1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ভারতীয় বিমানবাহিনীর প্রধান আবার এক বাঙালি

২০১৪ সালের ১ জানুয়ারি ভারতীয় বিমানবাহিনীর সেনাধ্যক্ষ নিযুক্ত হতে চলেছেন এয়ার মার্শাল অরূপ রাহা৷ প্রবাদপ্রতিম সুব্রত মুখার্জির পর আবার এক বাঙালি৷

ভারতের মতো বিভিন্ন জাতি, সম্প্রদায় আর বহু ভাষাভাষীর দেশে বুদ্ধিজীবী, তার্কিক বা রাজনীতিসচেতন হিসেবে বাঙালির স্বীকৃতি থাকলেও, যোদ্ধা হিসেবে নেই৷ ফলে ভারতীয় সেনাবাহিনীতে ভারতের অন্যান্য প্রদেশের নামে আলাদা বাহিনী থাকলেও বাঙালিদের নামে নেই কোনও আলাদা রেজিমেন্ট৷ সেই প্রেক্ষিতে একজন বঙ্গসন্তানের ভারতীয় বিমানসেনার প্রধান হওয়াটা উল্লেখযোগ্য এক ঘটনা৷

চলতি ডিসেম্বর মাসের ৩১ তারিখ অবসর নিচ্ছেন ভারতের বিমানবাহিনীর বর্তমান প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল এনএকে ব্রাউন৷ তাঁর স্থলাভিষিক্ত হবেন বর্তমান এয়ার ভাইস চিফ মার্শাল অরূপ রাহা৷ ১৯৭৪ সালের ডিসেম্বরে ভারতীয় বিমানবাহিনীতে যোগ দেন অরূপ রাহা৷

Indien Luftwaffe Arup Raha

অরূপ রাহা

পরের ৩৯ বছরে নানা গুরুত্বপূর্ণ পদে তিনি দায়িত্ব সামলেছেন, যার মধ্যে ভারতের কেন্দ্রীয় ও পশ্চিমা বিমানবাহিনীর প্রধান এবং ইউক্রেনে ভারতীয় দূতাবাসের এয়ার অ্যাটাশের দায়িত্বও ছিল৷ প্রশংসনীয় কাজের স্বীকৃতি হিসেবে পরম বিশিষ্ট সেবা পদক এবং অতি বিশিষ্ট সেবা পদক-সহ একাধিক সামরিক খেতাব তিনি পেয়েছেন৷

যদিও ভারতীয় সামরিক বাহিনীর প্রধান পদে অরূপ রাহা-ই প্রথম বাঙালি নন৷ এর আগে ভারতীয় স্থলবাহিনীর প্রধান হয়েছিলেন জেনারেল শঙ্কর রায়চৌধুরি৷ তাঁরও আগে ষাটের দশকে সেনাপ্রধান হয়েছিলেন জেনারেল জয়ন্তনাথ চৌধুরি৷ কিন্তু অরূপ রাহার বিমানবাহিনী প্রধান হওয়ার প্রসঙ্গে বারবার যাঁর নাম উঠে আসছে, তিনি ওই ষাটের দশকেই ভারতীয় বিমানবাহিনীর প্রধান এয়ার মার্শাল সুব্রত মুখার্জি৷ ভারত-চীন যুদ্ধে ভারতীয় বায়ুসেনার অসাধারণ সাফল্যের কৃতিত্ব তাঁকেই দেওয়া হয়৷ নিজের জীবদ্দশাতেই প্রায় সামরিক কিংবদন্তি হয়ে উঠেছিলেন তিনি৷ ভোজসভার টেবিলে গলায় মাংসের হাড় আটকে এয়ার মার্শাল সুব্রত মুখার্জির রহস্যময় অকালমৃত্যুও সেই কিংবদন্তির অংশ হয়ে আছে৷

এয়ার মার্শাল অরূপ রাহা বিমানবাহিনীর প্রধান হওয়ার খবরে খুশির জোয়ার বইছে পশ্চিমবঙ্গের পুরুলিয়ার সৈনিক স্কুলেও৷ কারণ অরূপ রাহা এই সৈনিক স্কুলেরই সাবেক ছাত্র৷ তার পর তিনি রীতি অনুযায়ী ভারতের ন্যাশনাল ডিফেন্স অ্যাকাডেমিতে প্রশিক্ষণ নিতে গিয়েছিলেন, কিন্তু তাঁর শিকড় রয়েছে পুরুলিয়াতেই৷ সৈনিক স্কুলের বর্তমান অধ্যক্ষ কর্নেল বি এস ঘোরপাড়ে গর্ব করে বলেছেন, বাদবাকি স্কুল ছাত্রদের ভবিষ্যত গড়ে দেয়, কিন্তু পুরুলিয়া সৈনিক স্কুল এমন ছাত্র তৈরি করে, যারা দেশের ভবিষ্যত গড়ে দেয়৷ অরূপ রাহার চিফ অফ দ্য এয়ার স্টাফ হওয়াটা এই স্কুল এবং গোটা পশ্চিমবঙ্গের জন্যেই গর্বের বিষয়৷

উল্লেখ্য, গত ৫২ বছরে পুরুলিয়া সৈনিক স্কুল থেকে পাস করা ৩২০ জন ক্যাডেট ভারতীয় সেনাবাহিনীর বিভিন্ন পদে দায়িত্ব পালন করেছেন৷ তবে এয়ার চিফ মার্শাল পদে অরূপ রাহার নির্বাচন পুরুলিয়া সৈনিক স্কুলকে এক সারিতে দাঁড় করিয়ে দিল হরিয়ানার কুঞ্জপুর এবং মহারাষ্ট্রের সাতারা-র সৈনিক স্কুলের সঙ্গে, যেখান থেকে পাস করেছিলেন ভারতীয় স্থলবাহিনীর প্রাক্তন প্রধান জেনারেল দীপক কাপুর এবং প্রাক্তন বায়ুসেনা প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল পি ভি নায়েক৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়