1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

‘বেলাল মোহাম্মদের মতো নির্লোভ, বড় মাপের মানুষ কম দেখেছি’

মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা বেলাল মোহাম্মদ আর নেই৷ মঙ্গলবার ভোরে ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে তিনি মারা যান৷ বেশ কিছুদিন ধরে বার্ধক্যজনিত অসুস্থতায় ভুগছিলেন তিনি৷

জন্ম ১৯৩৬ সালের ২০ ফেব্রুয়ারি, চট্টগ্রামের সন্দ্বীপ উপজেলার মুছাপুর গ্রামে৷ ৭৭ বছর বয়সে মারা যাওয়া বেলাল মোহাম্মদ ছাত্রজীবন থেকেই সক্রিয় ছিলেন রাজনীতিতে৷বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, ছাত্র ইউনিয়নের চট্টগ্রাম কমিটির প্রথম সদস্য বেলাল মোহাম্মদ ১৯৬৪ সালে উপ-সম্পাদক হিসেবে যোগ দেন দৈনিক আজাদী পত্রিকায়৷ রেডিও পাকিস্তান চট্টগ্রাম কেন্দ্রে স্ক্রিপ্ট রাইটার হিসেবেও কাজ শুরু করেন সে বছর৷ সেই সুবাদেই বাংলাদেশের ইতিহাসে বেলাল মোহাম্মদের স্থায়ী আসন করে নেয়া৷

অডিও শুনুন 05:54

আব্দুল্লাহ আল-ফারূকের সাক্ষাৎকারটি শুনতে ক্লিক করুন এখানে

১৯৭১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতা যু্দ্ধের সময় চট্ট্রগ্রাম বেতার কেন্দ্রেই কাজ করছিলেন৷ ২৬শে মার্চ কয়েকজন সমমনা সহযোদ্ধাকে নিয়ে কালুর ঘাটে প্রতিষ্ঠা করেন স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্র৷ মুক্তিযুদ্ধে স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের অবদানের কথা অজানা নেই কারো৷ সেই সময়ে বেলাল মোহাম্মদের সহযোদ্ধা, ডয়চে ভেলে বাংলা বিভাগের সাবেক প্রধান আব্দুল্লাহ আল ফারূক শোকে মূহ্যমান৷ ডয়চে ভেলেকে দেয়া একান্ত সাক্ষাৎকারে শোকাতুর হৃদয়েই শ্রদ্ধা জানালেন অগ্রজপ্রতিম বেলাল মোহাম্মদকে৷ ২০১০ সালে স্বাধীনতা পুরস্কারে ভূষিত বেলাল মোহাম্মদ সম্পর্কে অনেক কথাই উঠে এসেছে এ সাক্ষাৎকারে৷

সা্ক্ষাৎকার : আশীষ চক্রবর্ত্তী

সম্পাদনা : সঞ্জীব বর্মন

নির্বাচিত প্রতিবেদন

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও