল্লি
সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন