1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানি

বৃদ্ধদের নার্সিং সেবা দিতে শরণার্থীদের প্রস্তুত করা হচ্ছে

বৃদ্ধদের প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সেবা দিতে উপযুক্ত কর্মীর সংকট দেখা দিয়েছে জার্মানিতে৷ আর এই সংকট কাটাতে একটি জার্মান ভোকেশনাল স্কুল শরণার্থীদের প্রস্তুত করার উদ্যোগ নিয়েছে৷

এক বৃদ্ধার মতো দেখতে একটি ডামির চারপাশ ঘিরে দাঁড়িয়ে আছেন আটজন শরণার্থীর একটি দল৷ একজন প্রশিক্ষক দলটিকে জানান যে, বৃদ্ধার নাম ফ্রাউ ম্যুলার এবং তার স্ট্রোক হয়েছে৷ তিনি তার মুখের মধ্যে ব্যথা অনুভব করছেন৷ এরপর একজন শরণার্থী বলা হয় ব্যথার কারণ অনুসন্ধান করতে৷ ‘‘তার জিহ্বা সাদা হয়ে গেছে৷ সম্ভত মুখে ঘা হয়েছে'', বলেন একজন শিক্ষার্থী

ইরাক, আফগানিস্তান, এবং সিরিয়া থেকে আসা এই শিক্ষার্থীরা প্রতি সপ্তাহের সোমবার থেকে শুক্রবার অবধি ‘বন অ্যাসোসিয়েশন ফর হেল্থকেয়ার ইন ওয়েস্টার্ন জার্মানি' নামক একটি সংগঠনে বৃদ্ধদের পরিচর্যা বিষয়ক প্রশিক্ষণ গ্রহণ করছেন৷ তারা বাকিউফা নামের ছয়মাস মেয়াদি একটি প্রশিক্ষণ কর্মসূচির শিক্ষার্থী৷ প্রশিক্ষণের উদ্দেশ্য হচ্ছে বৃদ্ধদের নার্সিং সেবা দিতে শরণার্থীদের প্রাথমিকভাবে প্রস্তুত করার পাশাপাশি তাদের জার্মান ভাষা শিক্ষা দেয়া৷

সংগঠনটির মুখপাত্র বির্গিট শিয়ারবাউম এ বিষয়ে বলেন, ‘‘শরণার্থীদের সুযোগ দেয়াটা বুদ্ধিমানের কাজ হবে৷ বৃদ্ধদের জন্য কাজ করতে পারেন এমন মানুষের সংখ্যা বেশি নেই৷ শরণার্থীরা কাজ করতে চান এবং নার্সিং কেয়ার হচ্ছে এমন এক পেশা যেখানে সামনে আগানোর সুযোগ আছে৷''

প্রশিক্ষণ কর্মসূচির পরিচালক শিলান ফেন্ডি এ সম্পর্কে বলেন, ‘‘দলটির মধ্যে আগ্রহ অনেক৷ আর নারী ও পুরুষ অংশগ্রহণকারীরা একে অপরকে সহায়তা করছেন৷'' ফেন্ডি প্রশিক্ষক হিসেবে পুরো দলকে সহায়তা করেন৷ এমনকি কোর্সের মধ্যে অন্তর্ভূক্ত একমাসের ইন্টানর্শীপের জন্য জায়গাও খুঁজে দেন তিনি৷

নার্সিং কোর্সের শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন ব্যাকগ্রাউন্ড থেকে এসেছেন৷ তাদের স্বাস্থ্যসেবা খাতে কাজ করার অভিজ্ঞতাও রয়েছে৷ ২৭ বছর বয়সি রামি বাজি নিজের দেশ আফগানিস্তানে ফিজিক্যাল থেরাপি নিয়ে লেখাপড়া করেছেন৷ এমনকি তিন বছর কাজও করেছেন৷ এরপর আর নিজ দেশে নিরাপদ বোধ না করায় শরণার্থী হিসেবে ইউরোপে পাড়ি জমান তিনি৷

তবে আফগানিস্তানে শিক্ষা গ্রহণ করায় সরাসরি জার্মানির স্বাস্থ্যসেবা খাতে চাকুরি নেয়ার জন্য উপযুক্ত হয়ে যাচ্ছেন না বাজি৷ বরং প্রয়োজন অনুযায়ী জার্মানিতেও তাঁকে কোর্স করতে হবে৷ তারমতো অবস্থা আরো অনেকের৷ আর তাদের সহায়তা করছে বাকিউফা কোর্সটি৷ আগামী অক্টোবর অবধি চলবে এই কোর্স৷

ইন্ফোমাইগ্রেন্টস – সকল সত্ত্ব সংরক্ষিত

বাহ্যিক ওয়েবসাইটের কন্টেন্টের জন্য ইন্ফোমাইগ্রেন্টস দায়বদ্ধ নয়৷

ওয়েসলি ডকারি/এআই

নির্বাচিত প্রতিবেদন