1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

ব্রিটেন

ব্রিটিশ পার্লামেন্টের কাছে গোলাগুলি, আততায়ী নিহত

বুধবার দুপুরে ব্রিটিশ পার্লামেন্টের চত্বরে একজন পুলিশকর্মীকে ছুরি মারার পর, আততায়ীকে গুলি করে মারে সশস্ত্র পুলিশ৷ অন্যদিকে ওয়েস্টমিন্সটার ব্রিজে একটি গাড়ি পথচারীদের ওপরে গিয়ে পড়লো আহত হন অন্ততপক্ষে ডজনখানেক মানুষ৷

পুলিশ প্রথম ঘটনাটিকে একটি সন্ত্রাসী আক্রমণ বলে গণ্য করছে৷ দ্বিতীয় ঘটনাটি প্রথম ঘটনার সঙ্গে যুক্ত কিনা, তা বোঝা যাচ্ছে না৷ অর্থাৎ ছুরি হাতে আক্রমণ ও গাড়ি চালিয়ে মানুষজনকে আহত করার ঘটনা দু’টির মধ্যে কোনো যোগ আছে কিনা, তা এখনও স্পষ্ট নয়৷

ডোনাল্ড টুস্কের মন্ত্রীসভার সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী রাদোস্লাভ সিকর্স্কি অকুস্থলে একটি ভিডিও তুলে পরে তা পোস্ট করেছেন৷

এক রয়টার্স ফটোগ্রাফার ওয়েস্টমিন্সটার ব্রিজের ওপর অন্তত এক ডজন মানুষকে পড়ে থাকতে দেখেছেন, বলে জানিয়েছেন৷ তাঁর ছবিতে কয়েকজনকে রক্তাক্ত অবস্থায় দেখা গেছে, তাদের মধ্যে একজনকে একটি বাসের নীচে৷ 

স্কাই নিউজ জানাচ্ছে, আততায়ী দৃশ্যত পার্লামেন্টের সিকিউরিটি গেট দিয়ে জোর করে ঢুকে একজন পুলিশ অফিসারকে আক্রমণ করে৷

Karte London Attentat Westminster Bridge Englisch (Google Maps)

ঘটনা দু’টি ঠিক যেখানে ঘটেছিল...

অন্যদিকে বিবিসি এবং অন্যান্য মিডিয়া জানায় যে, পুলিশ গুলি চালিয়ে আততায়ীকে গুরুতরভাবে আহত করে৷

এই ঘটনার জেরে ব্রিটেনে আতঙ্ক ছড়িয়েছে৷ বাইরে গুলির আওয়াজ শোনা যাওয়ার পর পার্লামেন্ট বন্ধ করে দেওয়া হয়৷ পার্লামেন্টের ভিতরে যে সমস্ত রাজনীতিবিদ, সাংবাদিক এবং কর্মীরা আছেন, তাঁদের বাইরে না আসার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে৷ টুইটারে রাজনীতিবিদ এবং সাংবাদিকরা জানিয়েছেন যে, তাঁরা গুলির শব্দ শুনেছেন৷

ভিডিও দেখুন 01:08

প্রধানমন্ত্রী টেরেসা মে অক্ষত অবস্থায় আছেন, বলে তাঁর কার্যালয়ের তরফ থেকে জানানো হয়৷ তবে তিনি ঠিক কোথায় আছেন, তা জানা যায়নি৷

 

শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী, দু’টি ঘটনায় মোট চারজন নিহত হয়েছে বলে জানা গেছে৷ এদের মধ্যে আততায়ী ছাড়াও আছেন একজন পুলিশ অফিসার ও একজন নারী৷ উনি গাড়ির ধাক্কায় নিহত হন৷ এছাড়া অন্ততপক্ষে ২০ জন আহত হয়েছে বলে খবর৷

পার্লামেন্ট স্কোয়ারে একটি অ্যাম্বুলেন্স হেলিকপ্টার নেমেছে ও সশস্ত্র পুলিশ ঢাল সহ পার্লামেন্ট ভবনে ঢুকেছে৷

হোয়াইট হাউসে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প রিপোর্টারদের বলেছেন যে, তাঁকে লন্ডনের ঘটনাবলী সম্পর্কে অবহিত করা হয়েছে৷

এ হামলা দু’টির পিছনে কারা ছিল – তা তদন্ত করে দেখছে একটি বিশেষ দল৷

এসি/ডিজি (ডিপিএ, এপি, রয়টার্স, এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়