1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

ব্রাজিলের ফুটবলারদের মানসিক চাপ

ফুটবল বিশ্বকাপ শুরু হতে বাকি আর মাত্র ১০ সপ্তাহ৷ খুব স্বাভাবিক যে নিজ দেশে বিশ্বকাপ আয়োজন, তাই ব্রাজিলের শিরোপা জেতার প্রত্যাশাটাও বেশি৷ তাই শারীরিক অনুশীলনের পাশাপাশি খেলোয়াড়দের চলছে মানসিক প্রস্তুতি৷

একদিকে নিজের দেশের জনগণের প্রত্যাশার চাপ, অন্যদিকে গণমাধ্যম – এই চাপ কতটা কাটিয়ে উঠতে পারে ব্রাজিল, সেটাই এখন মুখ্য হয়ে উঠেছে৷ স্টেডিয়ামগুলোর নির্মাণ কাজ এখনো শেষ না হওয়ায় ঘরে-বাইরে সমালোচনার ঝড় উঠেছে ব্রাজিল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে৷

তবে আশার কথা হল, গত ১৪টি ম্যাচের মধ্যে ব্রাজিল হেরেছে মাত্র একটিতে৷ কনফেডারেশন্স কাপ থেকে শুরু করে এখন পর্যন্ত ব্রাজিলের ঝুলিতে মাত্র একটা পরাজয়৷ কনফেড কাপে বিশ্বজয়ী স্পেনকে ৩-০ গোলে হারিয়ে নিজেদের হারানো আস্থা ফিরে পায় দলটি৷

Brasilien Fußball Trainer Luis Felipe Scolari

ব্রাজিলের কোচ লুইস ফেলিপে স্কোলারির কাছেও নিজ দেশে খেলাটাই একটা বড় চাপ বলে মনে হয়

তবে এখনো কিছু মানসিক বিষয় আছে, যেগুলো সামাল দিতে হবে খেলোয়াড়দের৷ ব্রাজিলে প্রথমবার বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হয়েছিল ১৯৫০ সালে৷ সেবার ফাইনালে হেরে যাওয়ার ব্যথাটা এখনো দুঃস্বপ্নের মত তাড়া করে তাদের৷ ব্রাজিলের কোচ লুইস ফেলিপে স্কোলারির কাছেও নিজ দেশে খেলাটাই একটা বড় চাপ বলে মনে হয়৷ প্রত্যাশার চাপটা সেখানে অনেক বেশি বলে মনে করেন তিনি৷ স্থানীয় ভক্তদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘‘নিজ দলকে সমর্থন দিয়ে যান, দলের সাথে থাকুন৷ আপনাদের উৎসাহ আমাদের এগিয়ে যেতে সাহায্য করবে৷''

ক্রীড়া মনোবিজ্ঞানী জোসে আনিবাল মার্কুয়েজ বলেন, ‘‘পুরোনো খেলোয়াড়দের জন্য এই চাপ সামাল দেয়ার অভিজ্ঞতা থাকলেও তরুণ খেলোয়াড়দের জন্য এটা সামল দেয়া কঠিন৷ আর বিশ্বকাপের ফাইনালে খেলা মানে নিজের পেশার সবচেয়ে উঁচু স্থানে আরোহণ করা, সেই সাথে কাঁধে একরাশ দায়িত্বের বোঝা৷'' তিনি আরো বলেন, ‘‘প্রতিটি দেশের খেলোয়াড়দের এই চাপ থাকে৷

তবে ব্রাজিলিয়ানদের জন্য ফুটবল আসলেই অন্য জিনিস৷ এটা এখানকার সংস্কৃতির একটা অংশ হয়ে দাঁড়িয়েছে৷''

মার্কুয়েজের মতে, ‘‘খেলোয়াড়দের মানসিকভাবে শক্তিশালী করে গড়ে তোলার ক্ষেত্রে স্কোলারিই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারেন৷'' নেইমারের মত কমবয়সি অনেক খেলোয়াড় রয়েছে, এবারের দলে যারা প্রথমবারের মত বিশ্বকাপে খেলছে৷ নেইমারের বয়স মাত্র ২২ বছর৷

ব্রাজিলের ক্রীড়া মন্ত্রী আলডো রেবেলো সংবাদ সংস্থা রয়টার্সকে বলেছেন, ‘‘১৯৫৮ সালে ব্রাজিল প্রথমবার বিশ্বকাপ জয় করেছিল৷ কিন্তু এখনো যখন আমাদের ফুটবল ইতিহাসের কথা ভাবি, তখন প্রথমেই চলে আসে ১৯৫০'র সেই পরাজয়ের স্মৃতি, দুঃস্বপ্নের মত তাড়া করে ফেরে আমাদের৷ তাই আমাদের খেলোয়াড়দের মাথায় রাখা উচিত সেই দুঃস্বপ্ন যেন সত্যি না হয়৷''

এপিবি/এসবি (রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়