1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ভাঙা অংশটি নিখোঁজ মালয়েশিয়ান এয়ারলাইন্সেরই

এমইচ৩৭০-কে ঘিরে যে রহস্য ছিল, এতদিনে তার কিছুটা অবসান হলো৷ কারণ মোজাম্বিক-মাদাগাস্কার জলসীমায় পাওয়া বোয়িং ৭৭৭ বিমানের অংশটি যে রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ মালয়েশিয়ান এয়ারলাইন্স বিমানের – সেই ব্যাপারে ‘প্রায় নিশ্চিত' অস্ট্রেলিয়া৷

২০১৪ সালে ২৩৯ জন যাত্রী নিয়ে নিঁখোজ হয়েছিল এমএইচ৩৭০৷ এরপর গত দু'বছর ধরে বহু অনুমাননির্ভর খবরই এসেছে৷ কিন্তু শেষ পর্যন্ত হারিয়ে যাওয়া এই বিমানটির কোনো খবর সম্পর্কেই নিশ্চিত হওয়া যায়নি৷

তবে দীর্ঘ পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর, অস্ট্রেলীয় কর্তৃপক্ষ এবার ‘প্রায় নিশ্চিত'৷ অর্থাৎ গত মাসে মোজাম্বিক ও মাদাগাস্কারের জলসীমার মধ্যে খুঁজে পাওয়া বিমানের টুকরোটি এমএইচ৩৭০-এর

খবরটা আসার পর থেকে প্লেনের ভাঙা অংশটি নিজের চোখে দেখার জন্য সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ঝড় বয়ে গেছে৷ নিঁখোজ যাত্রীদের আত্মীয়স্বজন তো বটেই, ইউটিউবে এই ভিডিওটি দেখেছেন আরো বহু মানুষ৷

২০১৪ সালের ৮ই মার্চ কুয়ালালামপুর থেকে বেইজিংয়ের উদ্দেশ্যে উড়ে গিয়েছিল মালয়েশিয়ান এয়ারলাইন্সের এমইচ৩৭০ বিমান৷ কিন্তু যাত্রা শুরুর কিছুক্ষণ পরেই উধাও হয়ে যায় বিমানটি৷

তদন্তকারীদের অনুমান, প্রতিকূল আবহাওয়ার কারণেই ভারত সাগরের কাছাকাছি গিয়ে পাইলট বিমানের দিক পরিবর্তন করেছিলেন৷ তারপর ২০১৫ সালের জুলাই মাসে ভারত মহাসাগরের রিইউনিয়ন দ্বীপের কাছে বিমানের একটি পাখা খুঁজে পাওয়া যায়৷ ঐ পাখাটিও যে নিখোঁজ এমএইচ৩৭০ বিমানেরই, সে সম্পর্কেও নিশ্চিত তদন্তকারীরা

আপনার কী বিশ্বাস? ভিডিওটি দেখে কি ভাঙা অংশটাকে এমএইচ৩৭০-এর বলে মনে হয়?

ডিজি/এসি (রয়টার্স, এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন