1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

পাঠক ভাবনা

‘ব্লগারদের ধারাবাহিক বর্বরোচিত হত্যাকাণ্ডের বিচার চাই'

মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল বলেছে, অনন্ত বিজয় দাসের বর্বরোচিত হত্যাকাণ্ডের বিচার হতেই হবে৷ এই বক্তব্যের সাথে ডয়চে ভেলের ফেসবুকে পাঠকরাও একাত্মতা প্রকাশ করেছেন৷

ব্লগার হত্যায় শঙ্কিত ডয়চে ভেলের পাঠক নওশিন নিতু৷ তিনি এ ব্যাপারে পশ্চিমা বিশ্বের সাহায্য চেয়ে লিখেছেন, ‘‘বাংলাদেশের উপর পশ্চিমা বিশ্ব থেকে কঠোর অর্থনৈতিক অবরোধ আরোপ করা উচিত, তা না হলে এ ধরনের হত্যাকাণ্ড থামবে না৷ দেশে ইসলামি জঙ্গি, মৌলবাদীদের আস্ফালন বেড়ে গেছে৷ ডানাটা একটু ছেটে দিতে হবে, যাতে ‘পা' মাটিতেই থাকে৷''

মাত্র কিছুদিনের ব্যবধানে ব্লগার অভিজিৎ রায়, ওয়াশিকুর রহমান এবং অনন্ত বিজয় দাসের হত্যার ঘটনায় আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ও শঙ্কিত৷ মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল বলেছে, হত্যাকাণ্ডের বিচার হতেই হবে৷ বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত একজন ব্লগার হত্যারও বিচার হয়নি৷ কড়া ভাষায় যুক্তরাষ্ট্র সরকারও এ হত্যাকাণ্ডের নিন্দা জানিয়েছে৷

ডয়চে ভেলের ফেসবুকে মানিক চন্দ্র ব্রাহ্মণ সব হত্যার বিচার চেয়েছেন৷ তাঁর ভাষায়, ‘‘অনতিবিলম্বে এই ধারাবাহিক বর্বরোচিত হত্যাকাণ্ডের বিচার চাই...৷'' শুধু তাই নয় পেট্রল বোমায়ও যারা মানুষ হত্যা করেছে পাঠক মানিক তাদেরও বিচার চেয়েছেন৷

অন্যদিকে ফেসবুক বন্ধু মুন্নার ধারণা, ‘‘বাংলাদেশের অধিকাংশ বাম নামধারী নেতাগণ মনে করেন, বাংলাদেশ নামক বিকৃত পুঁজিবাদী রাষ্ট্রটি শুধু তাদের৷ কৃষক, শ্রমিক, সর্বহারা বা সাধারণ জনগণের জন্য এ দেশ নয়৷''

পার্থ পোদ্দার জানিয়েছেন, ‘‘হত্যাকারীরা তো দেখছি খুব কাছেই আছে৷''

আলী হোসেনের মতে, ‘‘এই কাজ নাকি আওয়ামী লীগই করেছে৷''

ফেরদৌস রহমান রাসেলের দাবি, ‘‘প্রতিটি হত্যার বিচার করা দরকার!''

সোহেল বাইজিদ হত্যার বিচার সম্পর্কে সন্দিহান৷ তাঁর প্রশ্ন, ‘‘বাংলাদেশ কি বিচার হবে?''

দেবাশিষ দাস বাংলাদেশের পরিস্থিতি নিয়ে হয়ত হতাশ৷ তাই তিনি শুধু লিখেছেন, ‘‘শহিদ অনন্ত বিজয় দাস অমর হোক''৷

সংকলন: নুরুননাহার সাত্তার

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

নির্বাচিত প্রতিবেদন