ব্রাগাকে হারিয়ে ইউরোপা লিগ চ্যাম্পিয়ন পোর্টো | খেলাধুলা | DW | 19.05.2011
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

ব্রাগাকে হারিয়ে ইউরোপা লিগ চ্যাম্পিয়ন পোর্টো

চতুর্থবারের মতো ইউরোপীয় লিগ চ্যাম্পিয়ন হলো পোর্টো৷ বুধবার ডাবলিনের ফাইনাল খেলায় ব়্যাডামেল ফালকাও এর প্রথমার্ধের একমাত্র গোলে স্পোর্টিং ব্রাগাকে হারিয়ে শিরোপা জয় করল পোর্টো৷

Porto's Radamel Falcao reacts after scoring the first goal during the UEFA Europa League final between Portugal's FC Porto and SC Braga at the Dublin Arena in Dublin, Ireland Wednesday May 18 2011. (AP Photo/Armando Franca)

ফালকাও

আভিভা স্টেডিয়ামে অল-পর্তুগিজ ফাইনালে ফ্রেডি গুয়ারিনের বলকে হেড করে একমাত্র বিজয়সূচক গোলটি করলেন ২৫ বছর বয়সি ফালকাও৷ ৪৪ মিনিটের এই গোলের ফলে ইউরোপা আসরে কলম্বিয়ান এই তারকা ফুটবলারের গোলের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৭৷ ফলে ইউইএফএ কাপের ১৯৯৫-৯৬ মৌসুমে বায়ার্ন মিউনিখের ইয়ুর্গেন ক্লিন্সমানের সৃষ্ট ১৫ গোলের রেকর্ড ছাড়িয়ে গেলেন ফালকাও৷

স্বাভাবিকভাবেই দারুণ উচ্ছ্বসিত ফাইনালের ম্যান অফ দ্য ম্যাচ ফালকাও৷ বললেন, ‘‘এই শিরোপা জয়ের স্বপ্ন নিয়েই আমরা মাঠে নেমেছিলাম৷ সেই স্বপ্ন এবার পূরণ হলো৷ আমার গোল রেকর্ডের জন্য আমি খুশি৷ তবে আজকের দিনে সেটি বড় বিষয় নয়, বরং সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো আমাদের শিরোপা জয়৷ আমাদের এই সফলতার পেছনে মূলমন্ত্র দলবদ্ধ উদ্যম৷'' এর আগেও ১৯৮৭ এবং ২০০৪ সালে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ এবং ইউরোপীয় কাপ জয় করে পোর্টো৷ এছাড়া ২০০৩ সালে ইউইএফএ কাপও ঘরে তোলে তারা৷

মজার বিষয় হলো ইউইএফএ ক্লাব প্রতিযোগিতায় বিজয়ী পোর্টো'র কোচ আঁন্দ্রে ভিলাস-বোয়াসই হলেন সবচেয়ে কমবয়সি কোচ৷ বর্তমান বয়স মাত্র ৩৩ বছর৷ নিজের দলের জয়ে খুশি হলেও বুধবারের ফাইনাল ম্যাচে দুই দলের লড়াই দেখে খুশি হতে পারেননি বোয়াস৷ বললেন, ‘‘এটা খুব হতাশাব্যঞ্জক যে খেলাটা দৃষ্টি নন্দিত ছিল না৷ অবশ্য ইউরোপীয় ফাইনালের এটাই বাস্তবতা৷ এমনকি আজকের খেলাটা পর্তুগিজ মানের পর্যায়েও ওঠেনি৷'' তবুও ফালকাও'এর চমৎকার হেড করার নান্দনিকতায় মুগ্ধ বোয়াস৷ ফালকাও এর হেড'কে রীতিমতো ‘অবিশ্বাস্য' বলে মন্তব্য করেন তিনি৷ আর নিজের হেডের কারিশমা সম্পর্কে ফালকাও এর মন্তব্য, ‘‘আমার বাবা এটা আমাকে শিখিয়েছেন৷ তিনি খুব ভালো ডিফেন্ডার ছিলেন এবং আমাকে শেখান কীভাবে বাতাসের মাঝে উপরে উড়ে যেতে হয়৷''

ইতিমধ্যে ঘরোয়া লিগে সবগুলো খেলায় অপরাজিত সেরা হয়ে রেকর্ড গড়েছে তারা৷ এখন আগামী রবিবারের পর্তুগিজ কাপ ফাইনালে গুইমারেজকে হারাতে পারলেই টানা তিনটি শিরোপা জয়ের রেকর্ড হবে পোর্টোর৷

প্রতিবেদন: হোসাইন আব্দুল হাই

সম্পাদনা: আরাফাতুল ইসলাম