1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানি ইউরোপ

ব্যাংকিং ইউনিয়নের পথে ইউরোপ

সব বাধা-বিপত্তি কাটিয়ে ভবিষ্যতে ব্যাংকিং সংকট এড়াতে এক ব্যাংকিং ইউনিয়ন গড়ে তোলার উদ্যোগ চলছে ইউরোপে৷ জার্মানি ও ফ্রান্সের মধ্যে যে সব খুঁটিনাটি বিষয় নিয়ে মতপার্থক্য রয়েছে, তা কেটে যাবে বলে আশা করা হচ্ছে৷

বেশ কয়েক মাসের বিরতির পর ইউরোপীয় স্তরে আবার কিছু পদক্ষেপ লক্ষ্য করা যাচ্ছে৷ ব্যাংকিং ইউনিয়ন-এর পরিকল্পনা ধীরে ধীরে আরও স্পষ্ট হয়ে উঠছে৷ আগামী সপ্তাহে ইউরোপীয় ইউনিয়ন শীর্ষ সম্মেলনের আগে ইউরো এলাকার অর্থমন্ত্রীরা সোমবার এই কাঠামোর রূপরেখা সম্পর্কে আলোচনা করেছেন৷ কোনো ব্যাংক ফেল করলে কী করতে হবে, তা আগেভাগেই স্থির করার চেষ্টা চলছে৷ উল্লেখ্য, অতীতে এমন সংকটের সময় করদাতাদের অর্থ দিয়ে বেসরকারি ব্যাংক বাঁচাতে হয়েছে৷ তবে খুঁটিনাটি বিষয়ে মতপার্থক্য এখনো দূর হয় নি৷ যেমন জার্মানি চায়, ব্যাংক বাঁচাতে ইউরোপীয় উদ্ধার তহবিল থেকে কোনো অর্থ যেন কাজে লাগানো না হয়৷ তাছাড়া কোনো কেন্দ্রীয় এজেন্সির হাতে এই কাজের দায়িত্ব তুলে দেয়ার বিষয়েও জার্মানির আপত্তি রয়েছে৷ অন্যদিকে ফ্রান্সের নেতৃত্বে ইটালি ও স্পেনের মতো দেশ ইউরোপীয় সংহতির ভিত্তিতে এমন কাঠামো গড়ে তোলার পক্ষে৷ চলতি বছরেই এ বিষয়ে ঐকমত্য অর্জনের চেষ্টা চলছে৷

EZB-Turm Frankfurt

আগামী বছর ইউরোপের সংকটগ্রস্ত দেশগুলির পরিস্থিতির উন্নতির আশা উজ্জ্বল হয়ে উঠছে

এদিকে আগামী বছর ইউরোপের সংকটগ্রস্ত দেশগুলির পরিস্থিতির উন্নতির আশা উজ্জ্বল হয়ে উঠছে৷ প্রথম সংকটগ্রস্ত দেশ হিসেবে আয়ারল্যান্ড-এর আর বেলআউট-এর উপর নির্ভর করতে হবে না৷ শেষ কিস্তির অর্থ মঞ্জুর করা হয়ে গেছে৷ আগামী বছরেই আয়ারল্যান্ড আবার নিজের পায়ে দাঁড়াতে পারবে বলে আশা করা হচ্ছে৷ এদিকে গ্রিসের পরিস্থিতির সামান্য উন্নতি সত্ত্বেও সংস্কারের ক্ষেত্রে কোনো ঢিলেমি না করতে সতর্ক করে দিয়েছেন ইউরো এলাকার অর্থমন্ত্রীরা৷ আগামী কিস্তির অর্থ নিয়েও অনিশ্চয়তা দেখা দিচ্ছে৷ অগ্রগতি খতিয়ে দেখতে দাতা দেশগুলির প্রতিনিধিরা মঙ্গলবার এথেন্সে গেছেন৷ সাইপ্রাস সঠিক পথে এগোচ্ছে বলে অর্থমন্ত্রীরা মনে করছেন৷

এই অবস্থায় চলতি সপ্তাহে ইউরোপে কিছুটা দরপতন লক্ষ্য করা যাচ্ছে৷ অ্যামেরিকা ও ইউরোপের আর্থিক নীতি সম্পর্কে অস্পষ্টতা এর অন্যতম কারণ৷ যেমন মার্কিন কেন্দ্রীয় ব্যাংক ফেড চলতি মাসে কম বন্ড কেনার ইঙ্গিত দিয়েছে৷ তবে ইউরোর বিনিময় মূল্য স্থিতিশীল রয়েছে৷ ইউরোপীয় কেন্দ্রীয় ব্যাংক স্বল্প সময়ের সুদের হার বাড়ানোর ফলেই বাজারে ইতিবাচক প্রতিক্রিয়া দেখা যাচ্ছে৷

এসবি / জেডএইচ (রয়টার্স, ডিপিএ, এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়