1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ভারতের দৃষ্টিতে ইরানের জেনিভা পরমাণু চুক্তি

পশ্চিমা দেশগুলির সঙ্গে ইরানের অন্তর্বর্তী পরমাণু চুক্তি ভারতের কাছে কতটা লাভজনক হতে পারে, তা নিয়ে চলছে দিল্লির নতুন মূল্যায়ন৷ ছয় মাসের জন্য ইরান তার পরমাণু কর্মসুচি স্থগিত রাখতে রাজি হওয়ায়, দিল্লি তাকে স্বাগত জানিয়েছে৷

দীর্ঘ টালবাহানার পর অবশেষে ইরান তার পরমাণু কর্মসূচি সাময়িকভাবে বন্ধ রাখবে, এই মর্মে পশ্চিমা বিশ্বের সঙ্গে ইরানের জেনিভা চুক্তিকে স্বাগত জানিয়েছে দিল্লি৷ মাত্র ছয় মাসের জন্য এই অন্তর্বর্তী চুক্তির শেষকথা বলার সময় না এলেও, আপাতদৃষ্টিতে ভারতের লাভ হবার সম্ভাবনাই বেশি৷ প্রস্তাবিত চুক্তির ফলে ইরানের পরমাণু কর্মসূচি নিয়ে যে উদ্বেগ ছিল তার সমাধানের এটা হলো প্রথম ধাপ৷ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞার ফলে ভারত-ইরান সহযোগিতামূলক যেসব প্রকল্প আটকে ছিল, তা পর্যালোচনা করতে ভারতের পররাষ্ট্রসচিব সুজাতা সিং বৈঠকে বসবেন ইরানের উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইব্রাহিম রহিমপরের সঙ্গে৷

ইরান তার অশোধিত তেল বিক্রির লাভের পাওনা ৬০০ কোটিরও বেশি মার্কিন ডলার তুলে নেবার দিকে জোর দেবে, যা যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞার ফলে ব্যাংক ট্রান্সফার করা সম্ভব হয়নি৷ এছাড়া বিশ্লেষক ও সরকারি মহলের ধারণা দীর্ঘমেয়াদে এনার্জি ও ব্যবসা-বাণিজ্যের পথ আবার খুলে যাবে৷ শুধু কী তাই? পরিবর্তিত ভূ-রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে ভারত এনার্জি ও বাণিজ্যিক পরিবহনে লাভবান হতে পারে৷ ভারতীয় তেল শোধনাগারগুলির ওপর চাপ কম হবে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের দরুণ৷ কাঁচা তেলের দাম কমতে পারে, কমতে পারে মুদ্রাস্ফীতির হার, এই আশায় ভারতের শেয়ার বাজারের সূচক আকাশ ছুঁয়েছে৷

পাকিস্তান হয়ে ভারত-ইরান গ্যাস পাইপ লাইন নিয়েও নতুন উদ্যোগ শুরু হবার সম্ভাবনা আছে৷ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে বেসামরিক পরমাণু সহযোগিতা চুক্তি হবার এক বছর পর, ভারত ইরানের সঙ্গে গ্যাস পাইপ লাইন প্রকল্প থেকে সরে আসে নিরাপত্তার কারণ দেখিয়ে৷ এখন তা পুনরুজ্জীবিত হতে পারে৷

ইরানের জেনিভা চুক্তি ভারতের কাছে কতটা গুরুত্বপূর্ণ? আর সে সম্পর্কে কী বলছে ভারতের সংবাদমাধ্যমগুলি? টাইমস অফ ইন্ডিয়ার মতে, এই অন্তর্বর্তী জেনিভা চুক্তি ভারতের পক্ষে স্বস্তিদায়ক৷ চুক্তি অনুযায়ী, ইরান পরমাণু অস্ত্র তৈরি করতে পারবে না৷ তারা এ শর্ত আদৌ মানছে কিনা – সেটা দেখার জন্য আন্তর্জাতিক আনবিক শক্তি সংস্থাকে তা পরীক্ষা করার সুযোগ দিতে হবে৷ অর্থাৎ, পরমাণু শক্তিকে শান্তিপূর্ণ কাজে লাগানো হচ্ছে বিশ্বের কাছে তা প্রমাণ করতে হবে ইরানকে৷ কিছু কিছু ক্ষেত্রে ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণ প্রক্রিয়া স্থগিত রাখতে হবে৷

ভারতের দিক থেকে এতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ভারতের কৌশলগত সহযোগিতা মজবুত হতে পারে৷ সুগম হতে পারে আফগানিস্তানের আর্থ-সামাজিক বিনিয়োগের পথ৷ স্বাভাবিক হতে পারে ইরানের সঙ্গে ব্যবসা-বাণিজ্য৷ জোরদার হতে পারে পারস্য উপসাগরীয় অঞ্চলের সঙ্গে ভারতের চিরাচরিত কূটনৈতিক বন্ধন৷ যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে একটা সাময়িক রফা হওয়ায় মধ্য প্রাচ্যের পরিস্থিতি আর আগের মতো থাকবে না৷ ভারতকে সেটা কাজে লাগাতে হবে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন