1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানি ইউরোপ

ব্যাংকিং সংকট এড়াতে ইউরোপে উদ্যোগ

ভবিষ্যতে ব্যাংকের সংকটে যাতে রাষ্ট্রকে এগিয়ে আসতে না হয়, তা নিশ্চিত করতে ইউরো এলাকায় এক তত্ত্বাবধায়ক কর্তৃপক্ষ গড়ে তোলার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে৷ এদিকে অ্যামেরিকায় বাজেট সংকটের সমাধানসূত্রের জন্য অপেক্ষা করছে পুঁজিবাজার৷

ব্যাংকিং ইউনিয়নের ক্ষেত্রে ইউরোজোন দেশগুলিতে কিছুটা অগ্রগতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে৷ বেশ কিছুকাল পর ইউরোপীয় স্তরে এ নিয়ে আবার কিছু কার্যকলাপ শুরু হয়েছে৷ ইইউ অর্থমন্ত্রীদের বৈঠকের পাশাপাশি ইউরো এলাকার প্রায় ১৩০টি বড় আকারের ব্যাংকের জন্য এক তত্ত্বাবধায়ক কর্তৃপক্ষ গড়ে তোলার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে৷ ২০১৪ সালের শেষের দিকে ইউরোপীয় কেন্দ্রীয় ব্যাংক ইসিবি-র কাঠামোর মধ্যে এই কর্তৃপক্ষ কাজ শুরু করবে৷ তবে তার আগে ব্যাংকগুলির সম্পদ খতিয়ে দেখে ‘স্ট্রেস টেস্ট'-এর ব্যবস্থা করতে হবে৷

এই পদক্ষেপকে ব্যাংকিং ইউনিয়নের আগের ধাপ হিসেবে ধরে নেয়া হচ্ছে৷ আপাতত সংকট প্রতিরোধ করাই হবে মূল লক্ষ্য৷ অর্থাৎ, অর্থের অভাব দেখা দিলে ব্যাংকের শেয়ারহোল্ডার বা অন্যান্য বেসরকারি সূত্র থেকে সেই ঘাটতি মেটাতে হবে, সরকারের কাছে হাত পাতলে চলবে না৷ একমাত্র বিশেষ কিছু ক্ষেত্রে এর ব্যতিক্রম ঘটতে পারে৷ অতীতের ঘটনা থেকে শিক্ষা নিয়েই এই কাঠামো চালু করা হচ্ছে৷

Members of Germany's conservative (CDU/CSU) parties arrive for preliminary coalition with the Social Democratic Party (SPD) at the Parliamentary Society in Berlin October 14, 2013. Merkel is likely to pick a new coalition partner this week before moving on to detailed negotiations that could produce a new German government within about two months.REUTERS/Tobias Schwarz (GERMANY - Tags: POLITICS TPX IMAGES OF THE DAY)

জার্মানিতে নতুন সরকার গঠিত হলেও এই প্রশ্নে ধারাবাহিকতা বজায় থাকবে বলে ধরে নেয়া হচ্ছে

তবে ইউরোপের চালিকা শক্তি হিসেবে পরিচিত দেশ ফ্রান্স ও জার্মানির মধ্যে বিষয়টিকে কেন্দ্র করে মতভেদ রয়ে গেছে৷ ফ্রান্সের নেতৃত্বে কিছু দেশ চায়, শুধু সরকার নয়, ব্যাংকিং ক্ষেত্রে সংকটের ক্ষেত্রেও ইউরোপীয় জরুরি তহবিল ইএসএম সহায়তা করতে এগিয়ে আসুক৷ অন্যদিকে জার্মানির নেতৃত্বে অন্য কিছু দেশ চায়, ইএসএম-এর নাগাল পেতে হলে কড়া শর্ত পূরণ করতে হবে৷ জার্মানিতে নতুন সরকার গঠিত হলেও এই প্রশ্নে ধারাবাহিকতা বজায় থাকবে বলে ধরে নেয়া হচ্ছে৷

অ্যামেরিকায় বাজেট নিয়ে অচলাবস্থা এখনো না কাটায় বাকি বিশ্বের মতো ইউরোপের পুঁজিবাজারেও দুশ্চিন্তা দূর হচ্ছে না৷ ১৭ই অক্টোবরের মধ্যে দুই দলের মধ্যে রফা না হলে গোটা বিশ্বের আর্থিক বাজার বড় ধাক্কা খেতে পারে, এমন আশঙ্কা থেকেই যাচ্ছে৷ তবে সোমবার বাজারে কিছুটা দরপতন ঘটলেও মঙ্গলবার বাজার আবার বেশ চাঙ্গা হয়ে ওঠে৷ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বাজেট সংকট কেটে যাবে, এমন একটা আশার কারণেই এমন প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে৷

এসবি/ডিজি (ডিপিএ, এএফপি, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়