1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

বেকহ্যাম যাচ্ছেন বিশ্বকাপে, তবে খেলোয়াড় হিসেবে নয়

চোট পাওয়া ডেভিড বেকহ্যামের ছ’মাসের আগে সেরে ওঠার কোনো সম্ভাবনা নেই৷ গোটা ইংল্যান্ড মনমরা৷ সেইজন্যেই কি ‘বেক্স’-কে ইংল্যান্ড দলে যোগ দেওয়ার আহ্বান জানালেন কোচ ফাবিও কাপেল্লো?

default

মিলানে গত ১৪ই মার্চ চোট পাবার পর ডেভিড বেকহ্যাম

মনমরা তো বেকহ্যাম নিজেও৷ ৩৪ বছর বয়স হয়েছে৷ তবুও ২০১৪-র বিশ্বকাপেও ইংল্যান্ডের জার্সি পরার স্বপ্ন দেখছিলেন বেক্স৷ কিন্তু গত রবিবার এসি মিলানের হয়ে খেলতে গিয়ে এ্যাখিলিস টেন্ডন ছিঁড়ে বসলেন৷ মিলানেও এসেছিলেন লস এঞ্জেলেস গ্যালাক্সি'র কাছ থেকে ধার হিসেবে৷ এখনও বেক্স মিলানে ফেরার আশা প্রকাশ করেছেন৷ মিলানও জানিয়েছে, পরের মরশুমে বেকহ্যাম'কে স্বাগত জানাবে তারা৷ কিন্তু বেকহ্যামকে দক্ষিণ আফ্রিকায় সাথে নিয়ে যাওয়ার মূল কারণ বোধহয় এই যে, বেক্সের বিশ্বকাপে না যাওয়ার অর্থ, বেক্সের নিজের যতো না ক্ষতি, তার চেয়ে বেশি ক্ষতি বিশ্বকাপের৷ মাঠে কিংবা পরামর্শদাতার ভূমিকায় কি দর্শকের গ্যালারিতে: বেক্স হলেন বেক্স৷ বিশ্বাস না হয়, বিশ্বের টিভি দর্শকদের জিজ্ঞাসা করে দেখতে পারেন৷

আরো তো খবর আছে

অথচ ফিফা'র আরো নানা ধরণের খবর আছে৷ যেমন ২০২২ সালের বিশ্বকাপের জন্য আমন্ত্রণকর্তা হিসেবে সম্ভাব্য প্রার্থীদেশগুলির তালিকা থেকে ইন্দোনেশিয়াকে বাদ দিয়েছে ফিফা৷ কারণ: প্রয়োজনীয় সরকারি গ্যারান্টি দেওয়া হয়নি৷ কাজেই ২০১৮ এবং ২০২২-এর বিশ্বকাপের জন্য ন'টি প্রার্থী দেশ কিংবা গোষ্ঠী বাকি রইল: অস্ট্রিয়া, ইংল্যান্ড, নেদারল্যান্ডস-বেলজিয়াম, জাপান, কাতার, রাশিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া, স্পেন-পোর্তুগাল এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র৷ - এছাড়া ইরাকি ফুটবল এ্যাসোসিয়েশন আইএফএ'র উপর নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করেছে ফিফা৷ গত নভেম্বরে ‘‘সরকারি হস্তক্ষেপের'' কারণে আইএফএ'কে সাসপেন্ড করে ফিফা৷ এবার ইরাকের জাতীয় অলিম্পিক কমিটি এনওসিআই আইএফএ ভেঙে দেওয়ার সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করার পর ফিফা'ও বাহুবল প্রদর্শন করেই ক্ষান্ত হচ্ছে৷

কে কি পেল

ওদিকে দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রীড়ামন্ত্রী মাখেনকেসি স্টোফিলে বলেছেন যে, বিশ্বকাপের টিকিট বিক্রির পরিমাণ আশাপ্রদ না হওয়ার কারণ হল বিশ্বের পরিবর্তিত অর্থনৈতিক পরিস্থিতি৷ তবুও, প্রায় ৩০ লক্ষ টিকিটের দুই-তৃতীয়াংশ বিক্রি হয়ে গেছে এবং স্টেডিয়ামের বাকি সীটগুলোও ভরার আশা রাখেন স্টোফিলে৷ দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট জেকব জুমা কিন্তু এখন বিভিন্ন মন্ত্রীকে সঙ্গে করে শ্যান্টিটাউন বা বস্তিগুলিতে ঘুরছেন জনগণের রোষ প্রশমন করার জন্য৷ জুমা গতকাল গিয়েছিলেন জোহান্নেসবার্গের পূর্বে মাডেলাকুফা বস্তিটিতে, যেখানকার মানুষদের বক্তব্য, এক রাসায়নিক শৌচালয় ছাড়া এই সরকার কিংবা এই বিশ্বকাপ তাদের কিছুই দেয়নি৷

প্রতিবেদক: অরুণ শঙ্কর চৌধুরী

সম্পাদনা: আবদুল্লা আল-ফারূক

সংশ্লিষ্ট বিষয়