1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ব্রিটিশ ফুটবলারদের দাঁতের রোগ

ইউসিএল ইস্টম্যান ডেন্টাল ইনস্টিটিউটের একটি জরিপ থেকে জানা গেছে যে, ব্রিটেনের প্রায় ৪০ শতাংশ পেশাদারি ফুটবলারের দাঁতের অবস্থা শোচনীয়৷ জরিপের ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে ব্রিটিশ জার্নাল অফ স্পোর্টস মেডিসিন-এ৷

পেশাদারি ফুটবলারদের অর্থাভাব না থাকা সত্ত্বেও দৃশ্যত তারা পারতপক্ষে দাঁতের ডাক্তারের ছায়া মাড়াননা৷ নয়তো তাদের দাঁতের অবস্থা সমবয়সিদের চেয়ে এতো খারাপ হবে কী করে?

একদল ডেন্টিস্ট এবং ডাক্তার ইংল্যান্ড ও ওয়েলস-এর আটটি ক্লাবের ১৮৭ জন প্লেয়ারকে পরীক্ষা করে দেখেন৷ তাদের মধ্যে পাঁচটি ক্লাব ছিল প্রিমিয়ার লিগের: হাল, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, সাদাম্পটন, সোয়ানসি সিটি ও ওয়েস্ট হ্যাম৷ দুটি ক্লাব ছিল সেকেন্ড ডিভিশনের এবং আরো একটি লিগ ওয়ান থেকে৷ প্লেয়ারদের বয়স ছিল ১৮ থেকে ৩৯ বছরের মধ্যে, গড়ে ২৪ বছর৷ প্রতিটি ক্লাবের ফুটবল দলের অন্তত ৯০ শতাংশ প্লেয়ারকে পরীক্ষা করা হয়৷

প্লেয়ারদের তিন-চতুর্থাংশ বলেছেন যে, তারা গত এক বছরের মধ্যে ডেন্টিস্টের কাছে গিয়েছেন, যদিও পরীক্ষা করে যা দেখা গিয়েছে, তার সঙ্গে এই বক্তব্য ঠিক মেলে না৷ অনেকে নাকি দাঁতব্যথা সত্ত্বেও ডেন্টিস্টের কাছে গিয়ে উঠতে পারেননি৷ কিন্তু সেটা কি ভয়ে, না বাহাদুরি দেখানোর জন্যে, নাকি সময় নেই বলে – জরিপে সেটা ধরা পড়েনি৷ মোট কথা, জরিপের সময় ছ'জনের মধ্যে একজন বলেছেন যে, তাঁর মুখে কিংবা দাঁতে ব্যথা আছে; চারজনের মধ্যে একজন বলেছেন, বেশি ঠাণ্ডা বা গরম কিছু খেলে তাদের দাঁত কনকন করে৷

জরিপের ডেন্টিস্ট ও ডাক্তাররা নাকি একাধিক প্লেয়ার দেখেছেন, যাদের দাঁত ক্ষয়ে স্নায়ু অবধি পৌঁছে গেছে এবং চোয়ালের ইনফেকশন সৃষ্টি করেছে৷ ৩৭ শতাংশের বাস্তবিক দাঁত ক্ষয়ে যাচ্ছে, ৫০ শতাংশের দাঁত অম্লের প্রভাবে ক্ষতিগ্রস্ত৷ প্রতি দশজন প্লেয়ারের মধ্যে আটজনের মাড়ির রোগ আছে৷ ৭৫ শতাংশের মুখের অর্ধেকই রোগগ্রস্ত৷ প্রতি বিশজনের মধ্যে একজনের মাড়ির দশা এমন, যে তা ঠিক করার আর কোনো উপায় নেই৷

সবচেয়ে বড় কথা: প্লেয়ারদের সাত শতাংশ বলেছেন যে, দাঁতের রোগ তাদের খেলা কিংবা ট্রেনিং-এর ওপরেও প্রভাব ফেলছে৷ আরো মজার কথা: অধিকাংশ ক্লাবের নিজেদের স্টাফের জন্য কোনো দাঁতের ডাক্তার নেই৷

এসি/এসবি (এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন