1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

ব্ল্যাকবেরির বিকল্পের খোঁজে

সংযুক্ত আরব আমিরাতে স্মার্ট ফোন, ব্ল্যাকবেরি ব্যবহারকারীদের অনেকেই এখন এর বিকল্প কিছু খুঁজছেন৷ যদিও এখনও আশায় আছেন, নিষেধাজ্ঞা কার্যকরী হওয়ার সময়টা হয়তো আরও কিছুটা বাড়ানো হবে৷

default

ব্ল্যাকবেরি

ব্ল্যাকবেরি মোবাইল ফোন সংযুক্ত আরব আমিরাতের জাতীয় নিরাপত্তায় ঝুঁকি বাড়াচ্ছে৷ এই অভিযোগ এনে গত আগস্ট মাসে দেশটির সরকার ব্ল্যাকবেরি মোবাইল ফোনের ম্যাসেঞ্জার, ওয়েব ব্রাউজিং এবং ই-মেল সার্ভিসের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে৷ এ মাসের ১১ তারিখ থেকে এই নিষেধাজ্ঞা কার্যকরী হওয়ার কথা৷ কিন্তু তার এক সপ্তাহ আগে থেকেই এর প্রভাব পড়তে শুরু করেছে দেশটিতে৷

ঊনিশ বছর বয়সি মাহমুদ ইব্রাহিম৷ বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলছেন, ‘‘ব্ল্যাকবেরির ম্যাসেঞ্জার সার্ভিসকে যদি ব্লক করে দেওয়া হয় তাহলে আমি আইফোন কিনবো৷ আমি মেসেঞ্জারের জন্যই ব্ল্যাকবেরি কিনেছিলাম৷ সেটাই যদি না থাকে আমি এই সেট দিয়ে কী করবো?''

ফিলিপিনো বিক্রেতা কিম বেৎসা বলছেন, ‘‘আমার ব্ল্যাকবেরিগুলিকে আমি আমার দেশের অন্য কারও কাছে বিক্রি করে দেবো৷ এর পরিবর্তে আইফোন কিনবো৷''

বিক্রি কমে গেছে ব্ল্যাকবেরির

নিষিদ্ধ ঘোষণার পর থেকেই খুচরা বিক্রেতারাও ব্ল্যাকবেরি সরবরাহকারীদের কাছ থেকে এটা নেওয়া বন্ধ করে দিয়েছেন৷ ইলেকট্রনিকসের একটি দোকানের তত্ত্বাবধায়ক কিশোর কুমার বলছেন, ‘‘ব্ল্যাকবেরির বিক্রি প্রায় ৪০ শতাংশ কমে গেছে৷ একমাত্র পর্যটক ছাড়া এখন আর কেউ এটা কিনছেনা৷''

18.07.2006 projekt zukunft fragezeichen

এই ছবিটিকেই খুঁজছেন আপনি৷ ছবিটির তারিখ 05/10 এবং কোড:1220 পাঠিয়ে দিন bengali@dw-world.de ঠিকানায় অথবা এসএমএস করুন 0088 0173 030 2205, ভারত: 0091 98309 97232 নম্বরে৷ এই প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে জিততে পারেন আকর্ষণীয় সারপ্রাইজ গিফট…

সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রধান দু'টি টেলিকম কোম্পানি ‘এটিসালাট' এবং ‘দু' ৷ ‘দু' সংস্থার এক উচ্চপদস্থ প্রতিনিধি ফরিদ ফারেদুনি এএফপি কে বলেছেন, ‘‘দেশের নিয়মনীতি মেনে চলতে আমরা বাধ্য৷ এক্ষেত্রে আমরা বিকল্প কোনো প্যাকেজ চালু করবো, যাতে এর সমমানের সুযোগ সুবিধা থাকবে৷''

সংযুক্ত আরব আমিরাতে ব্ল্যাকবেরি প্রথম চালু হয় ২০০৬ সালে৷ এর পরের বছরই দেশটির নতুন নিরাপত্তা আইন চালু হয়৷ দেশটিতে ব্ল্যাকবেরি ব্যবহারকারীর সংখ্যা প্রায় ৫ লাখ৷

সৌদি আরব এবং ভারতও মনে করে, সন্ত্রাসীরা এই সেট ব্যবহারে আগ্রহী হতে পারে৷ গত আগস্ট মাসে ব্ল্যাকবেরি মনিটর করার জন্য ভারত সরকার সে দেশের মোবাইল ফোন অপারেটরদের কাছে আনুষ্ঠানিক নোটিশ দেয়৷ কেননা, ব্ল্যাকবেরি সেট থেকে পাঠানো এসএমএস সাংকেতিক আকারে প্রথমে ব্ল্যাকবেরি নির্মাতা ‘রিসার্চ ইন মোশন' বা ‘রিম'এর ক্যানাডায় অবস্থিত সার্ভারে যায়৷ তারপর সেখান থেকে নির্দিষ্ট গন্তব্যে পৌঁছায়৷ এতে ব্ল্যাকবেরি থেকে পাঠানো বার্তার মনিটর করা সম্ভব হয়না৷ তাই ভারতে সেসময় বলা হয়েছিলো, ৩১ আগস্টের মধ্যেই মোবাইল অপারেটরদের ব্ল্যাকবেরি মনিটর করার জন্য প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি বসাতে হবে৷ এখন বলা হচ্ছে, এর বর্তমান অবস্থা নিয়ে অক্টোবরের মধ্যেই পুনরায় আলোচনায় বসবে ভারত৷

প্রতিবেদন: জান্নাতুল ফেরদৌস

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

সংশ্লিষ্ট বিষয়