1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ব্লাটার, প্লাতিনি আট বছরের জন্য সাসপেন্ড

ফিফার এথিক্স কমিটি ফিফা প্রেসিডেন্ট ইয়োসেফ এস ব্লাটার ও উয়েফা প্রেসিডেন্ট মিশেল প্লাতিনিকে ফুটবল থেকে আট বছরের জন্য ‘সাসপেন্ড' করেছে৷ এই নিষেধাজ্ঞা জাতীয় ও আন্তর্জাতিক, উভয় ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য হবে৷

ব্লাটার-এর আগমনের দৃশ্যটা প্রায় ভাইরাল হতে চলেছে! বিশেষ করে তাঁর মুখে বোধহয় কেটে যাওয়ার কারণে একটি লিউকোপ্লাস্ট প্লাস্টার, যা ডয়চে ভেলে স্পোর্ট-কে টুইট করতে অনুপ্রাণিত করেছে: ‘ব্লাটারের শ্রীমুখ, #ফিফাগেটের ভিতর দিয়ে'৷

তার ভিডিও নিয়েও বক্র মন্তব্যের কোনো অভাব নেই৷ অলিভার কে টুইট করেছেন: ‘ব্লাটার যেমন সম্মানজনক প্রস্থানের পরিকল্পনা করেছিলেন, ঠিক তেমনটা হলো না'৷

ব্লাটার এবং প্লাতিনি উভয়েই আপিল করবেন বলে প্রত্যাশা করা হচ্ছে৷ তাই নেড জিলিক-এর টুইটারে প্রতিক্রিয়া: ‘এই একটি বার নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে আপিলের ব্যবস্থা না থাকলেই বোধহয় ভালো হতো'৷

#

দুই ফুটবল কর্মকর্তা ফিফার নীতিমালা লঙ্ঘন করেছেন বিশ লাখ সুইশ ফ্রাঙ্ক (প্রায় বিশ লাখ মার্কিন ডলার) পরিমাণের, ‘‘ফিফার প্রতি বিশ্বস্ততা ভঙ্গকারী'' একটি পেমেন্টের জন্য৷ ১৯৯৮ থেকে ২০০২ সাল অবধি প্লাতিনি ব্লাটারের উপদেষ্ট ছিলেন৷ তখন নাকি দু'জনের মধ্যে বিনা লেখাপড়ায় ‘জেন্টলম্যানস এগ্রিমেন্ট' হয়েছিল যে, প্লাতিনিকে এই পরিমাণ পারিশ্রমিক দেওয়া হবে – অবশ্যই ফিফার তহবিল থেকে৷ প্লাতিনি শেষমেষ যখন সেই পেমেন্ট পেলেন, তখন সালটা ২০১১ এবং ব্লাটার ফিফা প্রেসিডেন্ট পদে কাতারের মোহামেদ বিন হাম্মাম-এর চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি৷

#ব্লাটিনি এথিক্স কমিটির এই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করবেন, বলে মনে করা হচ্ছিল৷ এবার জানা গেছে ব্লাটার লসান-এর কোর্ট অফ আর্বিট্রেশন ফর স্পোর্ট বা কাস-এর কাছে আপিল করবেন৷

এসি/ডিজি (ডিপিএ, এএফপি)

ব্লাটার ও প্লাতিনিকে সাসপেন্ড করার সিদ্ধান্ত কি আপনি সমর্থন করেন? জানান নীচের ঘরে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন