1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ভারতের প্রাক্তন টেলিকম মন্ত্রী এ রাজা গ্রেপ্তার

টু-জি স্পেকট্রাম কেলেঙ্কারিতে দফায় দফায় জেরা করার পর প্রাক্তন টেলিকম মন্ত্রী এ রাজাকে শেষ পর্যন্ত আজ গ্রেপ্তার করলো কেন্দ্রীয় তদন্ত ব্যুরো সিবিআই৷

default

শেষরক্ষা হলো না রাজার

এবিষয়ে তীব্র প্রতিক্রিয়া হয়েছে রাজনৈতিক মহলে৷ যৌথ সংসদীয় কমিটির তদন্তের জন্য সরকারকে আরো বেশি চেপে ধরবে বিরোধী পক্ষ৷

টু-জি স্পেকট্রাম কেলেঙ্কারিতে চতুর্থবার জেরা করার পর আজ প্রাক্তন টেলিকম মন্ত্রী এ রাজাকে গ্রেপ্তার করে কেন্দ্রীয় তদন্ত ব্যুরো সিবিআই৷ গ্রেপ্তার করে ঐ বিভাগের আরো দুজনকে৷ একজন টেলিকম মন্ত্রণালয়ের সচিব সিদ্ধার্থ বেহুরা এবং অন্যজন রাজার একান্ত সচিব আর.কে চান্ডোলিয়া৷ সম্ভবত আগামীকাল তাঁদের আদালতে হাজির করা হবে৷ এর আগে সিবিআই রাজার বাসভবন থেকে উদ্ধার করা কম্পিউটার ও অন্যান্য নথিপত্রের ভিত্তিতে রাজাকে জেরা করলে তিনি সদুত্তর দিতে পারেননি৷ রাজার বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি বাজার দামের চেয়ে অনেক কম দামে টু-জি স্পেকট্রাম বিক্রি করেন তাঁর ঘনিষ্ঠ কিছু টেলিকম কোম্পানিকে৷ যার ফলে সরকারের লোকসান হয়েছে প্রায় ১ লক্ষ ৭৬ হাজার কোটি টাকা৷

Manmohan Singh

টেলিকম কেলেঙ্কারি নিয়ে কোণঠাসা হয়ে পড়েছে মনমোহন সিং’এর সরকার

সুপ্রিম কোর্টের অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি শিবরাজ পাটিলের তদন্ত কমিশনও সরকারের নিয়মবিধি লঙ্ঘনের জন্য দায়ী করেন কংগ্রেস-জোট সরকারের শরিকদল ডিএমকে দলের প্রাক্তন টেলিকমমন্ত্রী এ রাজাকে৷ স্পেকট্রাম বণ্টনে পক্ষপাতিত্ব করার জন্যও দায়ী করা হয় তাঁকে৷

কংগ্রেস বলেছে, এই গ্রেপ্তারে কংগ্রেস-ডিএমকে সম্পর্কে প্রভাব পড়বেনা৷ কংগ্রেস মুখপাত্র জনার্দন ত্রিবেদী বলেন, গোড়া থেকেই কংগ্রেস বলে আসছে দুর্নীতির উপযুক্ত তদন্ত হবে৷ আইন তার নিজের পথেই চলবে৷ এর মধ্যে কংগ্রেস আসছেনা৷ কিন্তু প্রধানমন্ত্রীকে বিদ্ধ করার সুযোগ ছাড়বেনা বিরোধী পক্ষ সংসদের ভেতরে ও বাইরে৷

বিজেপির শীর্ষ নেতা অরুণ জেটলির অভিযোগ, গত দু-আড়াই বছর ধরে সরকার বলে আসছে, কোন অনিয়ম বা দুর্নীতি হয়নি৷ পূর্বতন সরকারের নীতিই পালন করা হয়েছে৷ এখন স্পষ্ট, পুরো ইস্যুটা ধামাচাপা দিতে চেয়েছিল মনমোহন সিং সরকার৷ কিন্তু বিভিন্ন মহল থেকে চাপ আসায় সেটা ধোপে টিকলো না, বলেন জেটলি৷ দলের প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে দলের মুখপাত্র প্রধানমন্ত্রীকে প্রশ্ন করেছেন, রাজাকে শেষ পর্যন্ত গ্রেপ্তার করা হলো – অথচ প্রধানমন্ত্রী জেনেশুনে এতদিন চুপ ছিলেন কেন? বিজেপি এই কেলেঙ্কারির আরো ব্যাপক তদন্তের জন্য যৌথ সংসদীয় কমিটি গঠনের দাবিতে অনড় থাকবে৷ সংসদের অচলাবস্থার জন্য দায়ী সরকার, অভিযোগ বিজেপির৷ শোনা যাচ্ছে, পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে সরকার বিরোধীদের সংসদীয় কমিটির দাবি মেনে নেবার বিষয়ে নতুন করে চিন্তাভাবনা করছে৷ বিজেপির বর্ষীয়ান নেতা যশবন্ত সিং-এর মন্তব্য ভারতের রাজনৈতিক ইতিহাসে এই প্রথম একজন মন্ত্রীকে গ্রেপ্তার করা হলো৷

প্রতিবেদন: অনিল চট্টোপাধ্যায়, নতুনদিল্লি
সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

সংশ্লিষ্ট বিষয়