1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

অন্বেষণ

ব্ল্যাক ফরেস্টের ফ্যাশন তুলে ধরছেন এক ফটোগ্রাফার

অনেক পেশাদারী ফটোগ্রাফারদের কাছে ছবি তোলা নেশার পর্যায়ে পড়ে৷ জার্মানির এক আলোকচিত্রী কম বয়সেই হাতেখড়ির পর আদর্শ মুহূর্তের ছবির সন্ধানে ঘুরে বেড়াচ্ছেন৷ ব্ল্যাক ফরেস্ট অঞ্চলের পোশাককে নতুন ভাবে তুলে ধরছেন তিনি৷

ভিডিও দেখুন 02:21

ফটোগ্রাফারের চোখে ব্ল্যাক ফরেস্টের ফ্যাশন

আলোকচিত্রী হিসেবে সেবাস্টিয়ান ভেয়ারলে-র উৎসাহের শেষ নেই৷ ‘‘ক্যামেরা ছাড়া বাইরে বেরোলে মনে হয় কিছু যেন নেই৷ আমার সব সময়ে বিশেষ মুহূর্তের সন্ধান করি৷ পোর্ট্রেটের ক্ষেত্রে সেটা হলো অভিব্যক্তি৷....অবশ্যই সব খুঁটিনাটি বিষয় ঠিক হতে হয়৷ নিখুঁত ছবি তোলাই আমার লক্ষ্য৷....ছবি দেখাতে না পারলে আর তার কী মূল্য! দীর্ঘ সময় ধরে হার্ড ডিস্কে পড়ে থাকলে সেগুলি কার্যত মূল্যহীন হয়ে পড়ে৷''

আঞ্চলিক পোশাক, পরিচিত মডেল৷ সেবাস্টিয়ান ভেয়ারলে ব্ল্যাক ফরেস্ট অঞ্চলে নিজের স্টুডিওতে এভাবেই কাজ করেন৷ তিনি বলেন, ‘‘এই ছবি নিয়ে অনেক মাতামাতি হয়েছে, মানুষের সেগুলি খুব পছন্দ হয়েছে৷ ভাইরাসের মতো ছড়িয়ে পড়ছে, তবে ইতিবাচক ভাইরাস৷ খুবই তীব্র প্রতিক্রিয়া বটে৷''

খুঁটিনাটি বিষয়ের দিকে তাঁর তীক্ষ্ণ নজর৷ সঠিক মুহূর্ত বেছে নিতে ওস্তাদ৷ নিজেকে শুধু পরিশ্রমী বলেন সেবাস্টিয়ান ভেয়ারলে৷ সব জায়গায় সব সময়ে ছবি তুলে বেড়াচ্ছেন তিনি৷ নিসর্গ, মানুষ, পশু – সবই তাঁর বিষয়বস্তু৷

বেশ কম বয়সেই ফটোগ্রাফির নেশা তাঁকে ধরেছিল৷ একটি ক্যামেরা উপহার পেয়েই তিনি ছবি তোলা শুরু করেন৷ প্রথমদিকের একটি ছবির শিরোনাম ছিল ‘কস্টিউম পরে সেল্ফি'৷ তখন কেউ ভাবে নি, যে সেবাস্টিয়ান ২০ বছর পর ব্ল্যাক ফরেস্ট অঞ্চলের ফ্যাশানকে নতুন রূপ দেবেন৷ প্রথমে অবশ্য তাঁকে একটি প্রথাগত পেশা বেছে নিতে হয়েছিল৷ কিন্তু ফটোগ্রাফির টান ছিল বেশ তীব্র৷ সেবাস্টিয়ান ভেয়ারলে বলেন, ‘‘হাতে ক্যামেরা ধরে শাটার টিপলে বড় ভালো লাগে৷ ফটোগ্রাফির ক্ষেত্রে এই অনুভূতির আলাদা মজা আছে৷ কিছুটা নেশাও বটে৷''

সব সময়ে তিনি আদর্শ মুহূর্তের খোঁজ চালিয়ে যাচ্ছেন৷ তবে নিজের পছন্দের জায়গা তিনি আগেই খুঁজে পেয়েছেন৷

সুসে কেসেল/এসবি

নির্বাচিত প্রতিবেদন

ইন্টারনেট লিংক

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও