1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ব্লগার আসিফ মহিউদ্দীন আবার কারাগারে

জামিনের শর্ত ভঙ্গ করায় ব্লগার আসিফ মহিউদ্দীনকে স্থায়ী জামিন না দিয়ে সোমবার আবার কারাগারে পাঠানো হয়েছে৷ গত বুধবার পর্যন্ত তাঁর অন্তর্বর্তীকালীন জামিনের মেয়াদ ছিল৷ তবে তিনি ৪ দিন পর সোমবার আদালতে আত্মসমর্পণ করেন৷

ব্লগে ধর্মকে অবমাননা করে লেখালেখির অভিযোগে আসিফ মহিউদ্দীনকে গ্রেফতার করা হয় গত ৩রা এপ্রিল৷ এরপর তাঁকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ এবং আদালতে তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়৷ গত ২৭শে জুন আসিফ আদালত থেকে অন্তর্বর্তীকালীন জামিন পান৷ গত বুধবার পর্যন্ত তাঁর এই জামিনের মেয়াদ ছিল৷

পাবলিক প্রসিকিউটর আব্দুল্লাহ আবু ডয়চে ভেলেকে জানান, আসিফ বৃহস্পতিবার আদালতে হাজির না হয়ে ৪ দিন পর সোমবার আদালতে আত্মসমর্পণ করেন৷ ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতে আত্মসমর্পণের পর বিচারক ড. মো. আখতারুজ্জামান অন্তর্বর্তী জামিনের শর্তভঙ্গের কারণে আসিফের স্থায়ী জামিনের আবেদন বাতিল করে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন৷ আদালত থেকেই তাঁকে বিকেলে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়৷

পাবলিক প্রসিকিউটর জানান, এ ছাড়া চিকিত্‍সা সংক্রান্ত কিছু কাগজপত্র আদালতে উপস্থাপনের কথা ছিল৷ তাও আদালতে উপস্থাপনে ব্যর্থ হয়েছেন আসিফ৷ তিনি বলেন, নতুন করে কোন লেখালেখি বা মত প্রকাশের মাধ্যমে আসিফ তার জামিনের শর্ত ভঙ্গ করেননি৷ আদালত তাঁর আদেশে এ ধরনের কোনো কথা বলেননি৷

আসিফের বোন জুয়েলা জেবুন্নেসা মনি ডয়চে ভেলেকে জানান, আসিফের আইনজীবী চৌধুরী সানোয়ার আলীর সঙ্গে ভুল বোঝাবুঝির কারণে এরকম হয়েছে৷ তাঁরা ভেবেছিলেন আসিফকে স্থায়ী জামিন দেয়া হয়েছে৷ এবং ২৫শে আগস্ট মামলার পরবর্তী শুনানির দিনে হাজির হলেই চলবে৷ তাঁরা যখন জানতে পারেন আসিফের জামিন অন্তর্বর্তীকালীন, তখন আর কিছু করার ছিলনা৷ ফলে আসিফকে ১ মাস ২ দিন পর আবার কারাগারে যেতে হল৷

আসিফের আরেক আইনজীবী ব্যারিস্টার জ্যোতির্ময় বড়ুয়া ডয়চে ভেলেকে জানান, তাঁরা আবারো জামিনের জন্য আবেদন করবেন৷ তবে তা ঈদের আগে সম্ভব নাও হতে পারে৷

গত ১৪ই জানুয়ারি রাতে উত্তরা এলাকায় মৌলবাদী সন্ত্রাসীরা আসিফের ওপর হামলা চালায়৷ তিনি তখন প্রাণে বেঁচে গেলেও গুরুতর আহত হন৷ দীর্ঘদিন তাঁকে হাসপাতালে থেকে চিকিত্‍সা নিতে হয়৷ তারপরও তিনি পুরোপুরি সুস্থ হননি৷ এরপর গণজাগরণ মঞ্চ শুরু হলে মৌলবাদী গোষ্ঠী ধর্মকে অবমাননার অভিযোগে আসিফসহ বেশ কিছু ব্লগারকে গ্রেফতারের দাবি জানায়৷ তাদের দাবির মুখে আসিফকে অসুস্থ অবস্থায়ই গ্রেফতার করা হয়৷

একই সময়ে আরো ৩ ব্লগার রাসেল, পারভেজ এবং সুব্রত অধিকারী শুভকে গ্রেফতার করে গোয়েন্দা বিভাগ৷ তাঁরা ৩ জন আসিফের আগেই জামিন পান এবং এখনো জামিনে আছেন৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন