1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ব্লাটারের পদত্যাগের পর কী হবে

তা কেউ সঠিক বলতে পারছেন না৷ তবে ফিফা তথা বিশ্ব ফুটবলে একটা বড় পরিবর্তন আসার সম্ভাবনার কথা বলছেন সবাই৷ ওদিকে মার্কিন তদন্তের খাঁড়া ঝুলে রয়েছে ব্লাটার সহ একাধিক ফিফা কর্মকর্তার মাথার উপর৷

বলতে কি, ১৯৭৪ সাল যাবৎ ফিফা চালাচ্ছেন সেপ ব্লাটার ও তাঁর গুরু তথা পরামর্শদাতা জোয়াও আভেলাঞ্জ৷ এঁরাই বিভিন্ন জাতীয় ফেডারেশন ও আঞ্চলিক প্রধানদের ক্ষমতা দিয়ে তাদের বিশ্বস্ততাকে পুরস্কৃত করেছেন৷

গত শুক্রবার ১৩৩ বনাম ৭৩ ভোটে জর্ডানের প্রিন্স আলি বিন আল-হুসেইনকে হারিয়ে পঞ্চম কর্মকালের জন্য ফিফার প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হন সুইস নাগরিক ইওসেফ ব্লাটার৷ তার আগেই ব্লাটারের কার্যনির্বাহী পরিষদের সাবেক, হাল ও ভবিষ্যতের একাধিক সদস্যকে মার্কিন তদন্তের ফলস্বরূপ গ্রেপ্তার করা হয়৷ তাঁদের বিরুদ্ধে অভিযোগ: উৎকোচ গ্রহণ, যেমন সামগ্রিকভাবে ফিফার বিরুদ্ধে অভিযোগ, অন্যায়ভাবে রাশিয়া ও কাতারকে ২০১৮ ও ২০২২ সালের বিশ্বকাপ পাইয়ে দেওয়া৷ নিউ ইয়র্ক টাইমস ও এবিসি নিউজ-এর সর্বাধুনিক খবর অনুযায়ী ব্লাটারের বিরুদ্ধেও তদন্ত চলেছে, বিশেষ করে ২০১০ সালে একটি এক কোটি ডলার ঘুস নেওয়ার ঘটনা সম্পর্কে তিনি কিছু জানতেন কিনা, সে ব্যাপারে৷

Bildergalerie Joseph Blatter

ব্লাটারের উত্তরসূরি হিসেবে উয়েফা প্রেসিডেন্ট মিশেল প্লাতিনির (মাঝে) নাম শোনা যাচ্ছে...

ভোটে জেতার চার দিন পরেই তিনি তাঁর সরে দাঁড়ানোর কথা ঘোষণা করলেন কেন, এ বিষয়ে ব্লাটার বলেছেন: ‘‘গোটা ফুটবল দুনিয়ার কাছ থেকে আমি সনদ পেয়েছি বলে আমার মনে হচ্ছে না – ফ্যানরা, প্লায়াররা, ক্লাবগুলো, যে সব মানুষ ফুটবল নিয়ে বাঁচেন, যাদের নিঃশ্বাস-প্রশ্বাসে ফুটবল, যারা ফুটবলকে ভালোবাসেন৷'' আগামী ডিসেম্বর থেকে ২০১৫ সালের মার্চের মধ্যে ফিফার একটি বিশেষ কংগ্রেসে ব্লাটারের উত্তরসূরি নির্বাচন করা হবে৷ ব্লাটার সে অবধি ক্ষমতায় থাকছেন – এবং একটি নতুন সংস্কার প্রক্রিয়া সূচিত করবেন বলেও ঘোষণা দিয়েছেন৷

ব্লাটারের উত্তরসূরি কে হবেন বা হতে পারেন, তা নিয়ে অবশ্যই জল্পনা-কল্পনা শুরু হয়েছে৷ আপাতত উয়েফা প্রেসিডেন্ট মিশেল প্লাতিনির নামই সর্বাধিক শোনা যাচ্ছে৷ তবে জর্ডানের প্রিন্স আলি আভাস দিয়েছেন, তিনিও আবার প্রতিযোগিতায় নামতে পারেন৷ দৃশ্যত ব্লাটারের পদত্যাগের সিদ্ধান্তে সবাই খুশি – অথবা আশ্বস্ত৷ প্লাতিনি ব্লাটারের সিদ্ধান্তকে বলেছেন, ‘‘একটি শক্ত সিদ্ধান্ত, সাহসী সিদ্ধান্ত, সঠিক সিদ্ধান্ত''৷ অপরাপর ফুটবল অ্যাসেসিয়েশন কিংবা খেলোয়াড় সমিতির প্রতিক্রিয়াও অনুরূপ, যেমন কনকাসাফ বা ফিফপ্রো৷

ফিফার স্পন্সর কোম্পানিগুলিও দৃশ্যত খুশি, যেমন হুন্দাই-কিয়া মোটর কোম্পানি, বিশ্বের পঞ্চম বৃহত্তম মোটর নির্মাতা এবং ২০২২ সাল অবধি ফিফার ‘অটোমোটিভ পার্টনার'৷ ইতিপূর্বে কোকাকোলা, ভিসা ও আডিডাস অনুরূপভাবে ব্লাটারের পদত্যাগকে স্বাগত জানিয়েছে৷ ফিফার মুখ্য পৃষ্ঠপোষক সংস্থাগুলি বছরে মাথাপিছু তিন কোটি ডলার প্রদান করে থাকে৷

এসি/ডিজি (এপি, এএফপি, ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়