1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ভারতীয় মন্ত্রী বলছেন ধর্ষণ ‘কখনো ঠিক, কখনো ভুল'

ভারতের নতুন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর দলের এক মন্ত্রী বৃহস্পতিবার বলেছেন, ধর্ষণ ‘কখনো ঠিক, কখনো ভুল'৷ নারীর উপর যৌন আক্রমণ নিয়ে তাঁর এই মন্তব্য ব্যাপক প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করেছে৷

মধ্য প্রদেশ রাজ্যের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বাবুলাল গৌড় মনে করেন, শুধুমাত্র পুলিশের কাছে রিপোর্ট করার পর অপরাধ হিসেবে ধর্ষণের তদন্ত করা যেতে পারে৷

বলাবাহুল্য উত্তর প্রদেশে গত সপ্তাহে দুই তরুণীকে গণধর্ষণের পর হত্যা করা হয়৷ ন্যাক্কারজনক এই ঘটনার প্রতিবাদে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে সমালোচনার ঝড় ওঠে৷ তা সত্ত্বেও উত্তর প্রদেশ রাজ্য সরকারের পক্ষে সাফাই গেয়েছেন বাবুলাল গৌড়৷

ক্ষমতাসীন বিজেপির এই রাজনীতিবিদ সাংবাদিকদের বলেন, ‘‘এটা একটা সামাজিক অপরাধ যা নারী এবং পুরুষের উপর নির্ভর করে৷ কখনো এটা ঠিক, কখনো ভুল৷''

উত্তর প্রদেশ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ যাদবেরও সমালোচনা করছেন অনেকে৷ নিম্নবর্ণের দুই তরুণীকে ধর্ষণের পর আম গাছে ঝুলিয়ে খুন করা হলেও এই বিষয়টি গুরুত্বসহকারে নেননি তিনি৷ এমনকি তাঁর বাবা সমাজবাদী পার্টির নেতা মুলায়েম সিং গত এপ্রিলে এক নির্বাচনি প্রচারণায় ধর্ষণের শাস্তি হিসেবে মৃত্যুদণ্ডের বিধানের সমালোচনা করেছিলেন৷ সেসময় তিনি বলেন, ‘‘ছেলেরা ভুল করে৷''

বাবুলাল গৌড় এই দু'জনের পক্ষে সাফাই গেয়ে বলেছেন, ‘‘কে কাকে কখন ধর্ষণ করবে তা আগে থেকে জানা সম্ভব নয়৷ এটা কোনো রকম পূর্বাভাষ ছাড়াই ঘটে৷ ফলে অসহায় মুলায়েম কিংবা অখিলেশ এ ব্যাপারে (ধর্ষণ) কী করতে পারে?''

গতমাসের নির্বাচনে বিপুল জয় পেয়ে নির্বাচিত মোদী অবশ্যই তাঁর সহকর্মীর এমন মন্তব্যের প্রেক্ষিতে কোনো প্রতিক্রিয়া এখনো জানাননি৷ তবে বিজেপি বলেছে, এটা গৌড়ের নিজস্ব মন্তব্য, পার্টির অবস্থান নয়৷

ভারতের সরকারি পরিসংখ্যান অনুযায়ী, সেদেশে প্রতি ২২ মিনিটে একটি ধর্ষণের ঘটনা ঘটে৷ তবে আন্দোলনকারীরা বলছেন এই সংখ্যা সঠিক নয়৷ কেননা ১ দশমিক ২ বিলিয়ন মানুষের এই দেশে অনেক ধর্ষণের ঘটনাই পুলিশের কাছে রিপোর্ট করা হয় না৷ জানাজানি হলে ধর্ষিতা সামাজিকভাবে হেয় হবেন, এই শঙ্কায় অনেকে বিষয়টি চেপে যায়৷

এআই/ডিজি (এএফপি, এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়