1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

ভারতের সঙ্গে কি হেরেই যাবে বাংলাদেশ?

জানা ছিল, কোহলিকে থামাতে না পারলে বিপদ হবেই৷ ডাবল সেঞ্চুরি করেছেন কোহলি৷ ঋদ্ধিমানও সেঞ্চুরি ‘উপহার’ পাওয়ায় ৬ উইকেটে ৬৮৭ রান তুলে ইনিংস ঘোষণা করেছে ভারত৷ দ্বিতীয় দিন শেষে একটাই প্রশ্ন- হার এড়াতে পারবে তো বাংলাদেশ?

হায়দ্রাবাদ টেস্টের প্রথম দিনেই অবশ্য রানের পাহাড়ে চড়ে বসার সম্ভাবনা জাগিয়েছিল ভারত৷ মুরালি বিজয়ের ১০৮, চেতেশ্বর পুজারার ৮৩ আর অধিনায়ক বিরাট কোহলির সেঞ্চুরির সুবাদে দিন শেষে স্কোর ছিল ৩ উইকেটে ৩৫৬৷ শুক্রবার তাসকিন, রাব্বি, মিরাজদের বল হাতে দিনটা যেভাবে শুরু করার কথা, করেছেন ঠিক তার উল্টো৷ তাঁদের অনেকটা উদ্দেশ্যহীন এবং নিয়ন্ত্রণহীন বোলিংয়ের ফায়দা তুলে রাহানেকে নিয়ে স্কোর বোর্ডে দ্রুত রান যোগ করে গেছেন কোহলি৷

লাঞ্চের আগে এক সেশনেই ওঠে ১২১ রান৷ চতুর্থ উইকেট জুটিতে ২২২ রান তোলার পর যে রাহানেকে ৮২ রান করে ফিরতে হলো তার সম্পূর্ণ কৃতিত্ব মেহেদি হাসান মিরাজের৷ তাইজুলের যে বলে চার মেরে সেঞ্চুরির আরেকটু কাছে যেতে চেয়েছিলেন, মিরাজের অসাধারণ ক্যাচের কারণে সেই বলে যে হতাশ হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরতে হবে, রাহানে নিশ্চয়ই তা ভাবেননি৷

রাহানে যেমন অভাবনীয় এক ক্যাচে আউট হয়েছেন, ঋদ্ধিমান সাহা ঠিক তেমনি প্রতিপক্ষের অভাবনীয় এক ভুলে নতুন জীবন পেয়ে সেঞ্চুরি করেছেন৷ তাইজুলকে ডাউন দ্য উইকেট মারতে গিয়ে উইকেট ছেড়ে বেরিয়ে গিয়েছিলেন ঋদ্ধিমান৷ মুশফিকের হাতেই ছিল বল, কিন্তু দু-বারের চেষ্টাতেই বলসমেত হাতটা উইকেটে লাগাতে পারেননি বাংলাদেশ অধিনায়ক৷ তৃতীয় প্রচেষ্টায় যখন বেলস ফেললেন, ততক্ষণে পৌঁছে গেছেন উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান ঋদ্ধিমান৷ শেষমেশ মাত্র ৪ রানে জীবন পাওয়া ঋদ্ধিমানের অপরাজিত সেঞ্চুরির সুবাদেই মূলত বাংলাদেশের বিপক্ষে রেকর্ড গড়ে প্রথম ইনিংস ঘোষণা করেছে ভারত৷ বাংলাদেশের বিপক্ষে এতদিন ভারতের সর্বোচ্চ ইনিংসটি ছিল ৬১০ রানের৷ ২০০৭ সালে দলের প্রথম চারজন ব্যাটসম্যানই সেঞ্চুরি করায় ৬১০ রানে ইনিংস ঘোষণা করেছিল ভারত৷

স্বাগতিকদের রেকর্ড স্কোরে ঋদ্ধিমান সাহার অবদান হার-না-মানা ১০৬ রানের ইনিংস৷ দিনশেষে উইকেটের পেছনে সৌম্য সরকারের ক্যাচ নিয়ে বাংলাদেশকে আরো দুশ্চিন্তায় ফেলেছেন পশ্চিমবঙ্গের এই বাঙালি ক্রিকেটার৷ ১ উইকেটে ৪১ রান নিয়ে দ্বিতীয় দিন শেষ করা বাংলাদেশ এই ম্যাচে হার এড়াতে পারবে তো?

এসিবি/জেডএইচ (ক্রিকইনফো)

প্রিয় পাঠক, আপনার মন্তব্য জানাতে পারেন নীচে মন্তব্যের ঘরে...

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়