1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

বেসামরিক ক্ষয়ক্ষতি কমানোর অঙ্গীকার পেট্রেয়াসের

দায়িত্ব নিয়ে আফগানিস্তানে যাওয়ার আগে আজ ব্রাসেলসে গিয়ে ন্যাটো মহাসচিবের সঙ্গে বৈঠক করেছেন মার্কিন জেনারেল ডেভিড পেট্রেয়াস৷ সামরিক অভিযানে বেসামরিক ক্ষয়ক্ষতি কমিয়ে আনার অঙ্গীকার করেছেন তিনি৷

default

ন্যাটো মহাসচিবের পাশে বক্তব্য রাখছেন জেনারেল পেট্রায়াস

এদিকে প্যাট্রেয়াস যাওয়ার আগেই তালেবান বিরোধী অভিযানে বড় ধরনের কৃতিত্ব দাবি করেছে ন্যাটো৷ তারা বলছে, সৈন্যদের আক্রমণে সেখানে নিহত হয়েছে অন্তত ৩১ জঙ্গি৷

মার্কিন সেনেট নিয়োগ চূড়ান্ত করার একদিন পরই বেলজিয়াম গেলেন পেট্রেয়াস৷ আমেরিকানদের আশা, ইরাকের মতোই আফগানিস্তানে যুদ্ধের গতি পাল্টে দেবেন এই জেনারেল৷ যুদ্ধ পরিকল্পনা নিয়ে মিত্রদের সঙ্গে আলোচনাই পেট্রেয়াসের ন্যাটো সদর দপ্তরে যাওয়ার মূল উদ্দেশ্য৷ আলোচনার পর তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘‘সামরিক অভিযানে নিরীহ মানুষ যেন মারা না যায়, সেদিকে নজর রাখা হবে৷ এটা আমাদের অঙ্গীকার৷ আমরা তা পালন করে যাবো৷'' আফগান যুদ্ধে পূর্বসূরি স্ট্যানলি ম্যাকক্রিস্টালের অবদানেরও প্রশংসা করেন পেট্রেয়াস৷ পরিস্থিতির উন্নতি ঘটাতে মিত্র শক্তি এবং আফগান সরকারের একযোগে কাজ করার ওপর গুরুত্ব দিয়েছেন তিনি৷

পেট্রেয়াস বলেন, ‘‘আমাদের অবশ্যই একসঙ্গে কাজ করতে হবে৷ যুক্তরাষ্ট্রের জন্য, ন্যাটোর জন্য, এমনকি আমাদের আফগান মিত্রদের জন্যও একই কথা প্রযোজ্য৷ আমরা সবাই যে লক্ষ্য অর্জনে কাজ করছি, সেখানে পৌঁছতে হলে আমাদের ঐক্য জরুরি৷''

McChrystal / USA / Militär

ন্যাটো বাহিনীর সাবেক কমান্ডার জেনারেল স্ট্যানলি ম্যাকক্রিস্টাল

পেট্রেয়াস ন্যাটো মহাসচিব আন্ডার্স ফঘ রাসমুসেনের সঙ্গে বৈঠক ছাড়াও ২৮ জাতির এই সামরিক জোটের দূতদের উদ্দেশ্য বক্তব্য রাখেন৷ যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্রমন্ত্রী উইলিয়াম হগ বৃহস্পতিবার বিবিসিকে বলেছেন, ২০১৪ সালের মধ্যে আফগান বাহিনী তাদের দেশের নিরাপত্তার ভার নিতে পারবে বলে তিনি আশা করছেন৷ একই সুর পেট্রেয়াসের কণ্ঠেও৷ তিনি বলেন, ‘‘কাবুলের প্রতি আমার বক্তব্য হবে, আমরা এখন সেখানে আছি, তবে চিরকাল থাকবো না৷ দায়িত্বটা আপনাদেরই নিতে হবে৷''

আফগানিস্তানে গত জুন মাসটি ভালো যায়নি ন্যাটো বাহিনীর জন্য৷ তালেবান হামলায় মারা গেছে শতাধিক সৈন্য৷ তবে জুলাইয়ের শুরুতেই বাতাস ঘুরে যাওয়ার ইঙ্গিত দিয়েছে ন্যাটো৷ বাহিনীর এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, হেলমান্দ প্রদেশে গতরাতে সৈন্যদের ওপর জঙ্গিরা হামলা চালালে সংঘর্ষ বেঁধে যায়৷ এতে নিহত হয় অন্তত ৩১ তালেবান৷ দলটির এক নেতাকে আটক করা হয়েছে বলেও দাবি করেছে ন্যাটো বাহিনী৷ বিবৃতিতে বলা হয়, যে তালেবান নেতা ধরা পড়েছেন, তিনি তালেবানের নাওজাদ শহরের প্রধান৷ ন্যাটো কমান্ডার কর্নেল উইলিয়াম ম্যাক্সওয়েল বলেন, এর মধ্য দিয়ে তালেবানের ওপর একটি বড় ধরনের আঘাত করা গেলো৷

প্রতিবেদন: মনিরুল ইসলাম

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক

সংশ্লিষ্ট বিষয়