1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ব্যয় সংকোচনের প্রথম পর্ব ঘোষণা করলো ব্রিটেন

ব্যয় সংকোচনের সিদ্ধান্ত আসবে তা আগেই জানানো হয়েছিল৷ আর এই সিদ্ধান্তটিই আসলো গতকাল ব্রিটেনের নতুন জোট সরকারের কাছ থেকে৷ তবে বেশ সমালোচনাও হচ্ছে এই সিদ্ধান্তের৷

default

চক্রবাকে ব্রিটিশ অর্থনীতি

এক দুই বিলিয়ন নয়, গুনে গুনে সোয়া ছয় বিলিয়ন পাউন্ড খরচ হ্রাস করাটা সহজ নয়৷ কিন্তু অর্থনৈতিক মন্দার লাগাম ধরে রাখতে হলে এর কোন বিকল্পও নেই৷ গতকাল ব্রিটেনের নতুন অর্থমন্ত্রী জর্জ ওসবোর্ন এমনটা উল্লেখ করেই ঘোষণা করলেন সরকারী খরচ কমানোর নতুন সিদ্ধান্ত৷ একই সঙ্গে তিনি জানিয়ে দিলেন নতুন সিদ্ধান্ত অনুসারে খরচের খাতায় বিয়োগ কষতে হবে কম্পিউটার কেনা, মন্ত্রীদের গাড়ির খরচ, প্রথম শ্রেণীতে বিমান ভ্রমণ ইত্যাদি খাতে৷ তবে ওসবোর্নের কথায়, এটা খরচ সংকোচনের প্রথম ধাপ মাত্র৷ অর্থাৎ এরপরে এ ধরণের আরও সিদ্ধান্ত আসছে৷

বাজেট ঘাটতি কমানোর কথা ব্রিটেনের নির্বাচনের প্রাচারাভিযানে ছিল একটি আলোচিত বিষয়৷ সদ্য সাবেক হওয়া প্রধানমন্ত্রী গর্ডন ব্রাউনের দল লেবার পার্টি এই খরচ হ্রাসের পক্ষে নয় - এ কথা আগেই জানিয়েছে৷ এ বিষয়ে তাদের ভাষ্য ছিল, এই সিদ্ধান্ত ব্রিটিশ অর্থনীতিকে আরও সমস্যার মুখোমুখি দাঁড় করাবে৷ লেবার পর্টি যাই বলুক না কেন ক্ষমতাসীন জোট সরকার কিন্তু জানিয়ে দিয়েছে, বাজেটের ঘাটতি কমাবার জন্য খরচ হ্রাস করার কোন বিকল্প নেই৷ অর্থমন্ত্রীর কথায়, ‘উত্তরাধিকার সূত্রে আমরা বেশ খারাপ একটা অর্থনৈতিক পরিস্থিতি পেয়েছি, একে সঠিক পথে নিয়ে আসার দায়িত্ব এখন আমাদের৷ এই বিষয়টিকে সামনে রেখেই আগামী ২২ জুন বিশেষ জরুরী বাজেট পেশ করা হবে'৷

সর্বশেষ পরিসংখ্যানে দেখা যাচ্ছে, ব্রিটেনের অর্থনীতি এখন রয়েছে যে কোন সময়ের চেয়ে জটিল অবস্থায়৷ বাজেট ঘাটতির পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ১৫৬ দশমিক ১ বিলিয়ন পাউন্ড৷ এই অবস্থায় রাষ্ট্রীয় কোষাগারের প্রধান ডেভিড ল'স জানিয়ে দিলেন, আরও খারাপ অবস্থার মুখোমুখি হবার সময় এসে গেছে৷ তিনি স্পষ্টত এই নেতিবাচক পরিস্থিতির দায় বর্তালেন সাবেক সরকারের উপর৷ বললেন, অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে তাদের অব্যবস্থাপনাই আজকের এই করুণ হালের কারণ৷

নতুন ঘোষিত সিদ্ধান্তের ফলে অন্তত ২ বিলিয়ন পাউন্ড সাশ্রয় হবে তথ্যপ্রযুক্তি খাত থেকে, ভ্রমণ খাত থেকে সাশ্রয় করা হবে প্রায় এক বিলিয়ন পাউন্ড এবং বিভিন্ন সরকারী এবং আধা-সরকারী খাতে নিয়োগ কমিয়ে সাশ্রয় করা হবে আরও প্রায় সাতশ মিলিয়ন পাউন্ড৷

তবে ট্রেড ইউনিয়নগুলোর পক্ষ থেকে প্রথম ধাপের খরচ হ্রাসের এই পরিকল্পনা প্রকাশের পর কোন ধরণের সাধুবাদ আসেনি৷ তাদের এক কথা, আর তা হলো - নয়া এই পরিকল্পনা আমাদেরকে মর্মাহত করেছে৷

প্রতিবেদন: সাগর সরওয়ার

সম্পাদনা: অরুণ শঙ্কর চৌধুরী

সংশ্লিষ্ট বিষয়