1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূত হজ পালন করায় মুসলিম বিশ্বের অভিনন্দন

সৌদি আরবে নিযু্ক্ত ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূত সাইমন কলিস হজ পালন করায় বাংলাদেশসহ বিশ্বের অনেক দেশের মুসলমানরা তাঁকে অভিনন্দন জানাচ্ছেন৷ ষাট বছর বয়সি কলিস প্রথম ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূত হিসেবে হজ পালন করলেন৷

বিষয়টি প্রথম টুইটারে প্রকাশ করেন সৌদি আরবের লেখিকা ও নারী অ্যাক্টিভিস্ট ফৌজিয়া আলবাকর৷ আরবি ভাষায় লেখা টুইটে হজ পালনরত কলিস ও তাঁর স্ত্রীর ছবি শেয়ার করে আলবাকর লিখেন, ‘‘প্রথম ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূত হিসেবে ইসলাম গ্রহণের পর হজ পালন করছেন৷ সাইমন কলিস তাঁর স্ত্রী হুদার সঙ্গে মক্কায়৷ সব প্রশংসা আল্লাহর৷''

এরপর কলিস নিজে টুইটারে বিষয়টি নিশ্চিত করে আরবি ভাষায় লিখেছেন, ‘‘সংক্ষেপে, মুসলিম সমাজে ৩০ বছর কাটানোর পর এবং হুদার সঙ্গে বিয়ের আগে আমি ইসলাম গ্রহণ করি৷''

কলিস ২০১৫ সাল থেকে সৌদি আরবে ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূত হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন৷ এর আগে তিনি সিরিয়াতেও রাষ্ট্রদূত ছিলেন৷ ২০১২ সালে সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদের সমালোচনা করায় কলিসের নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে তাঁকে সেখান থেকে সরিয়ে নেয় ব্রিটিশ সরকার৷

সিরিয়া ছাড়া ইরাক এবং কাতারেও রাষ্ট্রদূত ছিলেন কলিস৷ এছাড়া কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন দুবাই, বসরা, টিউনিস, নতুন দিল্লি ও আম্মানে৷

হজ পালন করায় কলিস ও তাঁর স্ত্রীকে অভিনন্দন জানিয়েছেন টুইটার ব্যবহারকারীরা৷ এর মধ্যে আছেন সৌদি রাজকন্যা বাসমাহ বিনতে সৌদ৷ তিনি লিখেছেন, ‘‘রাষ্ট্রদূত ও তাঁর স্ত্রীকে বিশেষভাবে অভিনন্দন জানাচ্ছি৷''

অভিনন্দন জানাচ্ছেন বাংলাদেশের সামাজিক মাধ্যম ব্যবহারকারীরাও৷ ফেসবুকে অনেকে খবরটি শেয়ার করছেন৷ মোহাম্মদ মনির মনে করছেন, ‘‘ইসলামের সুমহান আদর্শ দেখে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন এবং হজ পালন করেছেন সৌদি আরবে নিযুক্ত ব্রিটেনের রাষ্ট্রদূত সাইমন কলিস ও তাঁর স্ত্রী৷'' স্বপন নাইম লিখেছেন, ‘‘ইসলামের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র বুমেরাং হচ্ছে৷''

সংকলন: জাহিদুল হক

সম্পাদনা: আশীষ চক্রবর্ত্তী

নির্বাচিত প্রতিবেদন